• Home
  • »
  • News
  • »
  • business
  • »
  • Digital Gold: ডিজিটাল গোল্ডে বিনিয়োগ কি নিরাপদ? ট্যাক্সের পরিমাণই বা কী? দেখে নিন এক নজরে

Digital Gold: ডিজিটাল গোল্ডে বিনিয়োগ কি নিরাপদ? ট্যাক্সের পরিমাণই বা কী? দেখে নিন এক নজরে

ডিজিটাল গোল্ডে বিনিয়োগ কি নিরাপদ? ট্যাক্সের পরিমাণই বা কী? দেখে নিন এক নজরে!

ডিজিটাল গোল্ডে বিনিয়োগ কি নিরাপদ? ট্যাক্সের পরিমাণই বা কী? দেখে নিন এক নজরে!

Digital Gold Investment: ডিজিটাল গোল্ডে বিনিয়োগ করার আগে জেনে নেওয়া যাক গুরুত্বপূর্ণ কয়েকটি বিষয়।

  • Share this:

#নয়াদিল্লি: সোনা কিন্তু শুধু অলঙ্কার হিসাবেই মানুষের কাজে লাগে না। কেউ যদি চায় তাহলে সোনার ওপরে বিনিয়োগও করতে পারে। এর জন্য সব থেকে ভালো বিকল্প হল ডিজিটাল গোল্ড। বর্তমানে এই ডিজিটাল গোল্ড খুবই চর্চার মধ্যে রয়েছে। অনেকেই এই ডিজিটাল গোল্ডে বিনিয়োগ করছে। এর অন্যতম কারণ হল শেয়ার বাজারের অনিশ্চয়তা এবং চড়া দাম। শেয়ার বাজারের অনেক ক্ষেত্রেই ঝুঁকির কারণে, বিনিয়োগকারীরা সুরক্ষিত বিনিয়োগ ও ভালো রিটার্ন পাওয়ার জন্য এই ডিজিটাল গোল্ডে বিনিয়োগ করছে। এই ডিজিটাল গোল্ডে বিনিয়োগ করার আগে জেনে নেওয়া যাক গুরুত্বপূর্ণ কয়েকটি বিষয়।

কেনা খুবই সহজ

বর্তমানে ডিজিটাল গোল্ড কেনা খুবই সহজ। মোবাইল অ্যাপের মাধ্যমে খুব সহজেই কেনা যেতে পারে ডিজিটাল গোল্ড। ডিজিটাল গোল্ড কেনার জন্য বাজারে দামের নির্দিষ্ট কোনও বাধ্যবাধকতা নেই। এর ফলে এই ডিজিটাল গোল্ড আরও বেশি জনপ্রিয়তা লাভ করেছে।

আরও পড়ুন- মাত্র ২৫ হাজার টাকা বিনিয়োগেই কোটিপতি ! জেনে নিন এই পেনি স্টক নিয়ে বিশদে

সুরক্ষা এবং শুদ্ধতা

যখন কেউ সোনা ক্রয় করে তখন তার শুদ্ধতা নিয়ে অনেকটাই চিন্তিত থাকে। কিন্তু এই ডিজিটাল গোল্ড কেনার সময় সেরকম চিন্তা করার কোনও বিষয় নেই। কারণ ডিজিটাল গোল্ড কেনার সময় সেটির শুদ্ধতা পরীক্ষা করার কোনও ব্যাপার নেই। এই ডিজিটাল গোল্ড সব সময়েই সুরক্ষিত।

চটজলদি রিটার্ন

এই ডিজিটাল গোল্ড বিক্রি করে খুব সহজেই তাড়াতাড়ি রিটার্ন পাওয়া সম্ভব। যার যখন দরকার সে তখন সেটি বিক্রি করে পুরো টাকা রিটার্ন পেতে পারে।

জিএসটি (GST)-র পরিমাণ

ডিজিটাল গোল্ডের ক্ষেত্রে তার ক্রেতাদের ৩ শতাংশ হারে জিএসটি দিতে হয়। যদি কেউ ১০০০ টাকার ডিজিটাল গোল্ড ক্রয় করে তাহলে তাকে ৩০ টাকা জিএসটি বাবদ খরচ করতে হবে। এক্ষেত্রে সে ৯৭০ টাকার সোনা পাবে।

চার্জের পরিমাণ

ডিজিটাল গোল্ড কেনার সময় ক্রেতাকে একটি ওয়ান টাইম চার্জ জমা দিতে হবে। এছাড়াও ডিজিটাল গোল্ডের ফিজিক্যাল ডেলিভারি নিতে চাইলে সেক্ষেত্রে ডেলিভারি শুল্ক দিতে হবে।

আরও পড়ুন- রাশিফল ১৮ নভেম্বর; দেখে নিন কেমন যাবে আজকের দিন

ট্যাক্সের পরিমাণ

ডিজিটাল গোল্ড ৩ বছরের কম সময় ধরে ক্রেতার কাছে থাকলে সেটি বিক্রির সময় কোনও ট্যাক্স দিতে হয় না। কিন্তু ৩ বছরের বেশি সময় হলে ২০ শতাংশ হারে ট্যাক্স, সেস এবং সারচার্জ দিতে হবে।

৫ সালের বেশি সময় ধরে রাখলে তার চার্জ

ডিজিটাল গোল্ড ৫ বছরের বেশি সময় ধরে নিজের কাছে রাখা যায় না। কেউ যদি এটা করে তাহলে তাকে এর জন্য চার্জ দিতে হবে।

নিয়ামক সংস্থা

ডিজিটাল গোল্ডের ক্ষেত্রে কোনও নিয়ামক সংস্থা নেই। বর্তমানে সেবি (SEBI) এবং আরবিআই-এর (RBI) মতো সরকারি সংস্থাও এর নজরদারি করছে না।

সরকারের সিদ্ধান্ত

মনে করা হচ্ছে খুব তাড়াতাড়ি সরকার ডিজিটাল গোল্ডের বিষয়ে কোনও সিদ্ধান্ত গ্রহণ করতে পারে।

Published by:Siddhartha Sarkar
First published: