Home /News /national /
Agnipath Scheme: বিক্ষোভ, হিংসার মধ্যেই অগ্নিপথ প্রকল্পের জন্য আবেদন করলেন প্রায় ৫৭,০০০ 'অগ্নিবীর'!

Agnipath Scheme: বিক্ষোভ, হিংসার মধ্যেই অগ্নিপথ প্রকল্পের জন্য আবেদন করলেন প্রায় ৫৭,০০০ 'অগ্নিবীর'!

Agnipath Protest

Agnipath Protest

Agnipath Recruitment Application: ভারতীয় বিমান বাহিনী (IAF) জানিয়েছে, সশস্ত্র বাহিনীর জন্য অগ্নিপথ নিয়োগ প্রকল্পের আনুষ্ঠানিক সূচনা হওয়ার পর থেকে ৫৬,৯৬০ টি আবেদন জমা পড়েছে।

  • Share this:

    #নয়াদিল্লি: বিরোধীদের দেশব্যাপী প্রতিবাদের মধ্যেই অগ্নিপথের জন্য হাজারে হাজারে আবেদন জমা পড়ল! ভারতীয় বিমান বাহিনী (IAF) জানিয়েছে, সোমবার পর্যন্ত সশস্ত্র বাহিনীর জন্য অগ্নিপথ নিয়োগ প্রকল্পের আনুষ্ঠানিক সূচনা হওয়ার পর থেকে ৫৬,৯৬০ টি আবেদন জমা পড়েছে। “৫৬,৯৬০! agnipathvayu.cdac.in-এ অগ্নিপথ নিয়োগের আবেদন জানিয়ে ভবিষ্যতের Agniveers থেকে প্রাপ্ত আবেদনের মোট সংখ্যা,” ট্যুইটারে জানিয়েছে IAF। নিয়োগ প্রক্রিয়া, প্রশিক্ষণ এবং পরিষেবার তথ্য, আর্থিক প্যাকেজ এবং প্রকল্পের অন্যান্য নানা সুবিধা সম্পর্কিত তথ্যও ভাগ করেছে IAF। ৫ জুলাই অগ্নিপথের রেজিস্ট্রেশন শেষ হবে।

    আরও পড়ুন- এতকাল ধরে বিদ্যুৎ নেই দ্রৌপদী মুর্মুর গ্রামে! ২৪ ঘণ্টার মধ্যে আলো আনার নির্দেশ

    অগ্নিপথ যোজনা ২০২২ এর মাধ্যমে IAF এর নিয়োগ শুরু হয়েছিল ২৪ জুন এবং সারা দেশে যুবকদের হিংসাত্মক প্রতিবাদের মধ্যেই মাত্র তিন দিনে দুর্দান্ত প্রতিক্রিয়া পেয়েছে IAF। সশস্ত্র বাহিনী স্পষ্টভাবে জানিয়েছে, যারা যারা হিংসাত্মক বিক্ষোভ ও অগ্নিসংযোগে লিপ্ত হয়েছে তাঁদের সামরিক প্রকল্পের আওতায় অন্তর্ভুক্ত করা হবে না।

    প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি ভারতীয় সশস্ত্র বাহিনীতে যুবকদের অংশগ্রহণ করানোর জন্য ১৪ জুন অগ্নিপথ প্রকল্প ঘোষণা করেছিলেন। এই যুবকদের ‘অগ্নিবীর’ হিসাবে উল্লেখ করা হয়েছে। এই প্রকল্পের অধীনে, যুবকদের চার বছরের মেয়াদে নিয়োগ করা হবে, যার পরে ৭৫ শতাংশকে স্বেচ্ছা অবসর দেওয়া হবে। এই প্রকল্প বাতিলের দাবিতে ১০ ​​টিরও বেশি রাজ্যে ব্যাপক বিক্ষোভ ও অগ্নিসংযোগের ঘটনা ঘটে। বিক্ষোভকারীরা ট্রেনে আগুন ধরিয়ে দেয়, যানবাহনে আগুন লাগিয়ে দেয় এবং ব্যক্তিগত এবং সরকারি সম্পত্তির ক্ষতি করে।

    আরও পড়ুন- "এখন ভারতের সব ঘরে শৌচালয়, সব গ্রামে বিদ্যুৎ": মিউনিখে দাবি প্রধানমন্ত্রী মোদির

    কংগ্রেস ‘অগ্নিপথ’ প্রকল্পকে কেন্দ্রের নতুন ‘স্বৈরাচারী’ নিয়োগ প্রকল্প বলে দেশব্যাপী প্রতিবাদ অব্যাহত রেখেছে। “একটি দায়িত্বশীল রাজনৈতিক দল হিসেবে কংগ্রেস দেশের তরুণদের পাশে দাঁড়িয়েছে। আমরা দাবি করছি যে অগ্নিপথের এই তুঘলকি সিদ্ধান্ত প্রত্যাহার করা হোক,” রবিবার বলেন দলের মুখপাত্র শক্তিসিংহ গোহিল।

    Published by:Madhurima Dutta
    First published:

    Tags: Agnipath, Agnipath Recruitment 2022, IAF

    পরবর্তী খবর