Home /News /explained /
COVID-19 Vaccine: আমাদের কি প্রতি বছর অন্তর কোভিড টিকা নিতে হবে? কী বলছেন বিশেষজ্ঞরা

COVID-19 Vaccine: আমাদের কি প্রতি বছর অন্তর কোভিড টিকা নিতে হবে? কী বলছেন বিশেষজ্ঞরা

করোনা টিকা নেওয়ার ফাইল ছবি।

করোনা টিকা নেওয়ার ফাইল ছবি।

Covid 19: কোভিড টিকাগুলির কোনওটিই ১০০ শতাংশ কার্যকর নয়।

  • Share this:

#নয়াদিল্লি: বিশ্বজুড়ে করোনাভাইরাস টিকার (COVID-19 Vaccine) সফল বিকাশ এবং প্রবর্তন আমাদের স্বস্তির নিঃশ্বাস ফেলতে সাহায্য করেছে। যদিও সময়ের সঙ্গে সঙ্গে আমরা এটা জানতে পেরেছি যে টিকা নেওয়ার পরেও সংক্রমিত হওয়া অসম্ভব নয়। অবশ্য, উপলব্ধ টিকাগুলি ভাইরাসের বিরুদ্ধে কার্যকর প্রমাণিত হয়েছে, হাসপাতালে ভর্তি এবং মৃত্যুর ঝুঁকি অনেকাংশে কমিয়েছে। যাই হোক, কোভিড টিকাগুলির কোনওটিই ১০০ শতাংশ কার্যকর নয়। নতুন প্রজাতিগুলি (Variants) কেবল মারাত্মক সংক্রমণযোগ্য নয়, এরা টিকা নেওয়ার কারণে তৈরি হওয়া অনাক্রম্যতা (Immunity) থেকেও বাঁচার ক্ষমতা রাখে। একটি নির্দিষ্ট সময়ের পরে সংক্রমিত হওয়া থেকে নিজেকে রক্ষা করার জন্য ইমিউন প্রতিক্রিয়া (Immune Response) বাড়াতে অতিরিক্ত ডোজের প্রয়োজন হতে পারে। কিন্তু আমাদের ফ্লুর মতো বার্ষিক কোভিড শট (COVID-19 Vaccine) লাগবে কি না তার কোনও চূড়ান্ত উত্তর এখনও অমিল।

করোনাভাইরাস উদ্বেগের প্রজাতি: এখনও পর্যন্ত করোনাভাইরাসের পাঁচটি প্রজাতিকে উদ্বেগের প্রজাতি (Variants Of Concern) হিসাবে চিহ্নিত করা হয়েছে। সেগুলি হল-আলফা (Alpha), বিটা (Beta), গামা (Gamma), ডেল্টা (Delta) এবং ওমিক্রন (Omicron)। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা জানিয়েছে, আলফা প্রজাতি (B.1.1.7) প্রথম ব্রিটেনে ২০২০ সালের সেপ্টেম্বরে পাওয়া গিয়েছিল। বিটা প্রজাতি (B.1.351) ২০২০ সালের মে মাসে দক্ষিণ আফ্রিকায় পাওয়া গিয়েছিল। পরবর্তী অত্যন্ত সংক্রমণযোগ্য প্রজাতি গামা (P.1) ২০২০ সালের নভেম্বরে ব্রাজিলে পাওয়া গিয়েছিল। এই তিনটি প্রজাতির মিউটেশনে কিছুটা মিল রয়েছে। বিশেষ করে স্পাইক প্রোটিনের মূল অঞ্চলে। SARS-CoV-2-তেও স্পাইক প্রোটিন একই মিউটেশনগুলি বহন করে।

আরও পড়ুন: করোনা সংক্রমণ থেকে সেরে ওঠার পরে 'মস্তিষ্কের কুয়াশা'য় ভুগতে পারেন আপনিও! কী এর উপসর্গ?

করোনাভাইরাসের চতুর্থ প্রজাত ডেল্টা (B.1.617.2) বা সুপার-আলফা ২০২০ সালের অক্টোবরে ভারতে সনাক্ত করা হয়েছিল। বিশেষজ্ঞরা বলছেন যে এটি আলফা প্রজাতির তুলনায় ৬০ শতাংশ বেশি সংক্রমণযোগ্য ছিল৷ ডেল্টা সংক্রমিত ব্যক্তিদের শ্বাসনালীতে দ্রুত এবং উচ্চ স্তরে বৃদ্ধি পায়, ভাইরাসের বিরুদ্ধে প্রাথমিক প্রতিরোধ ক্ষমতাকে এড়াতে পারে।

ওমিক্রন (Omicron)-B.1.1.529 প্রজাতি ২০২১ সালের নভেম্বরে প্রথম সনাক্ত করা হয়েছিল। অন্যান্য প্রজাতির সঙ্গে তুলনা করলে ওমিক্রনে আরও বেশি মিউটেশন রয়েছে। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা জানিয়েছে, করোনাভাইরাসের অন্য উদ্বেগজনক প্রজাতিগুলি হল ল্যাম্বডা (Lambda) এবং মু (Mu)।

নতুন প্রজাতিগুলি কি টিকার কার্যকারিতা এড়াতে পারে?

ভাইরাসের নতুন উদীয়মান প্রজাতি নতুন চ্যালেঞ্জ নিয়ে আসে। করোনাভাইরাসের ডেল্টা প্রজাতি (Delta Variant) সবচেয়ে মারাত্মক ছিল। এটি ফুসফুসের মারাত্মক ক্ষতি করে, যার ফলে গুরুতর, যন্ত্রণাদায়ক উপসর্গ দেখা দেয় এবং সবচেয়ে খারাপ পরিস্থিতিতে অনেকের মৃত্যু হয়। ওমিক্রনের কারণে তুলনামূলকভাবে হালকা সংক্রমণ হচ্ছে। তবে এটি মারাত্মক সংক্রমণযোগ্য, প্রাকৃতিক এবং টিকা থেকে পাওয়া অনাক্রম্যতা এড়ানোর ক্ষমতা রয়েছে। ওমিক্রনে (Omicron) ৫০টিরও বেশি মিউটেশন রয়েছে, যা এটিকে দ্রুত ছড়িয়ে পড়ার এবং প্রতিরোধ ক্ষমতাকে ফাঁকি দেওয়ার ক্ষমতা দেয়। তাই বর্তমানে সবচেয়ে বড় চ্যালেঞ্জ হল ভাইরাসের মিউটেশনের বিরুদ্ধে বর্তমান টিকার কার্যকারিতা। সম্ভবত টিকার কার্যকারিতা আগের মতো নাও হতে পারে। ট্রায়ালে একটি টিকার উচ্চ কার্যকারিতার হারের অর্থ এটা নয় যে বাস্তব বিশ্বেও এটির উচ্চ স্তরের কার্যকারিতা থাকবে। বেশিরভাগ সময়, টিকার কার্যকারিতা বাস্তব জগতে সংঘটিত পরিবর্তনশীলতার কারণে ভিন্ন হয়।

আরও পড়ুন: সাধের ফুচকাই এবার ঝরাবে ওজন, জেনে নিন কীভাবে

উপরন্তু, করোনাভাইরাস ক্রমাগত পরিবর্তিত হচ্ছে এবং একই ভ্যাকসিন সমস্ত প্রজাতিতে কার্যকর নাও হতে পারে। তাই, বিশেষজ্ঞরা হয় বিদ্যমান কোভিড টিকাগুলির আপডেট করার বা ভবিষ্যতে প্রজাতি-নির্দিষ্ট টিকা (Variant-Specific Vaccines) তৈরি করার পরামর্শ দিয়েছেন।

