Home /News /purba-medinipur /
Purba Medinipur: বয়স একটা সংখ্যা মাত্র! ১০২ বছর বয়সেও সবকিছুতেই সাবলীল এক বৃদ্ধ

Purba Medinipur: বয়স একটা সংখ্যা মাত্র! ১০২ বছর বয়সেও সবকিছুতেই সাবলীল এক বৃদ্ধ

title=

বয়সটা শুধুমাত্র সংখ্যা মাত্র,দেখলে কে বলবে বয়স একশো পেরিয়ে গেছে,সারাদিনের কাজের বহর দেখলে মনে হবে তিনি এখনো যেন প্রানবন্ত যুবক।

  • Share this:

    পূর্ব মেদিনীপুর: বয়সটা শুধুমাত্র সংখ্যা মাত্র,দেখলে কে বলবে বয়স একশো পেরিয়ে গেছে,সারাদিনের কাজের বহর দেখলে মনে হবে তিনি এখনো যেন প্রানবন্ত যুবক। হলদিয়া শিল্পশহর লাগোয়া দেভোগ গ্ৰাম পঞ্চায়েতের কিসমত শিবরামনগর গ্ৰামের বাসিন্দা পরেশচন্দ্র বেতাল। জন্ম ১৩২৭ বঙ্গাব্দের জৈষ্ঠ্য মাসে। বাবা ক্ষুদিরাম বেতাল, শিক্ষকতা করতেন। মা গিরিবালা বেতাল। চার বোন,এক ভাই। পরেশবাবু ছিলেন বাড়ির বড় ছেলে। বাবা, মা মারা যাওয়ার পর থেকেই সংসারের হাল ধরতে হয়। পড়াশোনা খুব বেশি করা হয়নি। ছোট থেকেই কঠোর পরিশ্রম করতে হয়েছে। চার বোন সকলেই প্রয়াত, কিন্তু তিনি আজও লড়াই করে চলেছেন। পরেশচন্দ্র বাবুর দুই ছেলে দুই মেয়ে। কয়েকবছর আগে এক ছেলে পথ দূর্ঘটনায় মারা যায়। বর্তমানে এক ছেলে ও দুই মেয়ে রয়েছে। নাতি-নাতনি মিলিয়ে পরিবারে সদস‍্য সংখ্যা সাত থেকে আট জন।

    পরেশবাবু কোন বাঁধা-ধরা কাজ করেন না। ধান, সবজি চাষ থেকে পান বোরজের কাজ কমবেশী সব ধরনের কাজ করেন। এক সময় পাড়া গাঁয়ের ঘর ছাওয়া থেকে মাটি কাটার কাজ করেছেন। এখন বয়স হয়েছে তাই ভারী কাজ আর করতে পারেন না।

    আরও পড়ুনঃ পরিষেবা পৌঁছে দিতে দুয়ারে চেয়ারম্যান কর্মসূচি

    বাড়ির লোকের হাজার বাধা উপেক্ষা করেও তিনি কখনো ঘাস কাটছেন তো কখনো আবার জ্বালানী গোছাতে ব‍্যস্ত। পরেশবাবু স্ত্রী রাধারাণী প্রায় ১৫ বছর আগে তাকে ছেড়ে চলে গেছেন। রোজ ভোর ভোর ঘুম থেকে উঠে আগে ঠাকুর নাম করে মুখ ধুয়ে প্রথম রেডিও তে খবর শোনেন। এরপর নিজেই পান ভেঙে খেয়ে চেবাতে চেবাতে কাজে লেগে পড়েন।

    আরও পড়ুনঃ সুতাহাটাতে গাছের গুঁড়ি ফেলে রাস্তা অবরোধ এলাকাবাসীর! কী কারণ?

    এই গরমের সময় সকালে কম রোদ্দুরে কাজ করে ফেলেন। বেলা গড়ালে রোদ্দুর বাড়ে, আর কাজ করতে পারেন না। তিনি বলেন \"কাজ না করে বসে থাকতে পারি না\"

      Saikat Shee
    First published:

    Tags: Haldia, Purba medinipur

    পরবর্তী খবর