Home /News /technology /
Aadhaar Card Sharing Securities: সাবধান! আধার কার্ড ব্যবহার এবং শেয়ার করার সময় এই নিয়মগুলো না মানলেই মুশকিল

Aadhaar Card Sharing Securities: সাবধান! আধার কার্ড ব্যবহার এবং শেয়ার করার সময় এই নিয়মগুলো না মানলেই মুশকিল

Aadhaar Card Sharing Securities: আধার কার্ড ব্যবহার ও শেয়ার করার সময় কীভাবে সতর্ক থাকবেন, জেনে নিন।

  • Share this:

#নয়াদিল্লি: আধার (Aadhaar) কার্ড একটি খুবই গুরুত্বপূর্ণ ডকুমেন্ট। ভারত সরকার প্রভিশনস অফ দ্য আধার অ্যাক্ট, ২০১৬-র (Provisions of the Aadhaar Act, 2016) দ্বারা তৈরি করেছে দ্য ইউনিক আইডেন্টিফিকেশন অথরিটি অফ ইন্ডিয়া (The Unique Identification Authority of India)।

ভারত সরকার দ্বারা জারি করা কয়েকটি নিয়ম পালন করা প্রয়োজন আধার কার্ড ব্যবহার ও শেয়ার করার সময়। এক নজরে দেখে নেওয়া যাক সেই নিয়ম।

আরও পড়ুন- ঘুমের মধ্যে নাক ডাকার সমস্যা? সনাক্ত করতে নতুন ফিচার আনছে গুগল

১. অফিসিয়াল ওয়েবসাইট থেকেই ডাউনলোড করা উচিত আধার কার্ড -

সবসময় আধার কার্ড ডাউনলোড করা প্রয়োজন দ্য ইউনিক আইডেন্টিফিকেশন অথরিটি অফ ইন্ডিয়ার (UIDAI) অফিসিয়াল পোর্টাল থেকে। এটি হল - https://eaadhaar.uidai.gov.in/genricDownloadAadhaar

২. পাবলিক কম্পিউটার এবং ল্যাপটপ থেকে আধার কার্ড ডাউনলোড করা উচিত নয় -

সবসময় মনে রাখা প্রয়োজন যে কোনও পাবলিক কম্পিউটার, ল্যাপটপ অথবা সাইবার কাফে থেকে নিজেদের ই-আধার কার্ড ডাইউনলোড করা উচিত নয়। এক্ষেত্রে সেটি করলেও সেই সিস্টেম থেকে নিজেদের ই-আধার কার্ডের সমস্ত ডকুমেন্ট এবং কপি ডিলিট করে দেওয়া প্রয়োজন।

৩. আধার কার্ড লক করে রাখার উপায় -

নিজেদের আধার কার্ডের তথ্য সুরক্ষিত রাখার জন্য অনলাইনে সেটি লক করে রাখা যায়। UIDAI এর মাধ্যমে সেটি লক এবং আনলক করা সম্ভব। এই ক্ষেত্রে খুলতে হবে এমআধার (mAadhaar) অ্যাপ এবং ক্লিক করতে হবে এই লিঙ্কে - https://resident.uidai.gov.in/aadhaar-lockunlock

৪. প্রতিদিন নিজেদের আধার অথেন্টিকেশন চেক করা প্রয়োজন -

নিজেদের আধার কার্ডের অথেন্টিকেশন প্রতিদিন চেক করা প্রয়োজন। কারণ এর মাধ্যমে জানা সম্ভব নিজেদের আধার কার্ড কোথায় কোথায় ব্যবহার করা হয়েছে। একসঙ্গে শেষ ৬ মাসের ৫০টি অথেন্টিকেশন দেখা যাবে। এক্ষেত্রে যদি অন্য কিছু দেখা যায় তাহলে সঙ্গে সঙ্গে রিপোর্ট জানাতে হবে ১৯৪৭ নম্বরে অথবা help@uidai.gov.in অ্যাড্রেসে।

৫. এম-আধার অ্যাপে পাসওয়ার্ড সেট করা প্রয়োজন -

পাসওয়ার্ড দিয়ে রাখা সবসময়ই খুব গুরুত্বপূর্ণ। এর মাধ্যমে সুরক্ষিত রাখা সম্ভব নিজেদের তথ্য। এর ফলে এম-আধার অ্যাপে ৪ ডিজিট পাসওয়ার্ড দিয়ে রাখা প্রয়োজন।

আরও পড়ুন- সিক্রেট মেল? সুবিধা দিচ্ছে Gmail; দেখে নিন শুধু এক নজরে

৬. ভিআইডি অথবা মাস্কড আধার ব্যবহার করা প্রয়োজন -

সবার কাছে নিজেদের আধার নম্বর না জানাতে চাইলে ব্যবহার করা যেতে পারে এই ভিআইডি অথবা মাস্কড আধার। এর ফলে সুরক্ষিত থাকবে নিজেদের আধার কার্ডের তথ্য। এটি ডাউনলোড করা যাবে এই লিঙ্ক থেকে - https://myaadhaar.uidai.gov.in/genricDownloadAadhaar

৭. নিজেদের আধার কার্ড ভেরিফাই করা প্রয়োজন -

আধার কার্ড অনলাইনে এবং অফলাইনে ভেরিফাই করা সম্ভব। অফলাইনে আধার কার্ড ভেরিফাই করতে হবে কিউআর কোড স্ক্যান করে। এবং অনলাইনে আধার কার্ডের ১২টি ডিজিট এন্টার করে। সেটি এন্টার করতে হবে এই লিঙ্কে - https://myaadhaar.uidai.gov.in/verifyAadhaar

৮. আধারের সঙ্গে আপডেটেড মোবাইল নম্বর যুক্ত করা প্রয়োজন -

সবসময় নিজেদের আপডেটেড মোবাইল নম্বর আধার কার্ডের সঙ্গে যুক্ত করা প্রয়োজন। পুরনো মোবাইল নম্বর এবং ইমেল আইডি আধার কার্ডের সঙ্গে যুক্ত করা থাকলে সেটি আপডেট করা প্রয়োজন। এটি করা যাবে UIDAI-এর ওয়েবসাইট থেকে।

৯. নিজেদের আধার ওটিপি কখনও শেয়ার করা উচিত নয় -

এটি খুবই গুরুত্বপূর্ণ একটি বিষয়। কখনও অন্য কারও সঙ্গে নিজেদের আধার ওটিপি শেয়ার করা উচিত নয়। UIDAI-এর তরফে কখনও সেটি জানতে চাওয়া হয় না। সুতরাং এই বিষয়ে সাবধান হওয়া প্রয়োজন।

Published by:Suman Majumder
First published:

Tags: AADHAR, Aadhar Card

পরবর্তী খবর