Home /News /life-style /
Pet Care Tips: ঠান্ডা যেন না লাগে! এই শীতে কী ভাবে সুরক্ষিত রাখবেন আদরের পোষ্যকে

Pet Care Tips: ঠান্ডা যেন না লাগে! এই শীতে কী ভাবে সুরক্ষিত রাখবেন আদরের পোষ্যকে

Pet Care Tips- Representative

Pet Care Tips- Representative

পোষ্যের (Pet Care Tips) কিছু হলে যেন দুনিয়াটা এদিক-ওদিক হয়ে যায়। অবলা প্রাণী বলেই হয় তো বেশি মায়া কেড়ে নিতে পারে। তাই এই ঠান্ডায় নিজের পোষ্যের খেয়াল রাখার কী উপায়?

  • Share this:

#নয়াদিল্লি: শীতকালে (Winter) মানুষের সঙ্গে সঙ্গে নানারকম ঝক্কি পোয়াতে হয় পশুদেরও (Pet)। তাদেরও জ্বর থেকে শুরু করে ঠান্ডা  লাগা লেগেই থাকে। আর পোষ্যের (Pet Care Tips) কিছু হলে যেন দুনিয়াটা এদিক-ওদিক হয়ে যায়। অবলা প্রাণী বলেই হয় তো বেশি মায়া কেড়ে নিতে পারে। তাই এই ঠান্ডায় নিজের পোষ্যের খেয়াল রাখার কী উপায়?

জানতে হবে তার শরীরের সঠিক উত্তাপ

এক একটি পোষ্যের (Pet Care Tips) শরীরের গড়ন এক একরকম হয়। কারও লোম বেশি, কারও কম। তাই সেই অনুযায়ীই তাদের শরীরের উত্তাপ নির্ভর করে। যার লোম বেশি তাদের ঠান্ডায় হালকা শীতের জামা পরালেই হয়ে যায়। কিন্তু যাদের আবার শরীরে লোমের পরিমাণ কম হয় তাদের আবার একটু মোটা জামা পরানো উচিত। তবে হ্যাঁ লক্ষ্য রাখতে হবে ওইগুলো পরানোর পর তাদের কোন অস্বস্তি হচ্ছে কি না। হলে বুঝতে হবে ওরা নিজেদের শরীরের উত্তাপ দিয়ে নিজেরাই ঠান্ডা (Winter) সামলাতে পারছে।

আরও পড়ুন - Parenting Tips: সন্তানকে শাসন করতে কিল, চড়, ঘুঁষি, ভবিষ্যত নষ্ট করছেন নিজেই

দিনের বেলা বাইরে রাখা

দিনেরবেলা রোদের মধ্যে পোষ্যকে নিয়ে যাওয়া উচিত। সারারাতের ঠান্ডার পর ওই উত্তাপ শরীরের জন্য ভালো। এতে শরীরে ভিটামিন D-ও ঢোকে।

গরম বিছানা

পোষ্য যেখানে শোয় সেই জায়গাটাকে রাখতে হবে গরম। তার জন্য আলাদা কম্বল রাখতে হবে যাতে সে ওই বিছানায় কমফর্টেবল ফিল করে। এছাড়াও ঘরে হিটার জাতীয় জিনিস থাকলে সেটাকে ওদের বিছানার থেকে দূরে রাখতে হবে। যাতে কোনও বিপদ না হয়।

আরও পড়ুন - Viral: ঠোঁটে ঠোঁটে ডুবে গেল সেলেব Bollywood দম্পতির সকাল, ভাইরাল মীরা-শহিদের Liplock !

ময়েশ্চারাইজার

অনেক সময় খুব ঠান্ডায় ওদের ত্বক শুকনো হয়ে যায়, বা লোমও ওঠে। তখন ডাক্তারের মতামত নিয়ে কোন মলম ব্যবহার করা উচিত। বা নারকেল তেলও ব্যবহার করা যেতে পারে।

পরিমাণ মত জল খাওয়ানো

শীতকালটা খুব শুষ্ক সময়। মানুষেরই জল খাওয়ার পরিমাণ কমে যায়। পোষ্যদের তো কমবেই সেটাই স্বাভাবিক। তবে সবসময় খেয়াল রাখতে হবে যাতে তারা পরিমাণ মতো রোজ জল খায়। জলের বাটিটা সবসময় ভর্তি রাখতে হবে।

জল থেকে দূরে রাখতে হবে

এই সময় পোষ্যদের জল থেকে অনেক রোগ হওয়ার সম্ভবনা থাকে যেমন র‍্যাশ বা লোম উঠে যাওয়া ইত্যাদি। তাই যতটা সম্ভব ওদের জল থেকে দূরে রাখতে হবে। এমন জায়গা দিয়ে যেন না হাঁটে যেখানে জল পড়ে আছে। রোজ পায়ের তলায় বা শরীরের কোনও অঙ্গে জল লাগতে লাগতে সেখানে র‍্যাশ বেরোনোর সম্ভাবনা থাকে।

Published by:Debalina Datta
First published:

Tags: Lifestyle, Pet, Winter

পরবর্তী খবর