Home /News /sports /
Santosh Trophy Bengal Team: সন্তোষের মূলপর্ব পিছিয়ে গেলেও জোরদার অনুশীলনে মগ্ন বাংলা ফুটবল দল

Santosh Trophy Bengal Team: সন্তোষের মূলপর্ব পিছিয়ে গেলেও জোরদার অনুশীলনে মগ্ন বাংলা ফুটবল দল

মূলপর্ব অনিশ্চিত হলেও বাংলা ফুটবল দলের প্রস্তুতিতে ঘাটতি নেই

মূলপর্ব অনিশ্চিত হলেও বাংলা ফুটবল দলের প্রস্তুতিতে ঘাটতি নেই

Santosh Trophy 2022 Bengal football team coach Ranjan Bhattacharya hopeful of good results. মূলপর্ব অনিশ্চিত হলেও সন্তোষ ট্রফিতে বাংলা ফুটবল দলের প্রস্তুতিতে ঘাটতি নেই

  • Share this:

    #কলকাতা: ভারতবর্ষের ফুটবলের সবচেয়ে সফল রাজ্যের নাম বাংলা সেটা যেন বারবার প্রমাণ করে দেয় সন্তোষ ট্রফির রেকর্ড। সব মিলিয়ে মোট ৩২ বার চ্যাম্পিয়ন বাংলা। দ্বিতীয় স্থানে পঞ্জাব ৮ বারের চ্যাম্পিয়ন। বাংলার ধারে কাছে নেই কেউ। কিন্তু বিগত কয়েক বছরে বাংলার চ্যাম্পিয়ন হওয়ার নজির কমেছে। কোভিডের কারণে পিছিয়ে গিয়েছে সন্তোষ ট্রফির মূল পর্ব। ফেব্রুয়ারির ২০ তারিখ থেকে কেরলের মালাপ্পুরামে ঘরোয়া ফুটবলের শীর্ষ টুর্নামেন্টটি আয়োজনের কথা থাকলেও তা পিছিয়ে গিয়েছে।

    আরও পড়ুন - Chile vs Argentina qualifier: অধিনায়ক মেসি এবং কোচ ছাড়াই চিলিকে হারিয়ে স্বস্তির জয় আর্জেন্টিনার

    আইএফএফ-এর পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, আগামী মাসে পরিস্থিতির বিবেচনা করে নতুন সূচি ঘোষণা করা হবে। সন্তোষ ট্রফির মূল পর্ব পিছিয়ে গেলেও নিজেদের প্রস্তুতিতে কোনও খামতি রাখতে চান না বাংলা দলের কোচ রঞ্জন ভট্টাচার্য। বাঙালি কোচের নজরদারিতে সন্তোষ ট্রফির মূল পর্বের প্রস্তুতি শুরু বাংলার। সোনারপুর জ্যোতির্ময় নলেজ কাম্পাসে চার দিনের আবাশিক শিবিরে যোগ দিয়েছে সন্তোষের জন্য নির্বাচিত বাংলার ফুটবলাররা।

    শিবিরের প্রথম দিনে ফুটবলারদের উৎসাহ দিতে উপস্থিত ছিলেন সর্ব ভারতীয় ফুটবল ফেডারেশনের সিনিয়র সহ সভাপতি তথা আইএফএ চেয়ারম্যান সুব্রত দত্ত, আইএফএ-এর সহ সভাপতি পার্থ সারথি গঙ্গোপাধ্যায়, সচিব জয়দীপ মুখার্জি, সহ সচিব রাকেশ ঝা। বাংলার কোচ জানিয়েছেন, এই শিবিরে দুই বেলাই অনুশীলন করবেন ফুটবলাররা।

    আরও পড়ুন - Ecuador vs. Brazil : ফুটবল নয়, যেন কুস্তির ম্যাচ! ইকুয়েডরের কাছে আটকে গেল ব্রাজিল

    বর্তমানে চার দিনের শিবির চললেও পরবর্তী প্রয়োজনে আরও আবাশিক শিবির করা হতে পারে। বাংলা দলের অন্যতম অস্ত্র সুুব্রত মুর্মু চোটের কারণে এতদিন অনুশীলনের বাইরে ছিলেন। তবে, চোট কাটিয়ে তিনিও এই আবাশিক শিবিরে যোগ দিয়েছে। রঞ্জন আশাবাদী মূল পর্বে সফল হওয়া নিয়ে। তিনি জানিয়েছেন, গ্রুপ ভাগ বেশ ভাল হয়েছে। আর চ্যাম্পিয়ন হতে হলে হারাতে হবে কেরল, পঞ্জাবের মতো দলকে। কে সামনে রয়েছে তা নিয়ে তিনি ভাবতে রাজি নন।

    উল্লেখ্য, সন্তোষ ট্রফি'র মূল পর্বে বাংলা দল পাবে না ২০২১ কলকাতা লিগের যৌথভাবে সর্বোচ্চ গোলদাতা রাহুল পাসওয়ানকে। জানুয়ারির ট্রান্সফার উইন্ডোয় প্রিমিয়ার লিগের দল বিএসএস স্পোর্টিং থেকে এসসি ইস্টবেঙ্গলে সই করেছেন পাসওয়ান। রঞ্জন ভট্টাচার্য তাঁকে প্রথমে ছাড়তে রাজি না হলেও তরুণ ফুটবলারের কেরিয়ারের কথা ভেবে তাঁকে শেষ পর্যন্ত ছাড়তে রাজি হয় আইএফএ।

    কিন্তু নবি হোসেন, তন্ময় ঘোষ, রাজা বর্মন, মনোতোষ চাকলাদার, মোহিতশ, প্রিয়ন্ত সিং দের দক্ষতার ওপর ভরসা রয়েছে বাংলার কোচের। শিবিরে বোঝাপড়া এবং ফিটনেস বাড়ানোর ওপর জোর দেওয়া হচ্ছে।

    Published by:Rohan Chowdhury
    First published:

    পরবর্তী খবর