Home /News /south-bengal /
মর্মান্তিক! কানে ইয়ার ফোন লাগিয়ে রেললাইন পার হতে গিয়ে ফের অসতর্কতার বলি এক

মর্মান্তিক! কানে ইয়ার ফোন লাগিয়ে রেললাইন পার হতে গিয়ে ফের অসতর্কতার বলি এক

মৃত ব্যক্তির নাম বাবুলাল মান্না। বাড়ি কালনার কালীনগর গ্রামে। শনিবার দুপুরে তিনি জালুইডাঙায় পরিচিত এক ব্যক্তির কাছে যাওয়ার কথা জানিয়ে বাড়ি থেকে বের হন।

  • Share this:

#জালুইডাঙ্গায়: অসতর্কতার বলি ৪৫ বছরের এক ব্যক্তি। সতর্ক না থাকায় প্রাণই চলে গেল। ফোনে কথা বলতে বলতে রেল লাইন পার হচ্ছিলেন তিনি। ট্রেনের হর্ন বা শব্দ কিছুই শুনতে পাননি। ট্রেনের ধাক্কায় মৃত্যু হল। পূর্বস্থলীর জালুইডাঙ্গায় এই ঘটনা ঘটেছে।

মৃত ব্যক্তির নাম বাবুলাল মান্না। বাড়ি কালনার কালীনগর গ্রামে। শনিবার দুপুরে তিনি জালুইডাঙায় পরিচিত এক ব্যক্তির কাছে যাওয়ার কথা জানিয়ে বাড়ি থেকে বের হন। জালুইডাঙা রেল স্টেশনে পৌঁছে গিয়েছিলেন নির্বিঘ্নেই।

আরও পড়ুন: ভয়ঙ্কর কাণ্ড! ভোর রাতে বাড়ির মধ্যে ঢুকে গেল বালি বোঝাই ১০ চাকার ডাম্পার

সে সময় একটি ফোন কল তাঁর জীবন কেড়ে নিল। জালুইডাঙা স্টেশনে পৌঁছনোর পর পরিচিত সেই ব্যক্তির বাড়ি থেকে ফোন এসেছিল। ইয়ার ফোনে তিনি কথা বলতে বলতে রেল লাইন পার হচ্ছিলেন। সে সময় আচমকা একটি লোকাল ট্রেন তাঁকে ধাক্কা মারে। ঘটনাস্থলেই তাঁর মৃত্যু হয়। এই ঘটনায় এলাকায় শোকের ছায়া নেমে এসেছে।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, ওই ব্যক্তি ফুট ওভার ব্রিজ না ব্যবহার না করে রেল লাইন পার হয়ে এক প্ল্যাটফর্ম থেকে অন্য প্ল্যাটফর্মে যাচ্ছিলেন। ফোনে কথা বলার জন্যই তিনি সতর্ক ছিলেন না। দূর থেকে দেখে অনেকেই তাঁকে সতর্ক করার চেষ্টা করেন। কিন্তু এক লহমায় এই ঘটনা ঘটে যায়। মৃতদেহ ময়না তদন্তের জন্য কালনা মহকুমা হাসপাতালের পুলিশ মর্গে পাঠিয়েছে পুলিশ।

আরও পড়ুন: দামোদরে নৌকাডুবি, ভেসে উঠল একজনের দেহ, নিখোঁজ আরও এক

রেলের এক আধিকারিক জানান, ফুট ওভার ব্রিজ থাকা সত্ত্বেও অনেকেই ঝুঁকি নিয়ে রেল লাইন পারাপার করেন। তার ফলে বার বার দুর্ঘটনা ও প্রাণহানি ঘটে। বার বার রেলের পক্ষ থেকে যাত্রীদের এ ব্যাপারে সচেতন করতে মাইকিং করা হয়। ধরপাকড় চালায় রেল পুলিশ। এই সব পদক্ষেপ নজরদারি বাড়ানোর ফলে এখন রেল লাইন পারাপারের প্রবণতা অনেকটাই অনেকটাই কমেছে। তার মধ্যেই এই ঘটনা ঘটে গেল। রেল পুলিশ ঘটনার তদন্ত করছে।

Published by:Teesta Barman
First published:

Tags: Burdwan news, Earphones, Train Accident

পরবর্তী খবর