হোম /খবর /দক্ষিণবঙ্গ /
শিক্ষিকা হয়েছি ২০০৬-এ, পড়ুয়াদের শুভেচ্ছাবার্তায় যা লিখলেন কাউন্সিলর,কাঁপল বাংলা

Teacher Recruitment|| শিক্ষিকা হয়েছি ২০০৬ সালে, পড়ুয়াদের শুভেচ্ছাবার্তায় যা লিখলেন কাউন্সিলর, কেঁপে গেল গোটা বাংলা

কাউন্সিলর চৈতালি ভট্টাচার্য

কাউন্সিলর চৈতালি ভট্টাচার্য

Teacher Recruitment: উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষার্থীদের শুভেচ্ছা বারাসতের ২৮ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর চৈতালি ভট্টাচার্য তার শুভেচ্ছা বার্তার পর উল্লেখ করেছেন শিক্ষিকা (ব্রাকেটে ২০০৬ এর নিয়োগ)।

  • Share this:

বারাসত: রাজ্যে নিয়োগ দুর্নীতি হলেও, তিনি স্বচ্ছ এবং সঠিক যোগ্যতায় পেয়েছেন বিদ্যালয়ে চাকরি, তা বোঝাতে এ বার অভিনব প্রচারপত্র জনপ্রতিনিধির। সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হওয়া সেই প্রচার পত্র দেখেই উঠছে এখন নানা প্রশ্ন।

জানা গিয়েছে, উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষার্থীদের শুভেচ্ছা জানাতে বারাসতের ২৮ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর চৈতালি ভট্টাচার্য তার শুভেচ্ছা বার্তার পর উল্লেখ করেছেন নিয়োগের সাল। স্বাভাবিকভাবেই বিষয়টি নিয়ে শুরু হয়েছে ব্যাপক চর্চা। একজন কাউন্সিলর হয়ে কেন ২০০৬ নিয়োগের কথা উল্লেখ করলেন তিনি!

আরও পড়ুনঃ কোটি কোটি ব্যয়ে অশোকনগরে হবে ইকো ট্যুরিজম, পর্যটনের মাধ্যমে রাজ্যে কর্মসংস্থানের দিশা

জানা গিয়েছে, ২৮ নম্বর ওয়ার্ডে তৃণমূল কংগ্রেসের প্রতিদ্বন্দ্বী যাকে তিনি হারিয়ে ছিলেন পৌর নির্বাচনে, সেই দোলন বিশ্বাসের চাকরি যাওয়ার তালিকায় নাম বেরিয়েছিল গত সপ্তাহে। তারপরই এ রকম ভাবে নিয়োগের তারিখ উল্লেখ করে সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করা স্বাভাবিকভাবেই দোলনকে চৈতালির দেওয়ার জবাব বলে মনে করছেন এলাকার অনেকে। যদিও চৈতালি ভট্টাচার্য স্পষ্ট জানান, তিনি মনে করেন যে গত কয়েক বছরে যারা পরীক্ষা দিয়ে চাকরি পেয়েছেন, তার মধ্যে যোগ্যতা দেখিয়ে চাকরি পেয়েছেন এ রকম সংখ্যাও প্রচুর। সকলেই তো আর বাঁকা পথে চাকরি পাননি।

চৈতালি আরও বলেন, আমার ওয়ার্ড বা এলাকার মানুষ জানুক তাদের নির্বাচিত প্রার্থী চৈতালি আসলে কেমন। নিজের স্বচ্ছতার বিষয়ে বেশি করে তুলে ধরতেই চৈতালী ভট্টাচার্য এমন পোস্ট করেছেন। পৌর নির্বাচনে যদিও চৈতালি নির্দল হয়েই দাঁড়িয়েছিলেন বলে জানা গিয়েছে। পোস্টটি নিয়েও সোশ্যাল মিডিয়ায় চলছে জোর চর্চা।

Rudra Narayan Roy

Published by:Shubhagata Dey
First published:

Tags: Barasat, Higher Secondary 2023