Home /News /business /
IT Filing: সেভিংস অ্যাকাউন্টে এক বছরে ৫০ লাখ টাকা জমা করেছেন? এবার থেকে দিতে হবে আয়কর!

IT Filing: সেভিংস অ্যাকাউন্টে এক বছরে ৫০ লাখ টাকা জমা করেছেন? এবার থেকে দিতে হবে আয়কর!

IT Filing: এবার আয়কর আইনে আরও কিছু নতুন নিয়ম যোগ করা হয়েছে।

  • Share this:

#নয়াদিল্লি: বর্তমানে ভারতের জনসংখ্যা প্রায় ১৩০ কোটি। অথচ আয়কর দেন মাত্র ১.৬ শতাংশ মানুষ। যাতে আরও বেশি মানুষ আয়কর দেন সেজন্য বেশ কয়েকটি নতুন নিয়ম আনল কেন্দ্রীয় সরকার।

১৯৬২ সালের আয়কর আইন অনুযায়ী, কোনও ব্যক্তির আয় যদি মৌলিক ছাড়ের সীমার চেয়ে বেশি হয় তাহলে তাঁর আয়কর রিটার্ন ফাইল করা বাধ্যতামূলক।

আরও পড়ুন: পেট্রোল ও ডিজেলের নতুন রেট জারি, এখানে চেক করে নিন লেটেস্ট দাম....

এছাড়া আরও কিছু শর্ত রয়েছে। বিভিন্ন সময়ে যার পরিবর্তন করেছে কেন্দ্র সরকার। যেমন ২০১৯ সালে কেন্দ্র নিয়ম করেছিল, যদি কারও অ্যাকাউন্টে ১ কোটি টাকা বা তার বেশি জমা থাকে কিংবা বিদেশ ভ্রমণের জন্য ২ লাখ টাকার বেশি খরচ করেন কিংবা ১ লাখ টাকার বেশি বিদ্যুৎ বিল মেটান তাহলে তাঁর আয়কর রিটার্ন ফাইল করা বাধ্যতামূলক। এবার আয়কর আইনে আরও কিছু নতুন নিয়ম যোগ করা হয়েছে। সেখানে স্পষ্ট করা হয়েছে, কারও আয় মৌলিক ছাড়ের সীমার চেয়ে কম হলেও যদি তিনি এই মানদণ্ডগুলি পূরণ করেন তাহলে তাঁকে আয়কর রিটার্ন জমা করতে হবে।

চলতি মাসের ২১ এপ্রিল একটি বিজ্ঞপ্তি জারি করেছে সেন্ট্রাল বোর্ড অফ ডায়রেক্ট ট্যাক্সেস। সেখানে নতুন ৪টি নিয়ম যোগ করা হয়েছে। ট্যাক্স ম্যানেজার ডট ইনের প্রধান নির্বাহী দীপক জৈন বলেন, ‘সরকারি গেজেটে প্রকাশিত হওয়ার সময় থেকেই এই নিয়ম লাগু হয়ে গিয়েছে। প্রকাশিত বিজ্ঞপ্তিতে উল্লিখিত শর্তগুলি পূরণ করলে সেই ব্যক্তিকে ২০২২-২৩ আর্থিক বছর থেকেই আয়কর আইনের ১৩৯ ধারার অধীনে আয়কর রিটার্ন দাখিল করতে হবে’। এবার চারটি নতুন নিয়ম দেখে নেওয়া যাক।

ব্যবসায়িক টার্নওভার: এক অর্থবর্ষে কোনও ব্যবসায়ীর মোট বিক্রি বা টার্নওওভার ৬০ লক্ষ টাকার বেশি হয়, তাহলে তাঁকে আয়কর রিটার্ন ফাইল করতে হবে।

আরও পড়ুন: প্রি পেমেন্ট কী? এর মাধ্যমে কি মিলবে দীর্ঘমেয়াদী গৃহ ঋণ থেকে মুক্তি পাওয়ার সুযোগ

পেশাদার রসিদ: কোনও পেশাদার ব্যক্তি যদি আগের বছরের তুলনায় ১০ লাখ টাকা বেশি আয় করেন তাহলে তাঁকে বাধ্যতামূলকভাবে আইটিআর ফাইল করতে হবে। স্থাপত্য শিল্পী, ইঞ্জিনিয়ার, আইনজ্ঞ, আইটি প্রফেশনাল, অ্যাকাউন্ট্যান্সি, ইন্টেরিয়ার ডেকরেটর, মেডিক্যাল, সিএস, চলচ্চিত্র অভিনেতা এবং টেকনিক্যাল কনসালটেন্সির সঙ্গে যুক্ত ব্যক্তিরা ফ্রিল্যান্সিংয়ের মাধ্যমে আয় করলে এই নিয়ম প্রযোজ্য হবে বলে জানিয়েছেন জৈন।

টিডিএস: বর্তমানে বেতন, চুক্তিভিত্তিক ফি, কমিশন, লভ্যাংশ, পরিষেবার চার্জ, স্থাবর সম্পত্তি বিক্রয়, ভাড়া এবং ক্রয়, সুদের আয় এবং প্রায় সমস্ত উৎস থেকে অর্জিত আয়ের উপর টিডিএস ধার্য করা হয়। আয়ের উৎসের উপর ভিত্তি করে টিডিএসের হার পরিবর্তিত হয়। যা ১ শতাংশ থেকে ৩০ শতাংশে মধ্যে থাকে। এখন এক অর্থবর্ষে যদি সংগ্রহ করা টিডিএস বা ট্যাক্সের মোট পরিমাণ ২৫ হাজার টাকার বেশি হয় তাহলে আইটিআর ফাইল বাধ্যতামূলক।

আরও পড়ুন: ২ কোটির অবসর তহবিল, কয়েক দশক ধরে নিয়মিত আয় পেতে কোথায় কীভাবে বিনিয়োগ করবেন?

সেভিংস অ্যাকাউন্টে ৫০ লাখ: এক অর্থবর্ষে যদি কেউ সেভিংস অ্যাকাউন্টে ৫০ লক্ষ টাকার বেশি জমা করেন তাহলে তাঁকে বাধ্যতামূলকভাবে আইটিআর ফাইল করতে হবে। এই নিয়মগুলি শুধু কোনও কোম্পানি বা সংস্থা নয়, দেশের সমস্ত ব্যক্তির উপর প্রযোজ্য বলে জানিয়েছেন ইন্ডাসল-এর অংশীদার শশী ম্যাথুজ।

Published by:Dolon Chattopadhyay
First published:

Tags: IT Filing, Savings Account

পরবর্তী খবর