• Home
  • »
  • News
  • »
  • sports
  • »
  • OTHER SPORTS LEGENDARY SPRINTER USAIN BOLT SEES TOUGH TIMES FOR JAMAICAN SPRINTERS IN TOKYO OLYMPICS RRC

স্প্রিন্ট ট্র্যাকে জামাইকার রাজত্ব শেষ হতে চলেছে, চিন্তায় উসাইন বোল্ট

জামাইকার পদক জয়ের আশা কম, বলছেন বোল্ট

১০০ মিটার এবং ২০০ মিটারের বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন বোল্ট মনে করছেন, তার দেশের মহিলা স্প্রিন্টারদের অবস্থা তুলনামূলক ভাল, বরং পুরুষদের বেশ কঠিন অবস্থার মুখোমুখি হতে হবে

  • Share this:

    #কিংস্টন: ২০১৭ সালে স্প্রিন্ট লেজেন্ড উসাইন বোল্ট অবসর গ্রহণের পর জামাইকার পুরুষ অ্যাথলিট বিভাগের উন্নতি সেভাবে হয়নি। যা নিয়ে বেশ অসন্তুষ্ট বোল্ট। তিনি মনে করছেন পরপর তিনটি অলিম্পিকে জামাইকার অসাধারণ সাফল্যের পর টোকিও অলিম্পিক অনেক বেশি কঠিন হবে জামাইকান স্প্রিন্টারদের। বেজিং, লন্ডন এবং রিও অলিম্পিকে পুরুষদের স্প্রিন্ট বিভাগে শুধুই ছিল জামাই কার জয়জয়কার। তিনটে অলিম্পিকেই স্প্রিন্ট এর সবকটি অর্থাৎ নয়টি স্বর্ণপদক গিয়েছিল জামাইকায়, এবং এই সাফল্যের কান্ডারী ছিলেন কিংবদন্তি উসাইন বোল্ট।

    শুধুমাত্র ২০০৮ সালের ৪০০ মিটারের রিলেতে নেস্টা কার্টারের স্বর্ণপদকটি কেড়ে নেওয়া হয় কারণ তিনি ডোপ টেস্টে ধরা পড়েছিলেন। ১০০ মিটার এবং ২০০ মিটারের বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন বোল্ট মনে করছেন, তার দেশের মহিলা স্প্রিন্টারদের অবস্থা তুলনামূলক ভাল, বরং পুরুষদের বেশ কঠিন অবস্থার মুখোমুখি হতে হবে। 'এটা খুবই হতাশাজনক।' রয়টার্সকে বললেন বোল্ট।

    "আমি ভেবেছিলাম আমাদের অ্যাথলিট উৎপাদন খুব ভাল, শেষ দুটো অলিম্পিকে। কিন্তু এটা আমায় খুব হতাশ করে যে জায়গায় আমরা এখন দাড়িয়ে, গোটা বিশ্ব আমাদের থেকে এগিয়ে আছে। পুরুষ বিভাগকে বেশ কঠিন পরীক্ষার মুখে পড়তে হবে....আমি হতাশ, কারণ আমি মনে করি আমাদের প্রতিভার অভাব নেই, শুধু আমরা তাকে তৈরি করতে পারি না ঠিক করে"।

    বোল্ট শুধু জামাইকার তরুণ স্প্রিন্টারদের উদ্বুদ্ধ করেননি, তার হাত ধরে জামাইকা রাজত্ব করেছে অলিম্পিকের ট্র্যাকে। বোল্টের ট্রেনিং পার্টনার ব্লেক, তিনিও ২০১১ তে যখন বোল্ট ছিটকে যান, তখন দেশের হয়ে সোনা ফিরিয়ে আনেন। টোকিও অলিম্পিকে জামাইকার হয়ে সোনা জেতার সবথেকে বেশি সুযোগ আছে ব্লেকের। বোল্টের পর তিনি তার দেশের শ্রেষ্ঠ স্প্রিন্টার।

    এই মরশুমে তিনি ৯.৯৫ সেকেন্ডে ১০০ মিটার দৌড়ে বিশ্বের নজর কেড়ে নিয়েছেন। বোল্ট নিজের মনে করছেন জামাইকার দুর্বল হওয়া মানে আমেরিকার ফেভারিট হয়ে পড়া। আমেরিকানরা সেই ২০০৪ সালের পর ১০০ মিটারে স্বর্ণ পদক জেতেনি। কিন্তু এবার একাধিক আমেরিকান স্প্রিন্টার পদক জয়ের ক্ষমতা রাখে। টেভ্ন ব্রমেল, রনি বেকার, ফ্রেড কেরলে - এই তিনজনের প্রত্যেককেই পদক জয়ের দাবিদার মনে করেন বোল্ট।

    Published by:Rohan Chowdhury
    First published: