Home /News /national /
Price Hike: ফের মূল্যবৃদ্ধি! ১৮ জুলাই থেকে ব্যাপক বাড়ছে কোন নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিসের দাম, রইল তালিকা

Price Hike: ফের মূল্যবৃদ্ধি! ১৮ জুলাই থেকে ব্যাপক বাড়ছে কোন নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিসের দাম, রইল তালিকা

Finance Minister Nirmala Sitharaman

Finance Minister Nirmala Sitharaman

Finance Minister Nirmala Sitharaman: ক্রমবর্ধমান মূল্যস্ফীতির মধ্যে আবারও ধাক্কা খেতে চলেছে সাধারণ মানুষ। ১৮ জুলাই থেকে দাম বাড়তে চলেছে বেশ কিছু নিত্য প্রয়োজনীয় জিনিসের।

  • Share this:

    #নয়াদিল্লি: জিনিসের বাড়তে থাকা দাম নিয়ে নাজেহাল সাধারণ মানুষ। রোজের খাবার জোটাতেও রীতিমতো হিমশিম খেতে হচ্ছে। শুধু খাবার নয়, নানান জরুরি পণ্যের দামও দিন দিন নাগালের বাইরে চলে যাচ্ছে। স্বল্প আয় আর বাড়তে থাকা খরচের মাঝে পড়ে সবচেয়ে বেশি সংকটে দেশের সাধারণ নাগরিক। এরই মধ্যে ফের দুঃসংবাদ! পরের সপ্তাহ থেকেই বাড়তে চলেছে নিত্যপ্রয়োজনীয় খাদ্য সামগ্রী ও কিছু পরিষেবার মূল্য, জানিয়েছেন অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারমণ।

    আরও পড়ুন- নামতা পারছে না পড়ুয়ারা, দেখানোর পরেই স্কুলে সাংবাদিকদের প্রবেশ নিষিদ্ধ এই রাজ্যে

    ক্রমবর্ধমান মূল্যস্ফীতির মধ্যে আবারও ধাক্কা খেতে চলেছে সাধারণ মানুষ। ১৮ জুলাই থেকে দাম বাড়তে চলেছে বেশ কিছু নিত্য প্রয়োজনীয় জিনিসের। দৈনন্দিন নানা খাদ্যদ্রব্যের জন্য এবার থেকে আরও বেশি দাম দিতে হবে। GST-এর ৪৭ তম বৈঠকের পরে দেশের অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারমণ এমনটাই জানিয়েছেন। অর্থমন্ত্রী জানিয়েছেন ১৮ জুলাই থেকে কিছু নতুন পণ্য এবং কিছু পণ্য ও পরিষেবার উপর GST-এর হার বাড়বে।

    পনির, লস্যি, বাটার মিল্ক, প্যাকেটজাত দই, গমের আটা, অন্যান্য শস্য, মধু, পাঁপড়, খাদ্যশস্য, মাংস এবং মাছ (হিমায়িত বাদে), মুড়ি এবং গুড়ের মতো প্রি-প্যাকেজড লেবেল সহ কৃষিপণ্যের দাম বাড়তে চলেছে ১৮ জুলাই থেকে।এই পণ্যগুলির উপর কর বাড়ানো হয়েছে। বর্তমানে, ব্র্যান্ডেড এবং প্যাকেটজাত খাদ্যদ্রব্যের উপর ৫ শতাংশ জিএসটি ধার্য করা হয়। প্যাক ছাড়া এবং লেবেলবিহীন পণ্যগুলি করমুক্ত।

    আরও পড়ুন- ভারতে ওমিক্রনের নয়া সাব ভ্যারিয়েন্ট! বর্ষায় সর্দি-জ্বর নাকি কোভিড? বুঝবেন কীভাবে

    ১৮ জুলাই থেকে কোন কোন দ্রব্যের দাম বাড়বে?

    টেট্রা প্যাক দই, লস্যি এবং বাটার মিল্কের দাম বাড়বে কারণ ১৮ জুলাই থেকে এর উপর ৫% জিএসটি ধার্য হবে, যা আগে প্রযোজ্য ছিল না।

    চেকবুক ইস্যু করতে ব্যাঙ্ক আগে যে পরিষেবা কর নিত তার উপর এখন ১৮% জিএসটি বসানো হবে।

    হাসপাতালে ৫,০০০ টাকার বেশি (নন-আইসিইউ) মূল্যের ঘর ভাড়া করা হলে ৫ শতাংশ জিএসটি ধার্য করা হবে।

    এগুলি ছাড়াও এখন অ্যাটলাস সহ মানচিত্রেও ১২ শতাংশ হারে জিএসটি ধার্য করা হবে।

    প্রতিদিন ১,০০০ টাকার কম ভাড়ার হোটেলের রুমে ১২ শতাংশ জিএসটি ধার্য করা হবে, যা এর আগে ধার্য করা হয়নি।

    এলইডি লাইট এলইডি ল্যাম্পে ১৮ শতাংশ জিএসটি বসানো হবে, যা আগে প্রযোজ্য ছিল না।

    ব্লেড, কাগজ কাটার কাঁচি, পেন্সিল শার্পনার, চামচ, কাঁটাচামচ, স্কিমার্স এবং কেক-সার্ভারের উপর আগে ১২ শতাংশ জিএসটি ছিল, যা বেড়ে হচ্ছে ১৮ শতাংশ৷

    Published by:Madhurima Dutta
    First published:

    Tags: Nirmala Sitharaman, Price Hike

    পরবর্তী খবর