Home /News /national /
Uttar Pradesh Assembly Election 2022: ২০১৭-র তুলনায় উত্তরপ্রদেশে এবছর হু হু করে কমল নির্বাচনী হিংসার ঘটনা! দাবি পুলিশের

Uttar Pradesh Assembly Election 2022: ২০১৭-র তুলনায় উত্তরপ্রদেশে এবছর হু হু করে কমল নির্বাচনী হিংসার ঘটনা! দাবি পুলিশের

Uttar Pradesh Poll Violence: পুলিশ জানিয়েছে, ২০১৭ সালের ৯৭ টি হিংসার ঘটনার তুলনায় রাজ্যে এবারের সাত দফার বিধানসভা নির্বাচনের সময় হিংসার মাত্র ৩৩ টি ঘটনা ঘটেছে।

  • Share this:

    #উত্তরপ্রদেশ: ২০১৭ সালে অনুষ্ঠিত নির্বাচনের (UP Assembly Poll 2017) তুলনায় উত্তরপ্রদেশে সদ্য সমাপ্ত বিধানসভা নির্বাচনে (Uttar Pradesh Assembly Election 2022) কম হিংসার ঘটনা ঘটেছে! পুলিশ জানিয়েছে, ২০১৭ সালের ৯৭ টি হিংসার ঘটনার তুলনায় রাজ্যে এবারের সাত দফার বিধানসভা নির্বাচনের (Uttar Pradesh Assembly Election 2022) সময় হিংসার মাত্র ৩৩ টি ঘটনা ঘটেছে। ১০ মার্চ ভোট গণনার (UP Vote Counting)  প্রস্তুতিকালীন এক বিবৃতিতে এমনটাই জানিয়েছে পুলিশ।

    উত্তরপ্রদেশের ৪০৩ টি বিধানসভা কেন্দ্রের জন্য ১০ ফেব্রুয়ারি থেকে ৭ মার্চ অবধি মোট সাত দফায় নির্বাচন (Uttar Pradesh Assembly Election 2022) অনুষ্ঠিত হয়। কেন্দ্রীয় সশস্ত্র পুলিশ বাহিনী (সিএপিএফ) সহ পুলিশ কর্মীদের মাধ্যমে নির্বাচনকে সুরক্ষিত রাখার চেষ্টা করা হয়েছে বলে জানিয়েছে পুলিশ। বৃহস্পতিবার ৭০,০০০ এরও বেশি উত্তরপ্রদেশ পুলিশ এবং CAPF-এর ২৫০ টি কোম্পানি সাত দফার গণনা চলাকালীন নিরাপত্তার দায়িত্ব সামলাবেন বলে পুলিশ এক বিবৃতিতে জানিয়েছে।

    আরও পড়ুন- অন্যরা ভগবানের ভরসায় ছেড়েছে, কেবল ভারতই ইউক্রেন থেকে মানুষকে দেশে ফেরাচ্ছে: যোগী

    “আমরা যদি আগের বিধানসভা নির্বাচনী হিংসার ঘটনার দিকে তাকাই, তাহলে দেখব ২০১৭ সালে, ৯৭ টি নির্বাচনী হিংসার ঘটনা ঘটেছে। এর মধ্যে ৭৫ টি ঘটনা ভোটের আগে এবং ২২ টি ভোটের দিন। তখন কোনও হতাহতের খবর পাওয়া যায়নি”, জানিয়েছে উত্তরপ্রদেশ পুলিশ। ২০২২ সালের বিধানসভা নির্বাচনে (Uttar Pradesh Assembly Election 2022), নির্বাচনী হিংসার মোট ৩৩ টি ঘটনা ঘটেছে। এর মধ্যে ২৮ টি ঘটনা ভোটের আগে ঘটেছিল এবং পাঁচটি ভোটের দিনে ঘটেছিল যাতে কোনও ব্যক্তি গুরুতর আহত হননি বা মারাও যাননি বলেই পুলিশ জানিয়েছে।

    পুলিশ জানিয়েছে, ১০ মার্চ গণনার দিন সমস্ত জেলা এবং কমিশনারেটগুলিতে মোট ২৫০ টি CAPF কোম্পানি সরবরাহ করা হয়েছে। কর্মকর্তাদের মতে, একটি CAPF কোম্পানিতে সাধারণত ৭০-৮০ জন কর্মী থাকেন। এর মধ্যে ৩৬ টি কোম্পানিকে ইভিএম নিরাপত্তার জন্য এবং ২১৪ টি কোম্পানিকে গণনা ও আইনশৃঙ্খলার দায়িত্বে রাখা হয়েছে। CAPF ছাড়াও, PAC-এর ৬১ টি কোম্পানিও সমস্ত জেলায় পাঠানো হয়েছে।

    আরও পড়ুন- যুদ্ধ বিধ্বস্ত ইউক্রেন থেকে পাকিস্তানি ছাত্রীকে নিরাপদে উদ্ধার করল ভারত

    এর পাশাপাশি উত্তরপ্রদেশ পুলিশের ৬২৫ জন গেজেটেড কর্মকর্তা, ১,৮০৭ জন পরিদর্শক, ৯,৫৯৮ জন উপপরিদর্শক, ১১,৬২৭ জন হেড কনস্টেবল এবং ৪৮,৬৪৯ জন কনস্টেবলকেও দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে। নির্বাচন কমিশন উত্তরপ্রদেশে নির্বাচনের (Uttar Pradesh Assembly Election 2022) ঘোষণা করার পর ৮ জানুয়ারি নির্বাচনের জন্য আদর্শ আচরণবিধি কার্যকর করা হয়। নির্বাচনী আচরণবিধি কার্যকর হওয়ার দিন থেকে নির্বাচন সংক্রান্ত বিধি ও আইন লঙ্ঘনের বিষয়ে মোট ১,৩৩৯ টি এফআইআর এবং ৪১২ টি অপরাধের ঘটনা নথিভুক্ত করা হয়েছে বলে পুলিশ জানিয়েছে। এর মধ্যে, লখনউ এলাকাতেই কেবল ২৬১ টি মামলা নথিভুক্ত করা হয়েছে, যা এই রাজ্যে সর্বাধিক।

    Published by:Madhurima Dutta
    First published:

    Tags: Uttar Pradesh Assembly Elections 2022, Uttar Pradesh Election 2022

    পরবর্তী খবর