টিকার আপডেট: ওমিক্রন প্রজাতি বিশ্বজুড়ে উদ্বেগ বাড়িয়েছে। বিশেষজ্ঞরা জানতে পেয়েছেন যে প্রজাতিটিতে বেশ কয়েকটি মিউটেশন রয়েছে ,যা এটিকে প্রাকৃতিক সংক্রমণ এবং টিকা থেকে পাওয়া অনাক্রম্যতা এড়াতে সক্ষম করে। তাই চিকিৎসকরা বর্তমান টিকাগুলিকে আপডেট করার পরামর্শ দিয়েছেন। এর আগে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (WHO) বলেছিল যে বর্তমান কোভিড টিকাগুলি ওমিক্রন এবং ভবিষ্যতের প্রজাতিগুলির বিরুদ্ধে কার্যকর, এটা নিশ্চিত করার জন্য পুনরায় কাজ শুরু করার প্রয়োজন হতে পারে। তারা আরও যোগ করেছে, "কোভিড টিকাগুলিকে শক্তিশালী এবং দীর্ঘস্থায়ী প্রতিরোধ ক্ষমতা তৈরি করতে হবে, যাতে পর পর বুস্টার ডোজ না নিতে হয়।" গ্লোবাল হেলথ এজেন্সি বিশ্বাস করে যে মূল টিকার কম্পোজিশনের বারবার বুস্টার ডোজ যথাযথ ও দীর্ঘ মেয়াদে কার্যকর হওয়ার সম্ভাবনা কম।

টিকার কার্যকারিতা কমে যাওয়া: কোভিড টিকা নেওয়া নিয়মিত ব্যাপার হয়ে উঠতে পারে তার আরেকটি কারণ হল রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা হ্রাস পাওয়ার সম্ভাবনা। প্রাথমিক দুটি টিকার ডোজ থেকে পাওয়া সুরক্ষা সময়ের সঙ্গে সঙ্গে কমতে পারে। হঠাৎ করে সংক্রমণ বৃদ্ধি এবং টিকা নেওয়ার পরই সংক্রমিত হওয়ার ঘটনাক পরিপ্রেক্ষিতে, বিশেষজ্ঞরা বিশ্বাস করেছেন যে টিকা থেকে প্রাপ্ত অনাক্রম্যতা সময়ের সঙ্গে সঙ্গে কমে যায়।

আরও পড়ুন: কোরিয়ান খাবার গোচুজাং! কেন এই খাবারের এত রমরমা শুরু হয়েছে জানেন?

বুস্টার ডোজ: টিকার দুটি ডোজ দ্বারা পাওয়া রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়াতে করোনাভাইরাসের বুস্টার শটগুলি দেওয়া হয়। যদিও বিশেষজ্ঞরা বিশ্বাস করেন যে টিকা থেকে প্রাপ্ত অনাক্রম্যতা সময়ের সঙ্গে সঙ্গে হ্রাস পেতে পারে, অতিরিক্ত শট নেওয়া হলে আরও কার্যকর ইমিউন প্রতিক্রিয়া ট্রিগার করতে পারে, পাশাপাশি শরীরে অ্যান্টিবডির সংখ্যাও বৃদ্ধি করতে পারে। নতুন কোভিড প্রজাতির আবির্ভাবের পরে বুস্টার শটগুলির চাহিদা বেড়েছে। কারণ, টিকা নেওয়ার পরেও সংক্রমিত (Breakthrough Infections) হচ্ছেন অনেকে এবং সম্পূর্ণরূপে টিকা নেওয়া হলেও ঝুঁকি থেকে যাচ্ছে। বিশেষজ্ঞদের দাবি, তৃতীয় কোভিড টিকার ডোজ শুধুমাত্র অনাক্রম্যতা (Immunity) বৃদ্ধি করবে। এখন, নতুন উদীয়মান প্রজাতির কারণে বলা হচ্ছে যে টিকার কার্যকারিতা কমছে এবং রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা কমছে। বিশেষজ্ঞদের মতে, বুস্টার শটগুলি একজনের ইমিউন সিস্টেমকে আবারও জাগিয়ে তোলে রোগ প্রতিরোধ করবার জন্য।

