• Home
  • »
  • News
  • »
  • south-bengal
  • »
  • WB Woman gangraped| বনগাঁয় জন্মদিনের পার্টিতে ডেকে নিয়ে গিয়ে যুবতীকে গণধৰ্ষণ! ধৃত অভিযুক্ত

WB Woman gangraped| বনগাঁয় জন্মদিনের পার্টিতে ডেকে নিয়ে গিয়ে যুবতীকে গণধৰ্ষণ! ধৃত অভিযুক্ত

প্রতীকী চিত্র

প্রতীকী চিত্র

WB Woman gangraped| দীর্ঘক্ষণ বাড়িতে না ফেরায় পরিবারের লোক তাঁকে খোঁজাখুঁজি শুরু করে। পরে ওই আমবাগানে তাঁকে সংজ্ঞাহীন অবস্থায় খুঁজে পায় তাঁরা

  • Share this:

    #বনগাঁ: জন্মদিনের পার্টিতে ডেকে নিয়ে যুবতীকে মদ খাইয়ে গণধর্ষণের (WB Woman gangraped) অভিযোগ উঠল তিন যুবকের বিরুদ্ধে। অভিযোগ বাড়ির সামনে থেকে স্থানীয় আমবাগানে তুলে নিয়ে গিয়ে  অচৈতন্য আহত যুবতীকে ধর্ষণ করে এই তিন যুবক।

    দীর্ঘক্ষণ বাড়িতে না ফেরায় পরিবারের লোক তাঁকে খোঁজাখুঁজি শুরু করে। পরে ওই আমবাগানে তাঁকে সংজ্ঞাহীন অবস্থায় খুঁজে পায় তাঁরা। তড়িঘড়ি তাঁকে উদ্ধার করে বনগাঁ মহকুমা হাসপাতালে ভর্তি করে তাঁর পরিজনেরা। মঙ্গলবার রাতে ঘটনাটি ঘটেছে বনগাঁ থানার ভরতপুর কালিতলা এলাকায়। পুলিশ এক অভিযুক্তকে গ্রেফতার করে। বাকি দু'জনের সন্ধান শুরু করেছে।

    পুলিশ ও পরিবারের লোকেরা জানিয়েছেন, আক্রান্ত যুবতীর বাড়ি ও মামার বাড়ি ভরতপুর এলাকায়। তিনি পেশায় বিউটিশিয়ান।তার বাবা প্রদীপ বিশ্বাস ভিন রাজ্যে কাজ করে৷ মাও। ওই যুবতী গোবরাপুর এলাকায় বর্তমানে ভাড়া থাকেন।

    আরও পড়ুন-চালকের জায়গায় অন্য কেউ! দেগঙ্গায় একে একে দশজনকে ধাক্কা বোলেরোর! তারপর...

    লক্ষ্মীপূজার মেলা উপলক্ষে ওই যুবতী মামার বাড়ি বেড়াতে গিয়েছিল। মঙ্গলবার রাতে ভরতপুরের এক যুবক সুদীপ বিশ্বাসের জন্মদিনের পার্টিতে কয়েকজন বন্ধু বান্ধবীদের সঙ্গে গিয়েছিল সে । সেই পার্টিতে ৩ অভিযুক্ত শোভন রায় ,দেবব্রত রায়( ছোট্টু ) ও সুজিত বিশ্বাসও ছিল।

    অভিযোগ সেই পার্টিতে মদ খাওয়ানো হয় যুবতীকে। পরে তাকে বাড়ির সামনে রেখে যায় সুদীপ। অভিযোগ এরপর এই বাড়ির সামনে আসে তিন অভিযুক্ত। তাকে তুলে নিয়ে স্থানীয় আমবাগানের মধ্যে একটি ঘরের মধ্যে লাগাতার ধর্ষণ করে৷

    যুবতীকে খুঁজে না পেয়ে রাতে বাড়ির লোকজন বিভিন্ন জায়গায় খোঁজাখুঁজি শুরু করে৷ আম বাগানের মধ্যে একটি কলাপাতার ঘরের মধ্যে থেকে তাকে নগ্ন অবস্থায় উদ্ধার করে। রাতেই ভরতপুর এলাকা থেকে পুলিশ এক যুবককে গ্রেফতার করে ৷ বাকিরা পালিয়ে যায়। ওই যুবতী বর্তমানে বনগাঁ মহাকুমা হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। পরিবারের অভিযোগ তাকে নেশার দ্রব্য খাইয়ে গণধর্ষণ করা হয়েছে তাকে।

    Published by:Arka Deb
    First published: