কালনায় অভিনব কায়দায় দোকানে চুরির চেষ্টা, শেষে ধরা পড়ে গেল এক দুষ্কৃতী

কালনায় অভিনব কায়দায় দোকানে চুরির চেষ্টা, শেষে ধরা পড়ে গেল এক দুষ্কৃতী
রবিবার সকালে পূর্ব বর্ধমান জেলার কালনা থানার তালবোনা এলাকায় এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে চাঞ্চল্য সৃষ্টি হয়েছে।

রবিবার সকালে পূর্ব বর্ধমান জেলার কালনা থানার তালবোনা এলাকায় এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে চাঞ্চল্য সৃষ্টি হয়েছে।

  • Share this:

#কালনা: অভিনব কায়দায় দোকান থেকে টাকা চুরির চেষ্টা।কিন্তু একেবারে শেষ মুহূর্তে হাতেনাতে ধরা পড়ে গেল চোর। গণপিটুনির পর তাকে তুলে দেওয়া হয়েছে পুলিশের হাতে। রবিবার সকালে পূর্ব বর্ধমান জেলার কালনা থানার তালবোনা এলাকায় এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে চাঞ্চল্য সৃষ্টি হয়েছে।

সাত সকালে দোকানে খদ্দের সেজে এসে নাটকীয়ভাবে টাকা হাতিয়ে নিয়ে চম্পট দেওয়ার ফন্দি এঁটেছিল এক দুষ্কৃতী দল। টাকা নিয়ে পালানোর মুখে ধরা পড়ে যায় তাদেরই একজন। বাকিরা অবশ্য চম্পট দেয়। কালনার হাটকালনা পঞ্চায়েতের উত্তর গোয়ারার তালবোনা এলাকার রবিবার সকাল নটা নাগাদ এই ঘটনা ঘটে। সবে মুদিখানা দোকান খুলেছিলেন গৌতম দেবনাথ। দুষ্কৃতীরা আলাদা আলাদা ভাবে দোকানে ঢোকে জিনিসপত্র কেনার অছিলায়।

প্রথমে একজন সরষের তেল কিনতে চায়। পরে ফোনে কথাবার্তা বলে অন্য কোম্পানির তেল দিতে বলে। সেই সময় আর একজন জিনিসপত্র কিনে দু হাজার টাকার নোট ধরিয়ে দেয়। বাড়তি টাকা ফেরত দেওয়ার জন্য টাকার ব্যাগ খোলেন বিক্রেতা গৌতম বাবু। সে সময় অন্যজন সরষের তেলের কম দাম দিয়ে হাঁটা দেয়। সঠিক দাম আদায়ের জন্য দোকান ছেড়ে বেরিয়ে আসেন গৌতম বাবু। সেই সময় দু হাজার টাকার নোট ধরানো দুষ্কৃতী টাকার ব্যাগটি নিয়ে চম্পট দেওয়ার চেষ্টা করে। তখনই দোকানে ফিরে এসে ওই যুবককে হাতেনাতে ধরে ফেলেন বিক্রেতা গৌতমবাবু।


দোকানের মালিক গৌতম দেবনাথ বলেন,ওই যুবকরা যে টাকা লুট করার পরিকল্পনা করে দোকানে এসেছিল টাকা তা বুঝতে পারিনি। একজন কম দাম দিয়ে চলে যাচ্ছে দেখে তার পিছু নিই। সেই সময় দোকানে থাকা অন্যজন টাকার ব্যাগ নিয়ে বেরিয়ে যাচ্ছিল। ওই ব্যাগে প্রায় পঁয়তাল্লিশ হাজার টাকা ছিল। সময়মতো ফিরে না এলে সব টাকা নিয়ে তারা চম্পট দিত। তবে এর মাঝে বেশ কয়েক হাজার টাকা নিয়ে দুষ্কৃতীরা চম্পট দিয়েছে বলে অনুমান তাঁর।

ধৃতকে আটক করে গণধোলাই দেয় এলাকার বাসিন্দারা। বাকিদের অবশ্য হদিশ মেলেনি। সম্ভবত তারা মোটরসাইকেল এসেছিল এবং সেই মোটর সাইকেল নিয়ে তারা এলাকা ছাড়ে বলে অনুমান স্থানীয় বাসিন্দাদের। পুলিশ ওই যুবককে জেরা করে বাকিদের হদিশ পাবার চেষ্টা চালাচ্ছে।

Published by:Arka Deb
First published: