হোম /খবর /খেলা /
সুস্থ প্রতিযোগিতা মাথা ব্যাথা বাড়ালে আনন্দিত হব, বলছেন রাহুল দ্রাবিড়

Rahul Dravid on IND vs NZ : দলে সুস্থ প্রতিযোগিতা মাথা ব্যাথা বাড়ালে আনন্দিত হব, বলছেন রাহুল দ্রাবিড়

সিরিজ জয়ের পর বিরাট কোহলির সঙ্গে রাহুল দ্রাবিড়

সিরিজ জয়ের পর বিরাট কোহলির সঙ্গে রাহুল দ্রাবিড়

IND vs NZ Mumbai Test Rahul Dravid reaction after series win. তরুণ ক্রিকেটারদের খিদে ভরসা দিচ্ছে দ্রাবিড়কে। তিনি বলেন আশা করি আমাদের আরও মাথাব্যথা থাকবে, যতক্ষণ না আমাদের স্পষ্ট যোগাযোগ থাকবে এবং আমরা খেলোয়াড়দের ব্যাখ্যা করব কেন, এটিকে সমস্যা হিসেবে দেখবেন না।

আরও পড়ুন...
  • Last Updated :
  • Share this:

#মুম্বই: ক্রিকেট জীবনে যেমন কঠিন পরিস্থিতি ঠান্ডা মাথায় সামাল দিতেন, তেমনই কোচ হিসেবেও তিনি একই রকম ঠান্ডা। লক্ষ্যের প্রতি অবিচল। কিন্তু আবেগ বাইরে বের করেন না। ড্রেসিংরুমে যাতে ক্রিকেটাররা অযথা টেনশনে না ভোগেন, সেদিকে কড়া নজর রাহুল দ্রাবিড়ের ( Rahul Dravid team India coach)। টি টোয়েন্টি সিরিজে ৩-০ জয়ের পরেও নির্বিকার ছিলেন। টেস্ট সিরিজ জয়ের পরেও আনন্দে ভাসতে নারাজ। যেন কিছুই হয়নি।

আরও পড়ুন -Subhman and Sara-র প্রেম কি জমে ক্ষীর, মাঠে বাউন্ডারি মারলেন শুভমান আর গ্যালারি চেঁচাল সচিন-সচিন, ভাইরাল ভিডিও

ওয়াংখেড়ে স্টেডিয়ামে ভারতের সবচেয়ে বড় ব্যবধানে (৩৭২ রান) টেস্ট জয়ের পর রাহুল দ্রাবিড় যা বললেন তুলে ধরা হল। আমি মনে করি বিজয়ী হিসাবে সিরিজ শেষ করা ভাল ব্যাপার। কৃতিত্বের ব্যাপার। কানপুরে কাছাকাছি এসেও সেই শেষ উইকেটটি পেতে পারিনি। ফলে ড্র হয়েছিল। এখানে কঠোর পরিশ্রম করতে হয়েছিল। এই ফলাফলটি একতরফা বলে মনে হচ্ছে, তবে সিরিজের মাধ্যমে আমাদের কঠোর পরিশ্রম করা হয়েছিল। এমন কিছু পর্যায় হয়েছে যেখানে আমরা পিছিয়ে ছিলাম এবং লড়াই করতে হয়েছিল, দলকে কৃতিত্ব দিতে হবেই।

ছেলেদের ধাপে ধাপে তাদের সুযোগ গ্রহণ করতে দেখে দারুণ লাগছে। হ্যাঁ, আমরা কয়েকজন সিনিয়র খেলোয়াড়কে মিস করছিলাম। যারা এসেছিল তাদের কৃতিত্ব আছে অবশ্যই। জয়ন্ত যাদবের ( Jayant Yadav)গতকাল একটি কঠিন দিন ছিল, কিন্তু আজ এটি থেকে শিখেছে। ময়াঙ্ক, শ্রেয়স, সিরাজ যারা খুব একটা সুযোগ পায় না, তাদের প্রমাণ করার ছিল। অক্ষর ( Axar Patel) ব্যাট ছাড়াও বল হাতে কী করতে পারে তার উন্নতি দেখে দারুণ লাগছে।

