Home /News /south-bengal /
Sunderban Tiger Panic: মিলল পায়ের ছাপ, কুলতলির পর এবার গোসাবায় ঢুকল বাঘ?

Sunderban Tiger Panic: মিলল পায়ের ছাপ, কুলতলির পর এবার গোসাবায় ঢুকল বাঘ?

প্রসঙ্গত, কয়েকদিন আগেই শুরু হয় সুন্দরবনে বাঘ গণনার কাজ। দেরিতে হলেও শুরু হলেও বাঘ সুমারির জন্য দক্ষিণ চব্বিশ পরগনা জেলায় বন বিভাগের জঙ্গলে ক্যামেরা বসানো হয়। বাঘ গণনার জন্য নির্ধারিত সময়ের মধ্যে সুন্দরবনের জঙ্গলে ক্যামেরা বসানোর কথা থাকলেও, সেই কাজ বাধা পেয়েছে বেশ কয়েক মাস ধরে। ঘন ঘন লোকালয়ে ঢুকেছে বাঘ। আর সেই বাঘ বন্দি করতে রীতিমতো নাকাল হতে হয়েছে বন কর্মীদের। যে কারণে ঘুম ছুটেছে বন কর্তাদেরও।

প্রসঙ্গত, কয়েকদিন আগেই শুরু হয় সুন্দরবনে বাঘ গণনার কাজ। দেরিতে হলেও শুরু হলেও বাঘ সুমারির জন্য দক্ষিণ চব্বিশ পরগনা জেলায় বন বিভাগের জঙ্গলে ক্যামেরা বসানো হয়। বাঘ গণনার জন্য নির্ধারিত সময়ের মধ্যে সুন্দরবনের জঙ্গলে ক্যামেরা বসানোর কথা থাকলেও, সেই কাজ বাধা পেয়েছে বেশ কয়েক মাস ধরে। ঘন ঘন লোকালয়ে ঢুকেছে বাঘ। আর সেই বাঘ বন্দি করতে রীতিমতো নাকাল হতে হয়েছে বন কর্মীদের। যে কারণে ঘুম ছুটেছে বন কর্তাদেরও।

চরঘেরি গ্রামের স্থানীয় বাসিন্দাদের দাবি, বৃহস্পতিবার রাতেই গ্রাম লাগোয়া ম্যানগ্রোভের জঙ্গলে বাঘ ঢুকেছে (Tiger Panic in Sunderban)৷

  • Share this:

#গোসাবা: মৈপীঠ, কুলতলীর পর এবার গোসাবা৷ ফের সুন্দরবন (Sunderban) লাগোয়া লোকালয়ে বাঘের আতঙ্ক (Royal Bengal Tiger)৷ সুন্দরবন কোস্টাল থানার লাহিড়ীপুর গ্রাম পঞ্চায়েতের চরঘেরি গ্রামে একটি বাঘ ঢুকে পড়েছে বলে বৃহস্পতিবার রাত থেকে আতঙ্ক ছড়িয়েছে৷ এলাকায় বাঘের পায়ের ছাপও দেখা গিয়েছে৷

চরঘেরি গ্রামের স্থানীয় বাসিন্দাদের দাবি, বৃহস্পতিবার রাতেই গ্রাম লাগোয়া ম্যানগ্রোভের জঙ্গলে বাঘ ঢুকেছে৷ খবর পেয়ে আজ সকালেই ঘটনাস্থলে পৌঁছন বন দফতরের কর্মীরা৷ এলাকায় পৌঁছে তাঁরা বাঘের পায়ের ছাপও দেখতে পেয়েছেন বলে খবর৷

আরও পড়ুন: সুন্দরবনে পর্যটকদের লঞ্চের একেবারে কাছে চলে এল রয়্যাল বেঙ্গল টাইগার, দেখুন রোমহর্ষক ভিডিও

বাঘের পায়ের ছাপ দেখে আর ঝুঁকি নেননি বন কর্মীরা৷ বাঘটি যাতে গ্রামের ভিতরে ঢুকতে না পারে, সেই জন্য ম্যানগ্রোভের জঙ্গলের ওই অংশ নাইলনের জাল দিয়ে ঘিরে ফেলা হচ্ছে৷ সুন্দরবন কোস্টাল থানার পুলিশও ঘটনাস্থলে পৌঁছেছে৷ বাঘের ভয় এলাকায় তীব্র আতঙ্ক ছড়িয়েছে৷

আরও পড়ুন: ৬ দিনের 'অগ্নিপরীক্ষা'য় সাফল্য, বাঘ ধরার পুরস্কার ঘোষণা মুখ্যমন্ত্রীর

দিন কয়েক আগেই বাঘের আতঙ্ক ছড়িয়েছিল কুলতলীতে৷ ছ' দিনের ধরে অনেক কাঠখড় পোড়ানোর পর ঘুমপাড়ানি গুলি ছুড়ে বাঘটিকে ধরে বন দফতর৷ তার পর এক সপ্তাহ কাটতে কাটতেই ফের লোকালয়ে বাঘ ঢুকে পড়ার আতঙ্ক৷ কুলতলীর আগে দক্ষিণ চব্বিশ পরগণার মৈপীঠেও লোকালয় থেকে ধরা পড়েছিল বাঘ৷ এই নিয়ে গত একমাসে তিন বার সুন্দরবন সংলগ্ন লোকালয়ে বাঘ ঢুকে পড়ার ঘটনা নয়৷

বাঘ বিশেষজ্ঞ জয়দীপ কুণ্ডু বলেন, 'সুন্দরবনের গ্রামে বাঘ ঢুকে পড়ার ঘটনা অস্বাভাবিক বা নতুন কিছু নয়৷ বাঘের লোকালয়ে ঢোকা বন্ধ করতে জঙ্গল এবং গ্রামের সংযোগস্থলে বন দফতরের তরফে নাইলনের নেট লাগানো হয়েছে৷ নিয়মিত নেটের জাল পরীক্ষা করা হয়, প্রয়োজনে মেরামত করা হয়৷ সেই কারণে লোকালয়ে বাঘ ঢোকার প্রবণতা অনেক কমেছে৷ তার পরেও বাঘ গ্রামে ঢুকে পড়ে৷ তবে তা মানুষের ক্ষতির উদ্দেশে নয়৷ কারণ গভীর জঙ্গল বা গ্রাম লাগোয়া জঙ্গলের চেহারা অনেকটা একই রকমের হয়৷ তাই বাঘ অনেক সময়য় বিভ্রান্ত হয়ে যায়৷ পাশাপাশি, সহজে গরু, ছাগলের মতো শিকার পাওয়ার লোভেও বাঘ গ্রামে ঢোকে৷'

Anup Biswas

Published by:Debamoy Ghosh
First published:

Tags: Royal Bengal Tiger, Sunderban