Home /News /purba-bardhaman /
Purba Bardhaman: ভূমি দপ্তরের পাশাপাশি ব্লক, মহকুমা, জেলা সদর দপ্তরে চালু হল হেল্প ডেস্ক

Purba Bardhaman: ভূমি দপ্তরের পাশাপাশি ব্লক, মহকুমা, জেলা সদর দপ্তরে চালু হল হেল্প ডেস্ক

title=

ভূমি দপ্তরে দালাল রাজ বন্ধ করতে এবং সাধারণ মানুষের হয়রানি কমাতে চালু হল হেল্প ডেস্ক। এবার পূর্ব বর্ধমানের সমস্ত ভূমি দপ্তরের ব্লক, মহকুমা এবং জেলা সদর দপ্তরে চালু করা হল এই হেল্প ডেস্ক।

  • Share this:

    পূর্ব বর্ধমান: ভূমি দপ্তরে দালাল রাজ বন্ধ করতে এবং সাধারণ মানুষের হয়রানি কমাতে চালু হল হেল্প ডেস্ক। এবার পূর্ব বর্ধমানের সমস্ত ভূমি দপ্তরের ব্লক, মহকুমা এবং জেলা সদর দপ্তরে চালু করা হল এই হেল্প ডেস্ক। বর্ধমানের রাজবাটিতে জেলা ভূমি দপ্তরে এই হেল্প ডেস্কের উদ্বোধন করলেন জেলাশাসক প্রিয়াংকা সিংলা। এদিন জেলাশাসকের সঙ্গে ছিলেন ভূমি ও ভূমি রাজস্ব আধিকারিক তথা অতিরিক্ত জেলাশাসক ইউনিস রিসিন ইসমাইল সহ অনান্য আধিকারিকরা। প্রসঙ্গত ভূমি দপ্তরে আসা সাধারণ মানুষকে সহায়তা দিতেই এই হেল্প ডেস্ক চালু করা হয়েছে। গোটা জেলা জুড়েই সমস্ত বিএলআরও অফিসেও চালু হচ্ছে এই হেল্প ডেস্ক। সাধারণ মানুষ তাঁদের জায়গা জমি সংক্রান্ত বিষয়ে জানতে পারবেন এই হেল্প ডেস্ক থেকে। এর ফলে তাঁদের হয়রানি কমবে বলে জানান প্রিয়াংঙ্কা সিংলা। একইসঙ্গে এর ফলে বহিরাগতদের খপ্পরে তাঁদের পড়তে হবে না বলে তিনি আশা প্রকাশ করেন। সম্প্রতি পুরুলিয়ায় প্রশাসনিক বৈঠক করতে গিয়ে সেখানকার হুড়া ও বলরামপুর ব্লকের ভূমি ও ভূমি সংস্কার দপ্তরের দুর্নীতি নিয়ে রীতিমত সরব হয়েছিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দোপাধ্যায়। আর তারপর থেকেই রাজ্যের সবকটি জেলা প্রশাসন কার্যত নড়েচড়ে বসে। আর সেই ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতে এবার পূর্ব বর্ধমান জেলার ভূমি ও ভূমি রাজস্ব দপ্তর জনস্বার্থে হেল্প ডেস্ক চালু করল বলে মনে করছেন ওয়াকিবহাল মহল।

    জেলাশাসক প্রিয়াংকা সিংলা বলেন, এখন থেকে সাধারণ মানুষকে আর হয়রানির শিকার হতে হবে না। খুব সহজেই মিলবে জমিজমা সংক্রান্ত সমস্ত রকমের সমস্যা সমাধানের উপায়। জমিজমা সংক্রান্ত যে কোনো বিষয় সম্পর্কে জানতে পারবেন এই হেল্প ডেস্ক থেকে। এরপর থেকে জেলার কোথাও বহিরাগতদের বা দালালদের খপ্পরে কাউকেই পড়তে হবেনা। কারোর কোনও সমস্যা থাকলে সরাসরি তাঁরা আমার সঙ্গেও যোগাযোগ করতে পারেন।’

    আরও পড়ুনঃ ইংরেজি মিডিয়াম পরিচালিত বেসরকারি স্কুল উদ্বোধন কাটোয়ায়

    দপ্তর সূত্রে জানা গেছে, হেল্প ডেস্কে কোন কাজের জন্য কতদিন সময় লাগবে, কোন কাগজ কোথায় পাওয়া যাবে তার বিস্তারিত বিবরণ দিয়ে লাগানো হয়েছে ফ্লেক্স।বিএলআরও দপ্তর গুলির সঙ্গেও সরাসরি সমন্বয় থাকবে হেল্প ডেস্কের কর্মীদের। জমিজমা সংক্রান্ত যাবতীয় সমস্যার সমাধানের উপায় ও প্রয়োজন মতো ফর্ম একেবারে বিনামূল্যে দেওয়া হবে।

    আরও পড়ুনঃ 'বিজ্ঞাপণ মুক্ত'-র পর শুরু হল কার্জন গেট চত্বর সৌন্দর্যায়নের কাজ

    এবার থেকে জেলা ভূমি ও ভূমি রাজস্ব দপ্তরে আসা সমস্ত উপভোক্তাদের একটি রেজিস্ট্রারও মেন্টেইন করা হবে। এই রেজিস্টারে কোন উপভোক্তা কি প্রয়োজনে দপ্তরে এসেছেন তা যেমন নথিভুক্ত হবে সেই রকমই তার ফোন নম্বরও নথিভুক্ত করা হবে। যাতে পরবর্তী সময়ে কোন সমস্যায় তার সঙ্গে যোগাযোগ করতে পারে দপ্তরের আধিকারিকরা।

    Malobika Biswas
    First published:

    Tags: Purba bardhaman

    পরবর্তী খবর