Home /News /west-midnapore /
Paschim Medinipur: চন্দ্রকোনা রোডে ওভারব্রীজ! দিশেহারা জমির কৃষকেরা

Paschim Medinipur: চন্দ্রকোনা রোডে ওভারব্রীজ! দিশেহারা জমির কৃষকেরা

title=

পশ্চিম মেদিনীপুর জেলার চন্দ্রকোনারোড শহরে যানজট মুক্ত করতে শহর সংলগ্ন কদমডিহা এলাকায় তৈরি হবে ওভারব্রিজ, কিন্তু সমস্যা তৈরি জমি জটে।

  • Share this:

    #পশ্চিম মেদিনীপুর : পশ্চিম মেদিনীপুর জেলার চন্দ্রকোনারোড শহরে যানজট মুক্ত করতে শহর সংলগ্ন কদমডিহা এলাকায় তৈরি হবে ওভারব্রিজ, কিন্তু সমস্যা তৈরি জমি জটে। কদমডিহা এলাকায় রয়েছে air force এর জায়গা, আর তারই পাশে ছিল রাজ্য সরকারের কিছু জমি। বহু টালবাহানার পর অবশেষে জমি হস্তান্তরের কাজ শেষ হয়। ইতিমধ্যেই ওভার ব্রিজ তৈরি করার জন্য ওই জায়গা পরিদর্শন করে ফেলেছে জাতীয় সড়ক কর্তৃপক্ষ। তবে রাজ্য সরকারের জমিতে দীর্ঘদিন ধরে চাষবাস করে এলাকার প্রায় ৫০ জন কৃষক। ইতিমধ্যেই জাতীয় সড়ক কর্তৃপক্ষের পক্ষ থেকে ঐ এলাকায় নোটিশ বোর্ড লাগানো হয় ওই জমি ছেড়ে দেওয়ার জন্য, কিন্তু চাষীদের পক্ষ থেকে জানানো হয় এই মুহূর্তে তারা ওই জমিতে কুমড়ো চাষ করেছেন, যেহেতু এই ফসল ফলতে সময় লাগে দুই মাস, সেহেতু সরকারের কাছে তারা অনুরোধ করেছিল, এই ফসল তোলা হয়ে গেলে সরকারের হাতে তুলে দেওয়া হবে সেই জমি।

    কিন্তু সেই ওভারব্রিজের কাজ দ্রুত সম্প্রসারনের জন্য শুরু হয় জমি পরিষ্কারের কাজ, নষ্ট করে দেওয়া হয় জমির কুমড়ো বলে অভিযোগ ক্ষতিগ্রস্থ কৃষকদের। জানা গিয়েছে, প্রায় ২০০ বিঘা জমিতে কুমড়ো চাষ করতে খরচ হয়েছে প্রায় কুড়ি লক্ষ টাকা। এখানেই কার্যত ভেঙে পড়েছে এলাকার চাষীরা।

    আরও পড়ুনঃ টানা কয়েক ঘন্টার বৃষ্টিতে জলমগ্ন চন্দ্রকোনা টাউনের কদমতলা

    তবে সেই জমি পরিষ্কার করার জন্য যেইসব কর্মচারী লাগানো হয়েছে, সেই কর্মচারীরা কাজ করতে গেলে চাষীদের সঙ্গে শুরু হয় বচসা। ঘটনার খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে গড়বেতা তিন নম্বর ব্লকের বিডিও অমিতাভ বিশ্বাস এবং ঘটনাস্থলে পৌঁছায় চন্দ্রকোনা রোড বিট হাউসের পুলিশ। এলাকার চাষিদের সঙ্গে কথাবার্তা বলে পুনরায় শুরু হয় জমি পরিষ্কারের কাজ।

    আরও পড়ুনঃ বিদ্যাসাগর বিশ্ববিদ্যালয়ে আদিবাসী বিষয়ক জাতীয় আলোচনাচক্র

    এদিন বিডিও অমিতাভ বিশ্বাস বলেন, গত কয়েকদিন আগে তার কাছে নোটিশ আসে দ্রুততার সঙ্গে ঐসব জমি পরিষ্কার করে দেওয়ার জন্য। কিন্তু এই পরিস্থিতিতে এলাকার চাষীদের ক্ষতিপূরণ কে বহন করবে তা নিয়ে উঠেছে প্রশ্ন। অন্যদিকে কার্যত দিশেহারা পরিস্থিতি সৃষ্টি হয়েছে এলাকার চাষিদের মধ্যে।

    Partha Mukherjee
    Published by:Soumabrata Ghosh
    First published:

    Tags: Chandrakona, Paschim medinipur

    পরবর্তী খবর