Home /News /life-style /
Shampoo: নামি-দামি শ্যাম্পুতেও চুলের সমস্যা ভোগাচ্ছে? বাড়িতে বানিয়ে ফেলুন আয়ুর্বেদিক শ্যাম্পু!

Shampoo: নামি-দামি শ্যাম্পুতেও চুলের সমস্যা ভোগাচ্ছে? বাড়িতে বানিয়ে ফেলুন আয়ুর্বেদিক শ্যাম্পু!

প্রতীকী ছবি

প্রতীকী ছবি

Shampoo: ৫ হাজার বছরের পুরনো ভারতীয় আয়ুর্বেদের রেসিপি মেনে বাড়িতেই বানিয়ে ফেলা যায় খুব সহজে।

  • Share this:

#নয়াদিল্লি: চুল পড়া, খুশকিতে জেরবার। নামি-দামি কোম্পানির শ্যাম্পু ব্যবহার করেও কোনও সুরাহা হচ্ছে না। এখন উপায়? এই সমস্যা থেকে নিমেষে মুক্তি দিতে পারে আয়ুর্বেদিক শ্যাম্পু। এই শ্যাম্পু সস্তা, পরিবেশবান্ধব এবং এতে কোনও রকম ক্ষতিকর রাসায়নিক নেই। আর আয়ুর্বেদিক শ্যাম্পু কিনতে বাজারে যাওয়ারও প্রয়োজন নেই। ৫ হাজার বছরের পুরনো ভারতীয় আয়ুর্বেদের রেসিপি মেনে বাড়িতেই বানিয়ে ফেলা যায় খুব সহজে। তবে যেহেতু এটা ভেষজ ওষুধ তাই ব্যবহারের আগে একবার প্যাচ টেস্ট করিয়ে নিতে ভুললে চলবে না।

আয়ুর্বেদিক শ্যাম্পু রেসিপি: এখানে যে উপাদানগুলো নেওয়া হবে সবই গুঁড়ো আকারে। মুদির দোকানেই এগুলো কিনতে পাওয়া যায়। অনলাইনেও মিলবে। উপাদানগুলোর মধ্যে অন্যতম হল ২৫ গ্রাম শিকাকাই, ২৫ গ্রাম রিঠা এবং ২৫ গ্রাম আমলা। এই ৩টি উপাদান যে কোনও আয়ুর্বেদ শ্যাম্পুর বেস বা ভিত্তি তৈরি করে। প্রথম দুটি প্রাকৃতিক সার্ফ্যাক্টেন্ট হিসাবে কাজ করে। আমলা চুল এবং মাথার ত্বক উভয়কেই সমৃদ্ধ করার প্রচুর বৈশিষ্ট রয়েছে।

এই তিনটি উপাদানের সঙ্গে যোগ করতে হবে ২৫ গ্রাম জবা ফুলের পাপড়ি, ২৫ গ্রাম নিম, ২৫ গ্রাম তুলসি, ২৫ গ্রাম মেথি, ২৫ গ্রাম গোলাপ ফুলের পাপড়ি, ২৫ গ্রাম ব্রাহ্মী, ২৫ গ্রাম সবুজ ছোলা এবং ২৫ গ্রাম চন্দন (ঐচ্ছিক)। এবার এই সবকটা উপাদান মিশিয়ে একটা সূক্ষ মিশ্রণ তৈরি করতে হবে।

আরও পড়ুন: রাতেই এল ইমেইল, সিবিআই-কে যা জানিয়ে দিলেন তৃণমূল বিধায়ক...

ব্যবহারের পদ্ধতি: ৪ টেবিল চামচ গুঁড়ো পাউডার নিয়ে তাতে ডিস্টিল ওয়াটার মিশিয়ে সেটা শ্যাম্পুর মতো চুলে লাগাতে হবে। ডিস্টিল ওয়াটারের বদলে গোলাপ জল বা দই ব্যবহার করা যায়। তবে ভালো টেক্সচার পাওয়ার জন্য মিশ্রণটাকে ফেটিয়ে নিতে হবে। বাকি পাউডার এয়ার টাইট বোতলে সংরক্ষণ করা যায়। তবে যে কোনও ধরনের আর্দ্রতা থেকে দূরে রাখতে হবে। চার টেবিল চামচ ছোট চুলের জন্য উপযুক্ত, তবে বড় চুল হলে আর একটু বেশি পাউডার নিতে হবে।

আরও পড়ুন: ফের মডেল-অভিনেত্রীর অস্বাভাবিক মৃত্যু, বিদিশার বন্ধু মঞ্জুষা নিয়োগীর ঝুলন্ত দেহ উদ্ধার !

গুঁড়ো পাউডারের সঙ্গে ডিস্টল ওয়াটার, গোলাপ জল বা দই সারারাত মিশিয়ে রাখতে পারলে খুব ভালো। তবে আবশ্যক নয়। তবে বিশেষজ্ঞরা বলেন, চুলে ব্যবহারের অন্তত ৩ ঘণ্টা আগে মিশ্রণটা তৈরি করে নিতে হবে। এছাড়া মিশ্রণটা চুলে লাগাবার আগে ভালো করে ফেটিয়ে নেওয়াটা জরুরি। এতে টেক্সচার ভালো হবে। তবে বাজারচলতি শ্যাম্পুর মতো ফেনার আশা না করাই ভাল। যদিও কাজ হবে বাজারচলতি যে কোনও শ্যাম্পুর থেকে অনেক বেশি!

First published:

Tags: Ayurvedic, Shampoo

পরবর্তী খবর