• Home
  • »
  • News
  • »
  • south-bengal
  • »
  • পরিবারের সম্মান রক্ষার স্বার্থে দিদিকে গুলি করে খুন করল ভাই

পরিবারের সম্মান রক্ষার স্বার্থে দিদিকে গুলি করে খুন করল ভাই

রিষড়ায় দিদিকে গুলি করে খুন করল ভাই। কেন খুন, সেবিষয়ে নিহতের পরিবারের কেউ মুখ না খুললেও, প্রতিবেশীদের দাবি প্রেমের সম্পর্ক মেনে নিতে না পারার কারণেই যুবতীকে খুন করা হয়েছে।

রিষড়ায় দিদিকে গুলি করে খুন করল ভাই। কেন খুন, সেবিষয়ে নিহতের পরিবারের কেউ মুখ না খুললেও, প্রতিবেশীদের দাবি প্রেমের সম্পর্ক মেনে নিতে না পারার কারণেই যুবতীকে খুন করা হয়েছে।

রিষড়ায় দিদিকে গুলি করে খুন করল ভাই। কেন খুন, সেবিষয়ে নিহতের পরিবারের কেউ মুখ না খুললেও, প্রতিবেশীদের দাবি প্রেমের সম্পর্ক মেনে নিতে না পারার কারণেই যুবতীকে খুন করা হয়েছে।

  • Share this:

    #রিষড়া: রিষড়ায় দিদিকে গুলি করে খুন করল ভাই। কেন খুন, সেবিষয়ে নিহতের পরিবারের কেউ মুখ না খুললেও, প্রতিবেশীদের দাবি প্রেমের সম্পর্ক মেনে নিতে না পারার কারণেই যুবতীকে খুন করা হয়েছে। ঘটনার পর থেকে পলাতক অভিযুক্ত। পরিবারের সম্মান রক্ষায় স্বার্থে ফের খুন রাজ্যে? রিষরায় ভাইয়ের হাতে দিদির খুনের ঘটনা ফের তুলল এই প্রশ্ন। রিষড়ার নয়াবস্তি এলাকার বাসিন্দা নিতু সিং। বাড়িতে বাবা, মা, এক বোন ও দুই ভাইয়ের সঙ্গে থাকতেন তিনি। সোমবার গভীর রাতে ভাই অমিত সিং-এর সঙ্গে তাঁর বচসা বাঁধে। এরপরই অমিত দিদির মাথায় গুলি করে বলে অভিযোগ। নিতুকে শ্রীরামপুর ওয়ালস হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হলে, তাঁকে মৃত ঘোষণা করেন চিকিৎসকরা। কিন্তু কী কারণে খুন? এবিষয়ে মুখ খুলতে চাননি নিহতের পরিবারের কেউই। যদিও প্রতিবেশীদের দাবি, পরিবারের সম্মান রাখতে নিতুর সঙ্গে স্থানীয় যুবকের প্রেমের সম্পর্ক মেনে নিতে পারেনি অমিত। যে কারণে মাঝেমধ্যেই বাড়িতে অশান্তি লেগে থাকত বলে জানান প্রতিবেশীরা। কেউ কেউ আবার জানিয়েছেন, অসামাজিক কাজকর্মে জড়িয়ে পড়ে অমিত। পয়সার অভাব থাকায় মাঝেমধ্যেই বাড়িতে অশান্তি করত সে। যে রাগ উগরে দিয়েছে দিদির ওপর। মুখ খুলতে না চাইলেও, শ্রীরামপুর থানায় খুনের অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে নিহতের পরিবারের তরফেই।

    First published: