Home /News /national /
Cow Protection And Research Centre: গরু সংরক্ষণ ও গবেষণা কেন্দ্র, দিল্লির নামজাদা কলেজে খুলল নতুন বিভাগ!

Cow Protection And Research Centre: গরু সংরক্ষণ ও গবেষণা কেন্দ্র, দিল্লির নামজাদা কলেজে খুলল নতুন বিভাগ!

Cow Protection And Research Centre

Cow Protection And Research Centre

প্রতিষ্ঠিত এবং নামজাদা কলেজে গো গবেষণা (Cow Protection And Research Centre) নিয়ে বিভাগ খোলায় আচমকাই হইচই পড়ে গিয়েছে।

  • Share this:

    #নয়াদিল্লি: দিল্লি বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীনে হংসরাজ কলেজেের (Hansraj College) নাম মোটামুটি সকলেরই শোনা। উৎকর্ষতার মাপকাঠিতে ন্যাশনাল ইনস্টটিউশনাল র‍্যাঙ্কিং ফ্রেমওয়ার্ক (NIRF) অর্থাৎ সরকারের জাতীয় সেরা প্রতিষ্ঠানগুলির মধ্যে ১৪ নম্বরে রয়েছে এই কলেজ। এই কলেজের আরও একটি সুপরিচয় হল, এই কলেজ থেকে পড়াশোনা করেছেন শাহরুখ খান, অনুরাগ কাশ্যপ, রণবিজয় এবং কিরেণ রিজিজুর মতো ব্যক্তিত্ব। সেই কলেজেই এ বছর একটি নতুন বিভাগ খোলা হয়েছে, তা হল গরু সংরক্ষণ ও গবেষণা কেন্দ্র (Cow Protection And Research Centre)। প্রতিষ্ঠিত এবং নামজাদা কলেজে গো গবেষণা (Cow Protection And Research Centre) নিয়ে বিভাগ খোলায় আচমকাই হইচই পড়ে গিয়েছে।

    এই নতুন কেন্দ্রের নাম রাখা হয়েছে, 'স্বামী দয়ানন্দ সরস্বতী গো-সম্বর্ধন ও অনুসন্ধান কেন্দ্র' (Cow Protection And Research Centre)। মোদি জমানায় আচমকা কলেজে গো গবেষণা কেন্দ্র খোলা নিয়ে অবশ্য ইতিমধ্যেই সমালোচনা শুরু করেছেন বিরোধীরা। কলেজের সিবিআই(এম) ছাত্রপরিষদের বক্তব্য, কলেজে মেয়েদের হস্টেলের জন্য চিহ্নিত জমিতে খোলা হয়েছে গো গবেষণা কেন্দ্রটি। বহু বছর ধরে মেয়েদের হস্টেল তৈরি হয়নি কলেজে। ওখানেই গো গবেষণা কেন্দ্র তৈরির তীব্র বিরোধিতা করেছে বাম ছাত্ররা। তাঁদের দাবি, কষ্ট করে পড়াশোনা করতে আসা ছাত্রীদের থাকার জায়গা না করে, সেখানে গোশালা তৈরি মেনে নেওয়া যায় না। তবে অধ্যক্ষ এই আপত্তি উড়িয়ে দিয়েছেন। তাঁর দাবি, ওই জায়গা হস্টেলের পরিকল্পনার তুলনায় খুবই ছোট। সেটি তৈরির জন্য নতুন করে পরিকল্পনা করা হচ্ছে।

    . .

    আরও পড়ুন: হাতে-হাতে পৌঁছবে বই, কলকাতায় SFI-এর দারুণ উদ্যোগ!

    কলেজের অধ্যক্ষ ডক্টর রামা আরও জানিয়েছেন, 'এই কেন্দ্রটিকে শুধুমাত্র গবেষণা করার স্থান ভাবলে ভুল হবে, এখানকার বৈশিষ্ট, এতে খাঁটি দুধ ও ঘি-ও মিলবে। হস্টেলে থাকা পডুয়ারা সেগুলি পাবেন।' এটি একটি ডিএভি ট্রাস্ট কলেজ, যার ভিত্তি আর্য সমাজ। সেই সমাজের নিয়মকানুনকে মাথায় রেখে প্রতি মাসের পয়লা তারিখে এই কেন্দ্রে হবন ও যজ্ঞেরও আয়োজন করা হবে। সেখানও দুধ যাবে এই গবেষণা কেন্দ্র থেকে। সেদিন যদি কলেজের কোনও শিক্ষক-অশিক্ষক-পড়ুয়ার জন্মদিন হয়, তাঁদের হবনে সংবর্ধনা জানানোর ট্র্যাডিশনেও এই দুধ-ঘি সাহায্য করবে।

    আরও পড়ুন: ১৯ দিন ধরে এখনও ICU-তেই লতা মঙ্গেশকর, এখন কেমন আছেন?

    আপাতত ছেলেদের হস্টেলের গেটের কাছে এই গো গবেষণা কেন্দ্র তৈরি করা হচ্ছে। সঙ্গে তৈরি হবে গোবর গ্যাসের প্লান্টও। যদিও দিল্লি বিশ্ববিদ্যালয়ের কাছে, তাদের অন্তর্গত অন্য কোনও কলেজে এমন গো গবেষণা কেন্দ্র রয়েছে কিনা তা জানা নেই। আপাতত একটি গরু রয়েছে ওই কেন্দ্রে। গবেষণার উন্নতি দেখে কেন্দ্রের সম্প্রসারণ করা হবে।

    Published by:Raima Chakraborty
    First published:

    Tags: Delhi University, Hansraj College

    পরবর্তী খবর