প্রজাতি-নির্দিষ্ট ভ্যাকসিনের ভূমিকা: নতুন ভাইরাল স্ট্রেনের প্রাথমিক রিপোর্ট বিশ্বজুড়ে স্বাস্থ্য আধিকারিকদের আশঙ্কা বাড়িয়েছে। ওমিক্রনের স্পাইক প্রোটিনে তিরিশের বেশি মিউটেশন রয়েছে, তাই এটি মনে করা হয় যে এই প্রজাতি টিকা থেকে প্রাপ্ত অনাক্রম্যতা থেকে রক্ষা পেতে পারে। এর ফলে বিদ্যমান কোভিড টিকাগুলি আপডেট করা বা প্রজাতি-নির্দিষ্ট টিকা (Omicron Specific Vaccines) তৈরির প্রয়োজনীয়তা নিয়ে আলোচনা শুরু হয়েছে। মডার্না (Moderna) প্রথম ফার্মাসিউটিক্যাল কোম্পানি ছিল যারা দাবি করেছিল যে বর্তমানে চালু থাকা টিকাগুলি নতুন প্রজাতির বিরুদ্ধে কম কার্যকর হতে পারে, একই সঙ্গে এটাও ঘোষণা করেছিল যে তারা নির্দিষ্টভাবে ওমিক্রন প্রজাতির জন্য এই বছরের প্রথম দিকে টিকা আনতে চলেছে।

এখন ফাইজার (Pfizer) এবং মডার্না (Moderna) উভয় সংস্থার সিইও-র মতে, ওমিক্রন প্রজাতিকে টার্গেট করার জন্য বিশেষভাবে দুটি নতুন টিকা শীঘ্রই প্রস্তুত করা হবে। যাই হোক, অনেকেই এই ধরনের টিকার কার্যকারিতা নিয়ে সন্দিহান থাকেন, প্রশ্ন করেন যে এটি বিদ্যমান টিকা থেকে কীভাবে আলাদা এবং এটি আদৌ প্রয়োজন কি না।

আরও পড়ুন -  ৫ বছরের কম বয়সী বাচ্চাদের করোনার টিকা! মা-বাবা'দের যা জানতেই হবে...

ওমিক্রন নির্দিষ্ট টিকাগুলি বিশেষভাবে ওমিক্রন প্রজাতিকে টার্গেট করার জন্য তৈরি করা হয়েছে। সম্প্রতি, ফার্মাসিউটিক্যাল জায়ান্ট ফাইজার-বায়োএনটেক (Pfizer-BioNtech) এবং মডার্না (Moderna) ঘোষণা করেছে যে তারা ওমিক্রন নির্দিষ্ট টিকার ক্লিনিকাল ট্রায়াল শুরু করেছে। দুটি টিকাই একই এমআরএনএ (mRNA) প্রযুক্তি ব্যবহার করে তৈরি করা হয়েছে। ওমিক্রন প্রজাতিতে অন্তত ৫০টি মিউটেশন রয়েছে, যা এটিকে প্রথম দিকের করোনাভাইরাসের থেকে আলাদা করে। প্রজাতি-নির্দিষ্ট টিকা তাই মূল টিকা থেকে কিছুটা আলাদা বলে মনে করা হয়। মেসেঞ্জার আরএনএ (mRNA) টিকা মারাত্মক রোগজীবাণুগুলির বিরুদ্ধে লড়াই করার জন্য কোষগুলিকে সক্রিয় করে একটি ইমিউন প্রতিক্রিয়া শুরু করে। এগুলি কোষকে প্রোটিন বা করোনাভাইরাস স্পাইক প্রোটিনের টুকরো তৈরি করতে নির্দেশ দেয়, যা শরীরে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা তৈরি করে। এই কৃত্রিমভাবে তৈরি স্পাইক প্রোটিনগুলো মূল ভাইরাসের মতো প্রতিলিপি তৈরি করতে পারে না।

Published by:Uddalak B
First published:

Tags: Coronavirus, Covid ১৯

পরবর্তী খবর