Home /News /west-midnapore /
Paschim Medinipur: মেদিনীপুর কেন্দ্রীয় সংশোধনাগারে জাতীয় পতাকা উত্তোলন করতে বাধা কেন্দ্রীয় মন্ত্রীকে!

Paschim Medinipur: মেদিনীপুর কেন্দ্রীয় সংশোধনাগারে জাতীয় পতাকা উত্তোলন করতে বাধা কেন্দ্রীয় মন্ত্রীকে!

title=

মেদিনীপুর কেন্দ্রীয় সংশোধনাগারে জাতীয় পতাকা উত্তোলন করতে এসে ফিরে যেতে হল কেন্দ্রের শিক্ষা প্রতিমন্ত্রী সুভাষ সরকারকে। ফিরে যাওয়ার আগে সংশোধনাগারের ভূমিকায় ক্ষোভ প্রকাশ করলেন মন্ত্রী।

  • Share this:

    #পশ্চিম মেদিনীপুর : মেদিনীপুর কেন্দ্রীয় সংশোধনাগারে জাতীয় পতাকা উত্তোলন করতে এসে ফিরে যেতে হল কেন্দ্রের শিক্ষা প্রতিমন্ত্রী সুভাষ সরকারকে। ফিরে যাওয়ার আগে সংশোধনাগারের ভূমিকায় ক্ষোভ প্রকাশ করলেন মন্ত্রী। আজাদী কা অমৃত মহোৎসবের অংশ হিসেবে শনিবার সকালে মেদিনীপুর কেন্দ্রীয় সংশোধনাগারে জাতীয় পতাকা উত্তোলন করতে এসেও পতাকা উত্তোলন না করেই ফিরে যেতে হল কেন্দ্রীয় শিক্ষা প্রতিমন্ত্রী সুভাষ সরকারকে। জানা গেছে, রাজ্য সরকারের সংশ্লিষ্ট দপ্তরের তরফে কোনেও অনুমোদন এসে পৌঁছয়নি মেদিনীপুর কেন্দ্রীয় সংশোধনাগার কর্তৃপক্ষের কাছে। আর সেই কারণেই সংশোধনাগারে প্রবেশ করতে পারলেন না কেন্দ্রীয় শিক্ষা প্রতিমন্ত্রী।

    জাতীয় পতাকা উত্তোলন না করেই ফিরতে হল তাঁকে। এই ঘটনার পর মেদিনীপুর কেন্দ্রীয় সংশোধনাগারের সামনে দাঁড়িয়ে গোটা বিষয় নিয়ে কড়া প্রতিক্রিয়া দিলেন মন্ত্রী সুভাষ সরকার। পরে মন্ত্রী সাংবাদিকদের কাছে ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন, এই ঘটনা অতি দুর্ভাগ্যজনক। স্বাধীনতা সংগ্ৰামীদের প্রতি অশ্রদ্ধা জ্ঞাপন করল রাজ্য সরকার বলেও মন্তব্য করেন সুভাষ বাবু।

    আরও পড়ুনঃ শিলাবতী নদীতে তলিয়ে যাওয়া ব্যক্তির মৃতদেহ উদ্ধার

    বিষয়টির নিন্দা করে কেন্দ্রীয় মন্ত্রককে লিখিত ভাবে জানানো হবে বলেও জানিয়েছেন তিনি। মন্ত্রী সুভাষ সরকার আরও বলেন, গোটা দেশজুড়ে কেন্দ্রীয় সরকারের তরফে স্বাধীনতার পঁচাত্তর বছর পূর্তি উদযাপন করা চলছে। এটি একটি সরকারি কর্মসুচি। গোটা দেশজুড়ে কেন্দ্রীয় মন্ত্রিসভার মন্ত্রীরা উল্লেখযোগ্য স্থানগুলিতে জাতীয় পতাকা উত্তোলন করছেন।

    আরও পড়ুনঃ "হর ঘর তিরঙ্গা" কর্মসূচি ঝাড়গ্রামের সিআরপিএফ ক্যাম্পে

    রাজ্য সরকার স্বাধীনতা দিবসের অনুষ্ঠান নিয়ে এত নির্বিকার, যার ফলে মেদিনীপুরবাসী ও স্বাধীনতা সংগ্রামীদের নিয়ে যে আমাদের গর্ব সেই গর্বে আঘাত করা হল। কিন্তু কেন এই বিপত্তি? এ নিয়ে অবশ্য কোনও উত্তর মেলেনি মেদিনীপুর কেন্দ্রীয় সংশোধনাগার কর্তৃপক্ষের তরফে। ক্যামেরার সামনে কোনও রকম মন্তব্য করতে চাননি তাঁরা।

    Partha Mukherjee
    Published by:Soumabrata Ghosh
    First published:

    Tags: Paschim medinipur

    পরবর্তী খবর