Home /News /south-bengal /
Purulia Leopard: পলাশ-লাল পুরুলিয়ার জঙ্গলে চিতাবাঘ! ধরা পড়ল বন দফতরের ক্যামেরার ছবিতে

Purulia Leopard: পলাশ-লাল পুরুলিয়ার জঙ্গলে চিতাবাঘ! ধরা পড়ল বন দফতরের ক্যামেরার ছবিতে

২৪ ঘণ্টার নজরদারিতে ধরা পড়ে চিতাবাঘের ছবি

২৪ ঘণ্টার নজরদারিতে ধরা পড়ে চিতাবাঘের ছবি

Purulia Leopard: স্থানীয় কোটশিলার অরণ্যাঞ্চলে সিমনি বিটের জঙ্গলে চিতাবাঘের অস্তিত্ব ধরা পড়েছে বন দফতরের ট্র্যাপ ক্যামেরায়

  • Share this:

    সিমনি : ভরা বসন্তে পুরুলিয়া এখন সেজেছে অশোক, শিমুল, পলাশ ও রুদ্রপলাশে৷ অপরূপ প্রকৃতির মাঝেই রাঢ় বঙ্গের এই জেলায় বন্যের পদচারণা৷ স্থানীয় কোটশিলার অরণ্যাঞ্চলে সিমনি বিটের জঙ্গলে চিতাবাঘের অস্তিত্ব ধরা পড়েছে বন দফতরের ট্র্যাপ ক্যামেরায়৷ বন দফতর সূ্ত্রে জানা গিয়েছে, এই বনে গত ২২ ফেব্রুয়ারি ট্র্যাপ ক্যামেরা বসান বনকর্মীরা৷ সেখানেই ২৪ ঘণ্টার নজরদারিতে ধরা পড়ে চিতাবাঘের ছবি৷(Leopard found at Purulia)

    পুরুলিয়ার জঙ্গলে শ্বাপদ চিতাবাঘের অস্তিত্ব ধরা পড়ার পর বন লাগোয়া গ্রামের বাসিন্দাদের সতর্ক করেছে বন দফতর৷ জঙ্গলে যাতে কেউ কাঠ সংগ্রহ করতে না যান, সে বিষয়েও সতর্ক করা হয়েছে৷ তবে চিতাবাঘের অস্তিত্বে খুশি বন দফতরের কর্মীরা৷ অযোধ্যা, মাঠা-সহ বিভিন্ন অরণ্যাঞ্চলে আরও ক্যামেরা লাগানো হবে বলে বন দফতর সূত্রে জানানো হয়েছে৷ দক্ষিণবঙ্গের বনাঞ্চলে বন্যপ্রাণের সংখ্যা বৃদ্ধি পাওয়া পরিবেশপ্রেমীদের কাছে খুশির খবর, তাতে সন্দেহ নেই৷ কোটশিলার জঙ্গলে চিতাবাঘটির গতিবিধির উপর নজর রাখছেন বনকর্মীরা৷

    আরও পড়ুন : আসছে ফাগের দিন, গোলাপের পাপড়ি, গাঁদাফুল, বিট থেকে ভেষজ আবির তৈরি হচ্ছে গৃহবধূদের হাতে

    অবশ্য পুরুলিয়ায় চিতাবাঘের খবর নতুন নয়৷ এর আগে কোটশিলারই টাটুয়াড়া গ্রামে ঢুকে পড়েছিল একটি চিতাবাঘ৷ অভিযোগ, সেটির হানায় কয়েক জন গ্রামবাসী আহত হন৷ গ্রামের এক পরিত্যক্ত শৌচাগারে ঢুকে পড়লে দরজা বন্ধ করে গ্রামবাসীরা চিতাবাঘটিকে বন্দি করে৷ তার পর পাথর ছুড়ে প্রথমে চতুষ্পদটিকে আহত করে৷ তার পর বাঁশ দিয়ে পিটিয়ে মেরে ফেলে৷ পরে গ্রামের কেন্দ্রে নিমগাছে চিতাবাঘের প্রাণহীন দেহ ঝুলিয়ে রাখা হয়৷ এই ঘটনার সমালোচনায় সোচ্চার হন পরিবেশবিদ ও পশুপ্রেমীরা৷ সেই ঘটনার পুনরাবৃত্তি যাতে না হয়, সে দিকে এ বার প্রথম থেকেই নজর রাখা হচ্ছে৷

    আরও পড়ুন : জলে কুমির, ডাঙায় বন্য শূকর, সাধারণ মানুষের প্রাণ বাঁচাতে সতর্কতামূলক প্রচার বন দফতরের

    আরও পড়ুন : ভরা ফাল্গুনে মুসুরী মায়ের পুজো ঘিরে উৎসবের মেজাজে বর্ধমানের আমড়া গ্রামের বাসিন্দারা

    ৭ বছর আগে ঝাড়খণ্ডের দলমা রেঞ্জ থেকেই চিতাবাঘটি পুরুলিয়ার গ্রামে ঢুকে পড়ে বলে মনে করা হয়েছিল৷ এ বারও সেখান থেকেই চিতাবাঘটি এসেছে বলে বনকর্মী ও গ্রামবাসীদের ধারণা৷ দোলপূর্ণিমার আগে পুরুলিয়ায় চিতাবাঘের অস্তিত্বের খবরে রোমাঞ্চিত পর্যটকরাও৷

    ( প্রতিবেদন  : ইন্দ্রজিৎ রুজ)

    Published by:Arpita Roy Chowdhury
    First published:

    Tags: Leopard, Purulia

    পরবর্তী খবর