Home /News /south-bengal /
অনুব্রতহীন বীরভূম! দখল নিতে মরিয়া গেরুয়া শিবির

অনুব্রতহীন বীরভূম! দখল নিতে মরিয়া গেরুয়া শিবির

Representative Image

Representative Image

BJP || রামপুরহাট শহরে বিজেপির দলীয় কার্যালয়ে প্রস্তুতি তুঙ্গে।

  • Share this:

    #বীরভূম: অনুব্রতহীন বীরভূমের দখল নিতে মরিয়া বিজেপি। আগামিকাল বীরভূমে মিছিল গেরুয়া শিবিরের। দলীয় কর্মীদের চাঙ্গা করতে বিশেষ বৈঠক অনুষ্ঠিত হয় রামপুরহাট বিজেপি দলীয় কার্যালয়ে। তারাপীঠে আগামিকাল বিজেপি যুব মোর্চার মিছিলে উপস্থিত থাকবেন যুব মোর্চার রাজ্য সভাপতি ইন্দ্রনীল খাঁ। তার আগে রামপুরহাট শহরে বিজেপির দলীয় কার্যালয়ে প্রস্তুতি তুঙ্গে।

    অনুব্রত কাণ্ডে মোড় ঘুরছে প্রতিনিয়ত৷ কত টাকার সম্পত্তি রয়েছে বীরভূমের তৃণমূল সভাপতি অনুব্রত মণ্ডলের? বেনামে কত কোটি কোটি টাকা রয়েছে দাপুটে নেতার? গরুপাচার কাণ্ডের তদন্তে নেমে এবার এই প্রশ্নের উত্তর খুঁজতে মরিয়া সিবিআই। এদিন প্রথমে অনুব্রত মণ্ডলের মেয়ে সুকন্যা মণ্ডলের সঙ্গে কথা বলতে বাড়িতে গিয়েছিলেন গোয়েন্দারা। কিন্তু সিবিআইয়ের সঙ্গে কথা বলতে রাজি হননি সুকন্যা। সেখানে ১০ মিনিট থেকেই অনুব্রতর বাড়ি থেকে বেরিয়ে রাষ্ট্রায়ত্ত্ব ব্যাঙ্কে যায় সিবিআই। জানা গিয়েছে, রাষ্ট্রায়ত্ত্ব ব্যাঙ্কের আধিকারিকদের সঙ্গে কথা বলেন গোয়েন্দারা।

    আরও পড়ুন: বোলপুর পৌঁছেই তৎপর CBI, অনুব্রতর CA-কে জিজ্ঞাসাবাদ, তলব ২ ব্যাঙ্ক আধিকারিককে

    আরও পড়ুন: আজই অনুব্রতর মেয়ে, চার্টার্ড অ্যাকাউন্ট্যান্টকে জেরা! বোলপুরে যাচ্ছে সিবিআই

    সিবিআই সূত্রে খবর, দুই ব্যাঙ্ক আধিকারিককে তলব করা হয়েছে। অনুব্রত মণ্ডলের সিএ-কেও তলব করা হয়েছে। সিএ-র বক্তব্যের সঙ্গে নথি মিলিয়ে দেখা হবে। অনুব্রতর মেয়ে সুকন্যার সম্পত্তির লেনদেন হওয়ার বিভিন্ন তথ্য খতিয়ে দেখতে চাইছেন তদন্তকারীরা। ব্যাঙ্কের আধিকারিকদের সঙ্গে সম্পত্তি নিয়ে দীর্ঘ সময় কথা বলেন সিবিআই আধিকারিকেরা। তার পরেই বিকেলে প্রায় ১৬ কোটি ৯৭ লক্ষ টাকার ফিক্সড ডিপোজিট বাজেয়াপ্ত করেছেন গোয়েন্দারা।

    নতুন করে বিস্ফোরক অভিযোগ উঠেছে অনুব্রত মণ্ডলের মেয়ে সুকন্যা মণ্ডলের বিরুদ্ধে। বিচারপতি অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায়ের বেঞ্চে ওঠা মামলায় বুধবার অভিযোগ করা হয়েছে, অনৈতিক ভাবে, টেট পাশ না করেই স্কুলের চাকরি পেয়েছেন অনুব্রত কন্যা সুকন্যা। বোলপুরের কালিকাপুরে তিনি চাকরি পেয়েছেন বলে অভিযোগ। তিনি নাকি স্কুলেও যেতেন না, বাড়িতে পৌঁছে দেত রেজিস্ট্রার। অনুব্রতর পার্সোনাল অ্যাসিস্টেন্ট অর্ক দত্তও চাকরি পেয়েছেন, চাকরি পেয়েছেন বেশ কয়েকজন আত্মীয়। সকলেই চাকরি পেয়েছেন বোলপুর সার্কেলে। আদালতে অভিযোগ করেছেন মামলাকারী সৌমেন নন্দী।

    Published by:Rachana Majumder
    First published:

    Tags: Anubrata Mondal, Birbhum, BJP

    পরবর্তী খবর