Home /News /west-midnapore /
West Midnapore News: মেদিনীপুর জেলা পরিষদ পুরানো ভবনকে হেরিটেজ করার দাবি

West Midnapore News: মেদিনীপুর জেলা পরিষদ পুরানো ভবনকে হেরিটেজ করার দাবি

পশ্চিম

পশ্চিম মেদিনীপুর জেলা পরিষদ

 আগামী কিছুদিনের মধ্যেই নিশ্চিতভাবে মেদিনীপুর জেলা পরিষদের ঐতিহাসিক ভবনটিকে হেরিটেজ ভবন হিসেবে ঘোষণা করা হবে রাজ্য হেরিটেজ কমিশনের পক্ষ থেকে।

  • Share this:

    #পশ্চিম মেদিনীপুর: প্রচলিত রয়েছে স্বাধীনতা সংগ্রামের পীঠস্থান ঐতিহাসিক মেদিনীপুর। বহু সংগ্রামের সাক্ষী বিজড়িত মেদিনীপুরে রয়েছে রাজা রাজরাদের প্রাচীণ স্থাপত্য এবং ব্রিটিশ আমলের তৈরী নিদর্শন। যার মধ্যে বেশকিছু ঐতিহাসিক স্থাপত্যকে ইতিমধ্যেই হেরিটেজ হিসেবে ঘোষণা করা হয়েছে রাজ্যের তরফে। এবার স্বাধীনতা আন্দোলন এর আমলের অন্যতম পশ্চিম মেদিনীপুর জেলা পরিষদের পুরানো ভবনটিকে হেরিটেজ হিসেবে ঘোষণা করার আর্জি জানানো হয়েছে জেলা পরিষদের পক্ষ থেকে।

    ইতিমধ্যেই রাজ্য হেরিটেজ কমিশনের কাছে পশ্চিম মেদিনীপুর জেলা পরিষদের ঐ ভবনটিকে হেরিটেজ ভবন হিসেবে ঘোষণা করার আবেদন জানিয়ে পশ্চিম মেদিনীপুর জেলাশাসকের মাধ্যমে চিঠি দিয়েছে জেলা পরিষদ কর্তৃপক্ষ। সোমবার এক সাক্ষাৎকারে একথা জানিয়ে স্বাস্থ্য কর্মাধ্যক্ষ শ্যামপদ পাত্র বলেন, ভারতবর্ষের স্বাধীনতা আন্দোলনের ইতিহাসে মেদিনীপুরের এক বিরাট অবদান রয়েছে। ফলে স্বাভাবিক ভাবে এই মেদিনীপুরের প্রান্তে প্রান্তে স্বাধীনতা সংগ্রামের ইতিহাস ছড়িয়ে ছিটিয়ে আছে।

    আরও পড়ুন - উচ্চশিক্ষার পরেও মিলছে না চাকরি! হতাশ লোধা শবর সমাজের যুবক যুবতীরা

    আরও পড়ুন - বিকল জেনারেটর! ঘুটঘুটে অন্ধকার হাসপাতালে! কী ভোগান্তি রোগীদের!

    ইতিমধ্যেই পশ্চিম মেদিনীপুরের জেলাশাসকের বাংলা এবং কালেক্টরেটের পুরাতন ভবনটিকে হেরিটেজ হিসেবে ঘোষণা করা হয়েছে। তেমনি এই পশ্চিম মেদিনীপুর জেলা পরিষদের নাম রয়েছে স্বাধীনতা সংগ্রামীদের আন্দোলনে। মেদিনীপুরেরই দুই বীর সন্তান প্রদ্যুৎ ভট্টাচার্য এবং প্রভাংশু পাল এই জেলা পরিষদেই তৎকালীন সময়ে ব্রিটিশ জেলাশাসক ডগলাসকে হত্যা করেছিলেন।

    তাই ইতিহাসের ওই দিনটিকে স্মরণ রেখে এবং আগামী প্রজন্মের কাছে এই জেলা পরিষদ ভবনটিকে তুলে ধরার জন্য হেরিটেজ ভবন হিসেবে ঘোষণা করার আবেদন জানানো হয়েছে। শ্যামপদ বাবু আশাবাদী আগামী কিছুদিনের মধ্যেই নিশ্চিতভাবে জেলা পরিষদের ঐতিহাসিক ভবনটিকে হেরিটেজ ভবন হিসেবে ঘোষণা করা হবে রাজ্য হেরিটেজ কমিশনের পক্ষ থেকে।

    Published by:Ananya Chakraborty
    First published:

    Tags: West Midnapore

    পরবর্তী খবর