আরও পড়ুন - Ind vs NZ: Virat Kohli Record: লা জবাব ক্যাপ্টেন কোহলি, তিন ফর্ম্যাটেই ৫০ টি করে জয়, পিছনে ফেললেন ধোনি-পন্টিংকে

এটি আমাদের অনেকগুলি বিকল্পও দেয়, আমাদের একটি শক্তিশালী দিক হতে সাহায্য করে। আমরা জানতাম আমাদের হাতে অনেক সময় আছে, কাজেই ফলো অনের কথা বেশি ভাবিনি। এছাড়াও অনেক তরুণ ব্যাটসম্যান দলে আছে, তাই তাদের এই ধরনের পরিস্থিতিতে ব্যাট করার সুযোগ দিতে চেয়েছিলাম। জানতাম আমরা ভবিষ্যতে এমন পরিস্থিতিতে পড়তে পারি যেখানে আমাদের কঠিন পরিস্থিতিতে গতি বাড়াতে হতে পারে।

তাই এটি করতে সক্ষম হওয়া একটি দুর্দান্ত সুযোগ এবং সময়ের বিলাসিতা ছিল। আমাদের খেলোয়াড়দের বিকাশে সাহায্য করার জন্য দুর্দান্ত ছিল। এটা একটা ভাল পরিস্থিতি, আমাদের ইনজুরি হয়েছে, তাই আমাদের খেলোয়াড়দের শারীরিক ও মানসিকভাবে ম্যানেজ করতে হবে। এটা আমার চ্যালেঞ্জের একটা বড় অংশ হতে চলেছে। নির্বাচক এবং নেতৃত্ব গোষ্ঠীর জন্যও চ্যালেঞ্জ (healthy competition in team India)। এটা একটা ভাল [নির্বাচন] মাথাব্যথা, অল্পবয়সী ছেলেদের ভাল পারফরমেন্স দেখুন।

ভাল করার একটা বড় ইচ্ছা আছে এবং সবাই একে অপরকে চাপ দিচ্ছে (everyone pushing each other says Rahul Dravid)। আমি আশা করি আমাদের আরও মাথাব্যথা থাকবে, যতক্ষণ না আমাদের স্পষ্ট যোগাযোগ থাকবে এবং আমরা খেলোয়াড়দের ব্যাখ্যা করব কেন, এটিকে সমস্যা হিসেবে দেখবেন না। ভবিষ্যতে দলের স্বার্থে এবং দেশের স্বার্থে কড়া সিদ্ধান্ত নিতে সুবিধা হবে।

তবে রাহুল দ্রাবিড় মনে করেন একটা দল হয়ে ওঠার পেছনে ক্রিকেটার, কোচিং স্টাফ, নির্বাচক এবং দেশের কোটি কোটি মানুষের অবদান আছে। আপাতত কিউইদের হারানোর পর আফ্রিকা মহাদেশের তেরঙ্গা ওড়াতে পারে কিনা টিম ইন্ডিয়া, সেটাই দেখার।

নতুন বোলিং কোচ পরশ মামরে এবং ফিল্ডিং কোচ টি দিলীপ নির্দিষ্ট পরিকল্পনা তৈরি করেন। দ্রাবিড়ের কাজ তার বুদ্ধি কাজে লাগিয়ে বোলারদের বিভিন্ন পরিস্থিতি অনুযায়ী তৈরি করা। দক্ষিণ আফ্রিকা সফরে শামি, বুমরাহ ফিরছেন। তাই ভারতীয় বোলিং লাইন আপ আরো শক্তিশালী হবে বলাই যায়।

Published by:Rohan Chowdhury
First published:

Tags: IND vs NZ, Rahul Dravid