Home /News /south-bengal /
Sitalkuchi Firing: শীতলকুচি কাণ্ডের এক বছর, ৫/১২৬-এর রক্তাক্ত বুথের কথা মনে করে কাঁদল গ্রাম

Sitalkuchi Firing: শীতলকুচি কাণ্ডের এক বছর, ৫/১২৬-এর রক্তাক্ত বুথের কথা মনে করে কাঁদল গ্রাম

Sitalkuchi Incident: এখনও দোষী জওয়ানদের শাস্তি হল না! আক্ষেপ নিহতদের পরিবারের সদস্যদের।

  • Share this:

প্রবীর কুণ্ডু, কোচবিহার: দুচোখে জল। বার বার মনে পড়ছে ভোটের লাইনে দাঁড়িয়ে গুলিবিদ্ধ হয়ে ছেলে ও প্রতিবেশীদের রক্তাক্ত মৃত দেহ ছড়িয়ে ছিটিয়ে পড়ে থাকার ভয়াবহ দৃশ্য। শীতলকুচি। জোরপাটকির  ৫/১২৬ এর রক্তাক্ত বুথ।

আজও দগদগে স্মৃতি। সেই ঘটনার এক বছর। শহিদ দিবস পালন করল জোরপাটকি৷ শহিদ দিবসের মঞ্চের সামনে দাঁড়িয়ে অঝোরে কাঁদছেন আমজাদ হোসেন৷ সেদিন প্রাণ হারানো মনিরুজ্জামানের বাবা তিনি। কাঁদল আরও তিন জন নিহতের পরিবার।

আরও পডুন- সাংঘাতিক! কর্তব্যরত সিভিক ভলান্টিয়ারের সঙ্গে এ কী করল যুবক! শুনলে চমকে যাবেন

২০২১ সালের ১০ এপ্রিল  বিধানসভা নির্বাচনের দিন রক্তাক্ত হয়েছিল ৫/১২৬ নম্বর বুথ৷ ভয়াবহ সেই দিনের এক বছর আজ৷ কেন্দ্রীয় বাহিনীর জওয়ানদের গুলিতে তরতাজা চারজন গ্রামবাসী প্রাণ হারান সেদিন। সেউ স্মৃতি আঁকড়ে আজ শহিদ দিবস পালিত হল৷

অভিযুক্ত কেন্দ্রীয় বাহিনীর জওয়ানদের শাস্তির দাবি তুলেছেন নিহতদের পরিবারের সদস্যরা৷ ৫/১২৬ নম্বর বুথে সেই স্কুল মাঠে তৈরি হয়েছে শহিদ দিবসের মঞ্চ৷ শহিদ স্মৃতি রক্ষা কমিটির উদ্যোগে এই দিনটি পালিত হবে।

সেদিন নিহত চার জন-  মনিরুজ্জামান, হামিদুল মিঞা, ছামিউল হক ও নুর আলম মিঞা। এদিকে এই বিধানসভা কেন্দ্রের পাঠানটুলিতেও শহিদ দিবস পালন করে তৃণমূল কংগ্রেস৷ নির্বাচনের দিন সেই বুথেও রাজনৈতিক সংঘর্ষে  প্রাণ হারিয়েছিলেন আনন্দ বর্মন। দুই এলাকায় শহিদ দিবস অনুষ্ঠানে তৃণমূল কংগ্রেসের নেতৃত্ব উপস্থিত ছিলেন৷

উল্লেখ্য ১০ এপ্রিল বিধানসভা নির্বাচনের চতুর্থ দফায় শীতলকুচির জোরপাটকি বুথে কেন্দ্রীয় বাহিনীর জওয়ানদের গুলিতে প্রাণ গিয়েছিল চার জনের৷ সেই ঘটনাতে সিআইডি তদন্ত শুরু হয়েছে। তবে অভিযুক্ত জওয়ানরা এখনও শাস্তি পাননি।

আরও পড়ুন- জন্মদিনে প্রেমিকাকে মদ খাইয়ে ধর্ষণ! মৃত্যু নাবালিকার, পলাতক অভিযুক্ত প্রেমিক

ঘটনার পরে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় মাথাভাঙ্গায় এসে  জোরপাটকি ও পাঠানটুলির নিহতদের পরিবারের সদস্যদের সরকারি চাকরির আশ্বাস দেন। পরবর্তীতে পরিবারগুলির সদস্যদের চাকুরিতে নিয়োগ প্রক্রিয়া শুরু হয়েছে৷ তবে অপরাধীরা এখনও অধরা। আজ শহিদ দিবসে পরিবারের সদস্যদের হাতে শাল উত্তরীয় তুলে দিয়ে সমবেদনা জানান উত্তরবঙ্গ উন্নয়ন পর্ষদের চেয়ারম্যান রবীন্দ্রনাথ ঘোষ৷

Published by:Suman Majumder
First published:

Tags: Sitalkuchi, Sitalkuchi Violence

পরবর্তী খবর