Home /News /business /
Corporate Fixed Deposit: সাধারণ এফডি-র থেকে কর্পোরেট এফডি অনেক ভালো, কোথায় পার্থক্য দেখে নিন!

Corporate Fixed Deposit: সাধারণ এফডি-র থেকে কর্পোরেট এফডি অনেক ভালো, কোথায় পার্থক্য দেখে নিন!

Corporate Fixed Deposit: মেয়াদ বেছে নেওয়ার ক্ষেত্রে সাধারণ এফডি-র থেকে কর্পোরেট এফডি-তে বেশি সুবিধা পাওয়া যায়।

  • Share this:

#নয়াদিল্লি: নির্দিষ্ট মেয়াদে এককালীন মোটা অঙ্কের টাকা বিনিয়োগ করাকেই বলা হয় ফিক্সড ডিপোজিট। বিনিয়োগের পর সেই টাকাটা লক ইন পিরিয়ডে রাখা হয়। বদলে মাসিক, ত্রৈমাসিক, ষাণ্মাসিক বা বার্ষিক হারে সুদ দেওয়া হয়। যে কোনও সরকারি বা বেসরকারি ব্যাঙ্ক বা পোস্ট অফিসে ফিক্সড ডিপোজিট করা যায়। কর্পোরেট ফিক্সড ডিপোজিট এর থেকে আলাদা কিছু নয়। কিন্তু মেয়াদ বেছে নেওয়ার ক্ষেত্রে সাধারণ এফডি-র থেকে কর্পোরেট এফডি-তে বেশি সুবিধা পাওয়া যায়। পাশাপাশি ব্যাঙ্কের এফডি-র থেকে এর সুদের হারও বেশি।

আরও পড়ুন: পাঁচ বছরের জন্য ৫লাখ বিনিয়োগ,ব্যাঙ্কের থেকে পোস্ট অফিসে ৪০ হাজার বেশি পাওয়া যাবে

তাহলে ব্যাঙ্কের ফিক্সড ডিপোজিটের থেকে কর্পোরেট এফডি আলাদা কোথায়? প্রথমত, সুদের হার। যে কোনও ব্যাঙ্কের ফিক্সড ডিপোজিটের থেকে কর্পোরেট এফডি-তে সুদের হার বেশি। যেমন এক বছর থেকে দুই বছরের কম মেয়াদের জন্য আরবিএল ব্যাঙ্কে এফডি-তে সুদের হার ৬.৫ শতাংশ। যেখানে একই মেয়াদের জন্য বাজাজ ফিনসার্ভ-এর ফিক্সড ডিপোজিট স্কিমে দেওয়া সুদের হার ৬.৯ শতাংশ।

আরও পড়ুন: ট্রেনের ধাক্কায় পশু মৃত্যুতে কোটি কোটি টাকার লোকসান হচ্ছে রেলের ! কিন্তু কেন ?

দ্বিতীয়ত, মেয়াদের আগে টাকা তুলে নিতে চাইলে জরিমানার পরিমাণ। এফডি করার আগে মেয়াদ স্থির করতে হয়। কারণ যদি ম্যাচিওরিটির আগেই ফিক্সড ডিপোজিট ভাঙা হয়, তাহলে জরিমানা হিসেবে ক্ষতিপূরণ দিতে হয়। এর পাশাপাশি ডিপোজিট থেকে পাওয়া ফায়দাও কম হয়ে যায়। যেমন এসবিআই-তে মেয়াদ শেষের আগে যে কোনও সময় এফডি-র টাকা তুললেই জরিমানা দিতে হয়। কিন্তু কর্পোরেট এফডি-র ক্ষেত্রে এই সময়টা মাত্র ৩ মাস। অর্থাৎ বিনিয়োগ করা অর্থ প্রাথমিক তিন মাসের মধ্যে তুলে নিলে তখন জরিমানা দিতে হবে, নাহলে নয়।

আরও পড়ুন: আর বেশিদিন অপেক্ষা করতে হবে না, শীঘ্রই অ্যাকাউন্টে আসতে চলেছে টাকা

তাই সাধারণ এফডি-র তুলনায় কর্পোরেট এফডি-র সুবিধা বেশি। তবে কর্পোরেট এফডি করার আগে সেই কোম্পানির ক্রেডিট রেটিং দেখে নিতে হবে। বিভিন্ন কোম্পানির দেওয়া ফিক্সড ডিপোজিট ক্রিসিল-এর মতো প্রতিষ্ঠান থেকে জারি করা ক্রেডিট রেটিং-সহ আসে। যার রেটিং ভালো সেখানেই বিনিয়োগ করা উচিত। পাশাপাশি সুদের হারও দেখে নিতে হবে। কিছু এনবিএফসি-তে একই মেয়াদে অন্যদের তুলনায় বেশি সুদের হার পাওয়া যায়। একই সঙ্গে জমা করার জন্য ন্যূনতম এবং সর্বোচ্চ অ্যামাউন্টও দেখে নিতে হবে। কারণ বেশিরভাগ কোম্পানিরই ন্যূনতম এবং সর্বোচ্চ অ্যামাউন্ট নির্দিষ্ট করা থাকে। এখন কেউ কোনও কোম্পানিতে ২৫ হাজার টাকার ফিক্সড ডিপোজিট করতে চান। কিন্তু সেই কোম্পানিতে ন্যূনতম টাকা জমা করার পরিমাণ ৫০ হাজার হলে বিপদ। তাই কর্পোরেট এফডি করার আগে এই বিষয়গুলো দেখে নিতে হবে।

Published by:Dolon Chattopadhyay
First published:

Tags: Corporate Fixed Deposit, Fixed Deposit

পরবর্তী খবর