Home /News /south-bengal /
Bangla News: চাইলেই যে কোনও সার্টিফিকেট হাতে হাতে, মেমারিতে মারাত্মক কাণ্ড! যা ঘটল...

Bangla News: চাইলেই যে কোনও সার্টিফিকেট হাতে হাতে, মেমারিতে মারাত্মক কাণ্ড! যা ঘটল...

মেমারিতে মারাত্মক ঘটনা

মেমারিতে মারাত্মক ঘটনা

Bangla News: জাল সার্টিফিকেট তৈরির অভিযোগে পূর্ব বর্ধমানের মেমারি থেকে এক ব্যক্তিকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

  • Share this:

#মেমারি: টাকা দিলেই আধার, ভোটার কিংবা প্যান কার্ড মিলছিল হাতে হাতে। তিন চার হাজার টাকায় এক একটি সার্টিফিকেট। যে কোনও সরকারি হাসপাতাল, স্কুলের সংশাপত্র, বার্থ বা ডেথ সার্টিফিকেট- মিলছিল তাও। কিন্তু সবই জাল। এমনই উন্নত প্রযুক্তিতে তৈরি যে তা বিশেষজ্ঞ ছাড়া ধরা মুসকিল। সেই জাল সার্টিফিকেট জমা দিয়েই ইতিমধ্যেই কাজ মিটিয়েছেন অনেকেই।

জাল সার্টিফিকেট তৈরির অভিযোগে পূর্ব বর্ধমানের মেমারি থেকে এক ব্যক্তিকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। প্রতারণার অভিযোগে মেমারির পারিজাতনগর এলাকা থেকে ওই ব্যক্তিকে গ্রেফতার করা হয়েছে। ধৃতের নাম বিপ্লব সরকার।

তার কাছ থেকে ১৬ টি স্ট্যাম্প, প্রচুর জাল বার্থ ও ডেথ সার্টিফিকেট, বিভিন্ন বিধায়কের প্যাড, বিভিন্ন সরকারি হাসপাতালের প্যাড মিলেছে।মোটা টাকার বিনিময়ে এই বিপ্লব সরকার জাল আধার ভোটার কার্ড, সার্টিফিকেট তৈরি করে দিত বলে অভিযোগ।এক একটি কার্ড তৈরির জন্য চার হাজার থেকে দশ হাজার টাকা পর্যন্ত নেওয়া হতো। পাসপোর্ট তৈরির জন্য পঞ্চাশ হাজার টাকা পর্যন্ত নেওয়া হতো। দীর্ঘদিন ধরে এই কারবার চলছিল।

আরও পড়ুন: গণবিবাহের আসরে মুখ্যমন্ত্রী, ধরা দিলেন একেবারে অন্য মেজাজে! দেখুন সেই চমকপ্রদ ছবি...

পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, পাসপোর্ট তৈরি করে দেওয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়ে অতনু মন্ডল নামে এক ব্যক্তির কাছ থেকে এক লক্ষ কুড়ি হাজার টাকা নিয়েছিল সে। এছাড়াও আধার ও প্যান কার্ড সংশোধন করে দেওয়ার কথা ছিল।

আট মাস পর বার বার তাগাদা করা সত্ত্বেও পাসপোর্ট মেলেনি।  উল্টে জাল প্যান কার্ড দেওয়া হয় তাঁকে। এরপর অতনু মন্ডল মেমারি থানার দ্বারস্থ হন। অতনু মন্ডলের অভিযোগের ভিত্তিতে মেমারি থানার পুলিশ বিপ্লবের বাড়িতে অভিযান চালায়।

আরও পড়ুন: দিলীপ ঘোষের কাছে এল ফোন, তাতেই তুমুল আলোড়ন! ফের ক্ষমতা বৃদ্ধির ইঙ্গিত?

সেখানেই প্রচুর জাল সিল, স্ট্যাম্প, বর্ধমান মেডিকেল, এন আর এস সহ বিভিন্ন সরকারি হাসপাতালের প্যাড, জাল জন্ম মৃত্যু সার্টিফিকেট, ফিঙ্গার প্রিন্ট স্ক্যানার, ল্যাপটপ বাজেয়াপ্ত করেছে পুলিশ। তদন্তকারী পুলিশ অফিসাররা জানিয়েছেন, ধৃতকে নিজেদের হেফাজতে নিয়ে আরও বিস্তারিত জিজ্ঞাসাবাদ করা হবে। এই চক্রের সঙ্গে আর কারা কারা জড়িত তা জানার চেষ্টা চলছে।

Published by:Suman Biswas
First published:

Tags: Memari, West Bengal news

পরবর্তী খবর