Home /News /south-bengal /
Rampurhat Case: সাবধান! নড়েচড়ে বসেছে পুলিশ! চিরুনি তল্লাশিতে কী কী উদ্ধার হচ্ছে জানেন?

Rampurhat Case: সাবধান! নড়েচড়ে বসেছে পুলিশ! চিরুনি তল্লাশিতে কী কী উদ্ধার হচ্ছে জানেন?

Rampurhat case: দেদার ধরপাকড় চলছে। জায়গায় জায়গায় তল্লাশি, গ্রেফতার। রাজ্যের পুলিশ এখন পুরোদমে সক্রিয়।

  • Share this:

#কলকাতা: মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের নির্দেশের পরেই পুলিশি তৎপরতায় ইতিমধ্যেই জেলার বিভিন্ন প্রান্ত থেকে উদ্ধার হচ্ছে বিপুল পরিমানে আগ্নেয়াস্ত্র, তাজা বোমা।

শনিবার সকালে সামশেরগঞ্জ থানার কোহেতপুর এলাকায় রাস্তার ধারের একটি জঙ্গল থেকে জার ভর্তি তাজা বোমা উদ্ধার করে পুলিশ। খবর দেওয়া হলে বম্ব স্কোয়াড টিম এসে বোমাগুলি নিষ্ক্রিয় করে।

আরও পড়ুন- চলন্ত ট্রেন থেকে খুলে গেল তিনটি কামরা! বড় দুর্ঘটনা থেকে রক্ষা ফলকনুমার

জনবসতিপূর্ণ এলাকায় বোমা উদ্ধারে রীতিমতো আতঙ্ক ছড়িয়েছে। কে বা কারা কী উদ্দেশ্যে এই বোমাগুলো মজুত রেখেছিল, তা খতিয়ে দেখতে তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ।

এদিন গোপন সূত্রে খবর পেয়ে শুক্রবার রাতে ফরাক্কা বেনিয়াগ্রাম স্বাস্থ্য কেন্দ্র সংলগ্ন এলাকায় অভিযান চালিয়ে এক ব্যক্তিকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। তল্লাশি চালিয়ে তার কাছ থেকে উদ্ধার হয় একটি আগ্নেয়াস্ত্র ও দুটি কার্তুজ।

ধৃতের নাম মতিউর সেখ। বাড়ি ফরাক্কার শ্রীরামপুর এলাকায়। পুলিশি হেফাজতের আবেদন জানিয়ে শনিবার ধৃতকে জঙ্গীপুর আদালতে তোলা হয়। কী উদ্দেশ্যে ওই ব্যক্তি আগ্নেয়াস্ত্র নিয়ে এলাকায় ঘোরাফেরা করছিল, তা খতিয়ে দেখছে ফরাক্কা থানার পুলিশ।

শুক্রবার রাতে পুলিশ গোপনসূত্রে খবর পেয়ে ইসলামপুর থানার হুড়সি অঞ্চলের দক্ষিণ চর গোপালপুর এলাকায় তল্লাশি চালায়। তার পরই এক যুবককে আটক করে পুলিশ। তার কাছ থেকে উদ্ধার হয় একটি ৭.৬ এম এম পিস্তল, দু রাউন্ড গুলি সহ একটি ম্যাগাজিন। ধৃতের নাম বিশু সেখ। বাড়ি ইসলামপুরের দক্ষিণ গোপালপুর এলাকায়। ধৃতকে শনিবার বহরমপুর জেলা জজ আদালতে তোলা হলে পাঁচ দিনের পুলিশ হেফাজতের আবেদন জানায় পুলিশ।

আরও পড়ুন- বগটুই পৌঁছল সিবিআই, পোড়া বাড়িত ঢুকে শুরু তদন্ত, চলছে নমনা সংগ্রহ

গোপন সূত্রে খবর পেয়ে মুর্শিদাবাদের দৌলতাবাদ থানার গিরীনগরের একটি আমবাগানে তল্লাশি চালান দৌলতাবাদ থানার দেবাশিষ ঘোষ সহ তার টিম। তল্লাশি চালিয়ে এক ব্যক্তিকে আটক করা হয়। ধৃতের কাছ থেকে উদ্ধার হয় একটি ওয়ান সাটার পিস্তল সহ এক রাউন্ড গুলি। ধৃত এবাদত সর্দার মুর্শিদাবাদ থানার বৈদ্যমাটি এলাকার বাসিন্দা বলে জানা যায়।

শুক্রবার রাতে খড়গ্রাম থানার কাশিয়াডাঙ্গা গ্রাম থেকে আগ্নেয়াস্ত্র ও কার্তুজ সহ এক ব্যাক্তিকে গ্রেপ্তার করল পুলিশ। তল্লাশি চালিয়ে একটি আগ্নেয়াস্ত্র ও দুই রাউন্ড গুলি উদ্ধার করেছে পুলিশ। ধৃতের নাম লাল মহম্মদ সেখ। ধৃতকে পুলিশ হেফাজতের আবেদন জানিয়ে শনিবার কান্দি মহকুমা আদালতে তোলা হয়।

শুক্রবার রাতেই বড়ঞা থানার খরজুনা অঞ্চলের ভবানীনগর গ্রামে মফিজুল খায়ের বাড়ি থেকে আগ্নেয়াস্ত্র সহ এক যুবককে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। তল্লাশি চালিয়ে একটি কার্তুজ ও এক রাউন্ড গুলি উদ্ধার করে পুলিশ। ধৃতের নাম বিরাজুল খা।

Published by:Suman Majumder
First published:

Tags: Bomb, Rampurhat Violence, West bengal Police

পরবর্তী খবর