Home /News /sports /

Kaif on KL Rahul : রাহুল দ্রাবিড়ের ছায়া স্পষ্ট কে এল রাহুলের মধ্যে! বলছেন মহম্মদ কাইফ

Kaif on KL Rahul : রাহুল দ্রাবিড়ের ছায়া স্পষ্ট কে এল রাহুলের মধ্যে! বলছেন মহম্মদ কাইফ

রাহুল দ্রাবিড়ের স্পর্শে নিজেকে উন্নত করছেন কে এল রাহুল

রাহুল দ্রাবিড়ের স্পর্শে নিজেকে উন্নত করছেন কে এল রাহুল

Mohammad Kaif finds KL Rahul in resemblance with Rahul Dravid. দ্রাবিড়ের সঙ্গে রাহুলের প্রচুর মিল পেয়েছেন মহম্মদ কাইফ, রাহুল দ্রাবিড়ের সঙ্গে মহম্মদ কাইফ তুলনা টেনে সঠিক কাজ করেছেন কিনা, সেটা বোঝার জন্য আরও কয়েকটা বছর অপেক্ষা করতে হবে।

আরও পড়ুন...
  • Share this:

    #মুম্বই: ক্রিকেটার জীবনে খুব কাছ থেকে অভিজ্ঞতা হয়েছে রাহুল দ্রাবিড়ের সঙ্গে সময় কাটানোর। মাঠের ভিতরে, মাঠের বাইরে, ড্রেসিংরুমে এমনকি ব্যক্তিগত জীবনে। মহম্মদ কাইফ মনে করেন যদি সতীর্থ হিসেবে রাহুল দ্রাবিড়কে নাও পেতেন, তা হলেও তার কাছে আইকন হিসেবে থেকে যেতেন রাহুল দ্রাবিড়। তিনি ভাগ্যবান ভারতীয় ক্রিকেটের কিংবদন্তির সঙ্গে সময় কাটাতে পেরে। কাছ থেকে জানতে পেরে।

    আরও পড়ুন - Gavaskar advice to Kohli : সচিনকে ফোন করে নববর্ষের শুভেচ্ছা জানাক বিরাট! কেন বললেন গাভাসকার?

    সোশ্যাল মিডিয়ায় কাইফ জানিয়েছেন যত দেখছি কে এল রাহুলকে, ততই যেন মুগ্ধ হয়ে যাচ্ছি। সত্যি কথা বলতে আমি রাহুল দ্রাবিড়ের ছায়া দেখতে পাই কে এল রাহুলের মধ্যে। দ্রাবিড় সভ্যতার আদর্শ উদাহরণ হয়ে উঠেছে কে এল। দুজনেই কর্নাটকের। বেঙ্গালুরুর বাসিন্দা। দুজনেরই ঠাণ্ডা মাথার। দুজনেই প্রচন্ড ফোকাসড। কাইফ মনে করেন কে এল রাহুলের বর্তমান টেস্ট ক্রিকেটে অসাধারণ ফর্মের পেছনে অবদান আছে দ্রাবিড়ের।

    আরও পড়ুন - KL Rahul Centurion win : লর্ডসের পর সেঞ্চুরিয়নেও ব্যাটে দাপট! ম্যাচ সেরা হয়ে কী বললেন রাহুল?

    তার মনে হয় ক্রিকেট জীবনে দ্রাবিড় যেমন আদর্শ টিম ম্যান ছিলেন, যিনি দলের স্বার্থে উইকেট রক্ষা করেছেন, ওপেন করেছেন, মিডল অর্ডার সামলেছেন এবং অধিনায়কত্ব করেছেন। অনেকটা সেরকমই কে এল রাহুল। মূলত ব্যাটসম্যান হলেও আইপিএলে উইকেটকিপিং করেছেন। জাতীয় দলের হয়েও দায়িত্ব সামলেছেন উইকেটের পেছনে। অধিনায়কত্ব করেছেন।

    টি টোয়েন্টি ফরম্যাটে যেমন ওপেন করতে পারেন, তেমনই তিন বা চার নম্বরেও ব্যাট করার ক্ষমতা রাখেন। কাইফ মজা করে বলেছেন আর বোধহয় বিয়ের অর্ডার নেওয়া বাকি রাহুলের। তার প্রতিভা নিয়ে সন্দেহ ছিল না। জীবনে প্রথমবার টেস্ট ক্রিকেট খেলতে নেমেছিলেন অস্ট্রেলিয়ার মাটিতে। তাও আবার বক্সিং ডে। শতরান করে বুঝিয়ে দিয়েছিলেন নতুন নায়কের আবির্ভাব ঘটে গিয়েছে।

    টেকনিক, স্টাইল একেবারে নির্ভুল। সমস্যা ছিল মানসিকতায়। বড় ইনিংস খেলার মানসিক শক্তি যথেষ্ট ছিল না। মাঝের সময়টা বাদ পড়তে হয়। দেখে মনে হচ্ছে নিজের জীবনের সেরা ফর্মে আছেন। দ্বিতীয় ইনিংসে ভুল শট না খেললে আরও একটা বড় রান নিশ্চিত ছিল। রাহুল বলছেন টেস্ট ক্রিকেটে সফল হওয়ার মন্ত্র খুব সহজ। অফ স্টাম্পের বাইরের বল প্রথম এক ঘন্টা ছেড়ে যাও। লোভে পরে কভার ড্রাইভ করতে গেলেই বিপদ হতে পারে।

    নতুন বল বেশি মুভ করে। তাই সতর্ক থাকতে হয়। ঘন্টাখানেক পর পিচের চরিত্র বুঝে শট মারার ক্ষেত্রে সমস্যা অনেক কমে যায়। নিজের মনকে শান্ত থাকতে শিখিয়েছেন। মনের ওপর নিয়ন্ত্রণ এনেছেন। টেস্ট ক্রিকেট যে ধৈর্যের পরীক্ষা সেটা বুঝতে শিখেছেন।

    টি টোয়েন্টিতে তিনি ধুরন্ধর ব্যাটসম্যান হলেও টেস্ট ক্রিকেটে ধৈর্য এবং ইনিংস তৈরি করা আসল পরীক্ষা জানেন কর্নাটকের ব্যাটসম্যান। রাহুল মনে করছেন এই ফর্মুলা মেনেই সাফল্য এসেছে। রাহুল দ্রাবিড়ের সঙ্গে মহম্মদ কাইফ তুলনা টেনে সঠিক কাজ করেছেন কিনা, সেটা বোঝার জন্য আরও কয়েকটা বছর অপেক্ষা করতে হবে।

    Published by:Rohan Chowdhury
    First published:

    Tags: KL Rahul, Rahul Dravid

    পরবর্তী খবর