• Home
  • »
  • News
  • »
  • kolkata
  • »
  • KMC Election: কলকাতা-হাওড়া পুরভোটে প্রার্থী কারা, স্পষ্ট করে দিলেন TMC শীর্ষ নেতৃত্ব

KMC Election: কলকাতা-হাওড়া পুরভোটে প্রার্থী কারা, স্পষ্ট করে দিলেন TMC শীর্ষ নেতৃত্ব

KMC Election: দল যাকে ভালো মনে করবে, কলকাতা-হাওড়ার পুরভোটে তাকেই প্রার্থী করা হবে। কর্মীদের বার্তা তৃণমূল শীর্ষ নেতৃত্বের। 

KMC Election: দল যাকে ভালো মনে করবে, কলকাতা-হাওড়ার পুরভোটে তাকেই প্রার্থী করা হবে। কর্মীদের বার্তা তৃণমূল শীর্ষ নেতৃত্বের। 

KMC Election: দল যাকে ভালো মনে করবে, কলকাতা-হাওড়ার পুরভোটে তাকেই প্রার্থী করা হবে। কর্মীদের বার্তা তৃণমূল শীর্ষ নেতৃত্বের। 

  • Share this:

#কলকাতা: বিধানসভা ভোটের সাফল্য অবশ্যই মাপকাঠিতে আসবে৷ কিন্তু আগামী পুর ভোটে দল কাকে প্রার্থী করবে সেটা দলের ওপরেই ছেড়ে দিতে হবে। কোনও ধরণের বিশৃঙ্খলা দল যে সহ্য করবে না তা বুঝিয়ে দিয়েছে তৃণমূলের শীর্ষ নেতৃত্ব। খুব শীঘ্রই কলকাতা (KMC Election) ও হাওড়ায় পুর ভোট অনুষ্ঠিত হবে। তার আগে দক্ষিণ কলকাতা জেলা তৃণমূলের বিজয়া সম্মেলনের অনুষ্ঠানে দলের রাজ্য সভাপতি বলেন, "কলকাতা ও হাওড়া পুরসভার নির্বাচন হবে। তারপরই হবে আরও ১১৬টি পুরসভার নির্বাচন। দল যাকে উপযুক্ত মনে করবে, তিনিই প্রার্থী হবেন। দলের সিদ্ধান্তের উর্ধ্বে কেউ নন।’’

জনপ্রতিনিধিদের সামনে কথা বলতে গিয়ে রাজ্য সভাপতি বলেন, "গত বিধানসভা নির্বাচনে বাংলার মানুষ দেখিয়ে দিয়েছে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের প্রতি তাঁদের আস্থা। তাই রাজনৈতিক খিদে পূরণ না হলে আপনারা কোনও পদক্ষেপ করলে মানুষ আপনাদের ছেড়ে কথা বলবে না। তাই বিরূপ পরিস্থিতিতে কোনও সিদ্ধান্ত বা পদক্ষেপ করার আগে চারবার চিন্তা করবেন।’’

আরও পড়ুন: আচমকা 'বায়ো'তে পরিবর্তন, বড় বিস্ফোরণের ইঙ্গিত তথাগত রায়ের! না কি দলত্যাগ?

এর পাশাপাশি আত্মবিশ্বাসে ভর করে বসে থাকলে হবে না। মাঠে নেমে লড়াই করার বার্তা দিয়েছেন তিনি৷ তাঁর কথায়, '‘অনেক আগে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলতেন ছোট লালবাড়ি দখলে এলেই বড় লাল বাড়ি দখল সম্ভব। এখন আমরা বলছি ছোট লালবাড়ি দখলে থাকলেই এ রাজ্যের তৃণমূলের প্রভাব থাকবে। তাই আপনাদের উদ্দেশে বলব ছোট লালবাড়ির দখলে ভাল ফল করতে আপনারা সবাই কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে কাজ করবেন।’’

আরও পড়ুন: পুরভোটে পয়সা নিয়ে প্রার্থী? শোরগোল ফেলা অডিও নিয়ে এবার দিলীপ ঘোষ বললেন...

অন্যদিকে কলকাতা পুরসভার পুর প্রশাসক তথা রাজ্যের পরিবহনমন্ত্রী ফিরহাদ হাকিম বলেন, ‘‘এখন রাজ্যের তৃণমূল ছাড়া কোথাও কোনও রাজনৈতিক দল নেই। এমনটা ভেবে অনেকেই ঔদ্ধত্যপূর্ণ আচরণ করছেন। আমি দক্ষিণ কলকাতার কথা বলছি না। রাজ্যের কোথাও কোথাও এমন ভাবনা এসেছে। এমন ভাবনার মানে আপনার মধ্যে ঔদ্ধত্যপূর্ণ আচরণ এসেছে।’’ তিনি আরও বলেন, ‘‘তৃণমূল ঔদ্ধত্যপূর্ণ আচরণের জন্য ক্ষমতায় আসেনি। মানুষকে পরিষেবা দিন। কাজ করুন। জানি বহুবার বহুরকম ভাবে আপনাদের বিরক্ত করা হবে। কিন্তু তাদের ব্যবহারে বিরক্ত না হয়ে তাদের কাজ করে দিন, সেবা দিন। তবে আমরা দীর্ঘদিন এ রাজ্যে নিজেদের দলকে ক্ষমতায় রাখতে পারব।’’

Published by:Suman Biswas
First published: