• Home
  • »
  • News
  • »
  • sports
  • »
  • Virat Kohli Test captaincy : ব্যাটে ব্যর্থ বিরাট কোহলির চাপ ক্রমশ বাড়ছে! নেটে বিশেষ অনুশীলন ভারত অধিনায়কের

Virat Kohli Test captaincy : ব্যাটে ব্যর্থ বিরাট কোহলির চাপ ক্রমশ বাড়ছে! নেটে বিশেষ অনুশীলন ভারত অধিনায়কের

দ্বিতীয় টেস্টে রান পেতে মরিয়া বিরাট কোহলি

দ্বিতীয় টেস্টে রান পেতে মরিয়া বিরাট কোহলি

Virat Kohli special net session ahead of second test in South Africa. টানা দু ঘন্টা বিশেষ অনুশীলনে নিজেকে ডুবিয়ে রাখলেন বিরাট, দ্বিতীয় টেস্টে রান পেতে মরিয়া বিরাট কোহলি

  • Share this:

    #জোহানেসবার্গ: নির্বাচক প্রধান চেতন শর্মা ভারতের একদিনের দল ঘোষনা করতে গিয়ে আবার টেনে এনেছেন বিরাট কোহলির সাদা বলের ক্রিকেট অধিনায়কত্ব ছাড়ার প্রসঙ্গ। ভারতের বর্তমান টেস্ট অধিনায়ক দীর্ঘদিন আন্তর্জাতিক ক্রিকেট খেলছেন। ফলে দেওয়াল লিখন পড়তে পারেন। না বোঝার মত বোকা তিনি নন। এই টেস্ট সিরিজ ভারতের পারফরম্যান্স যেমনই হোক, স্বয়ং বিরাট কোহলির পারফরম্যান্স যে আতস কাঁচের তলায় রাখা হবে সেটা স্পষ্ট।

    আরও পড়ুন - India vs South Africa Wanderers : পয়া ওয়ান্ডারার্স মাঠেই সিরিজ জয় নিশ্চিত করতে মরিয়া দ্রাবিড়ের ভারত

    বিরাট বনাম বিসিসিআই এপিসোড যে শেষ হয়নি, সেটা পরিষ্কার। ভারত জিতলেও অধিনায়ক বিরাট কোহলির ব্যাট সেভাবে জ্বলে উঠতে পারেনি। আরও একটা বছর শেষ হল শতরান ছাড়া। সেই ২০১৯ সালে বাংলাদেশের বিরুদ্ধে কলকাতায় শেষবার টেস্ট শতরান করেছিলেন বিরাট। ভারতের প্রাক্তন কিংবদন্তি সুনীল গাভাসকার একটা ছোট্ট উপদেশ দিয়েছিলেন ক্যাপ্টেন কোহলিকে।

    গাভাসকার বলেছিলেন বিরাটের উচিত নববর্ষের শুভেচ্ছা জানিয়ে সচিনকে ফোন করা। কথায় কথায় জেনে নেওয়া কোথায় ভুল হচ্ছে ব্যাটিংয়ে। সানি মনে করেন ২০০৩-০৪ সালে অস্ট্রেলিয়া সফরে বারবার ব্যর্থ হয়েছিলেন সচিন। অবশেষে সিডনিতে শেষ টেস্ট ম্যাচে দুরন্ত ডবল সেঞ্চুরি করেছিলেন মাস্টার ব্লাস্টার। সেই ইনিংসে একবারও অফস্টাম্পের বাইরে শট খেলেননি সচিন।

    আরও পড়ুন - ‘‘এভাবে আমি আর থাকতে পারব না’’- ডুকরে ডুকরে কেঁদে বলছিলেন Ravichandran Ashwin-র স্ত্রী Priti

    গাভাসকার মনে করেন বিরাট কোহলি ভারতীয় ব্যাটিংয়ের স্তম্ভ। ভারতকে সিরিজ জিততে হলে দ্রুত বড় রান করতে হবে বিরাটকে। কারণ তার পারফরম্যান্স নজরে থাকবে বোর্ড কর্তাদের। সচিনকে জিজ্ঞেস করলে বিরাটকে সঠিক পরামর্শ দিতে পারবেন মাস্টার ব্লাস্টার। দক্ষিণ আফ্রিকায় শতরান ছিল সচিনের। অতীতে বিরাটও শতরান করেছিলেন সেঞ্চুরিয়নে।

    ডানহাতি ব্যাটসম্যান হওয়ায় সচিন বিরাটের সমস্যা সমাধান করে দেবেন মনে করেন গাভাসকার। দুটো ইনিংসে ৩৫ এবং ১৮ বিরাট কোহলির মতো ব্যাটসম্যানকে মানায় না। সবচেয়ে জঘন্য অনেক বাইরের বল তাড়া করতে গিয়ে আউট হচ্ছেন। একই ভুল দ্রুত ঠিক করতে হবে ভারত অধিনায়ককে। ইতিমধ্যেই সাদা বলের ক্রিকেটে আর অধিনায়ক নন কোহলি। শুধু টেস্টে অধিনায়ক।

    তাই চাপ আগের থেকে কম। পাশাপাশি বিরাট শুধু ব্যাটসম্যান। বোলার বা কিপার নন। তাই অধিনায়কত্বের পাশাপাশি তার ব্যাট থেকেও নির্বাচকরা বড় ইনিংস আশা করেন। ওয়ান্ডারার্স টেস্ট শুরু হওয়ার আগে দেখা গেছে নেটে দীর্ঘক্ষন নকিং করছেন বিরাট। সামনের পায়ে খেলার পাশাপাশি জোর দিচ্ছেন ব্যাকফুটে। রাহুল দ্রাবিড়ের সঙ্গে নিজের স্টানস নিয়ে আলোচনা চলছে।

    অফ স্টাম্পের বাইরের বলে বারবার উইকেট হারিয়েছেন। সেট হয়েও আউট হচ্ছেন। তাই এবার দাঁড়ানোর ক্ষেত্রে পরিবর্তন আনতে দেখা গিয়েছে নেটে। ব্যাটের ফ্লো নিয়ে দ্রাবিড়ের সঙ্গে আলোচনা করেছেন বিরাট। ভারত প্রথমে ব্যাট করলে উইকেটের গতি এবং বাউন্স বেশি থাকবে।

    প্রয়োজন হলে একটু অফের দিকে সরে গিয়ে অন সাইডে খেলার চেষ্টা করবেন বিরাট। প্রথম কয়েকটা ওভার শুধু বল ছেড়ে যেতে হবে। মাথার পজিশন সোজা রাখার নিয়ম বিরাট আলোচনা করেছেন রাহুল দ্রাবিড়ের সঙ্গে।

    Published by:Rohan Chowdhury
    First published: