Home /News /off-beat /
Flight tickets In Cheap Rate: সাধ্যের বাইরে বিমানসফর? এই সব উপায়ে কম দামে পেতে পারেন উড়ানের টিকিট

Flight tickets In Cheap Rate: সাধ্যের বাইরে বিমানসফর? এই সব উপায়ে কম দামে পেতে পারেন উড়ানের টিকিট

Flight Tickets In Cheap Rate: অনেক সময় আবার সরাসরি ফ্লাইটের তুলনায় সেই ব্রেক জার্নিতে কম টাকা খরচ হতে পারে।

  • Share this:
#নয়াদিল্লি: উড়ানে কোথাও বেড়াতে যাওয়ার টিকিট কাটার আগে কিছু বিষয় মাথায় রাখতে হয়। কম খরচেও পাওয়া যায় বিমানের টিকিট। দেখে নেওয়া যাক, কী কী বিষয় মাথায় রেখে চললে সস্তায় কাটা যাবে টিকিট।
গন্তব্য-
যে জায়গায় ফ্লাইটে যেতে চান বা গন্তব্য অনুযায়ী ফ্লাইটের টিকিটের দাম নির্ধারিত হয়। এমন অনেক জায়গা রয়েছে, যেখানে সরাসরি ফ্লাইট নেই। অন্য কোনও জায়গায় গিয়ে তবেই সেই জায়গার ফ্লাইট ধরতে হয়। এর ফলে ব্রেক জার্নি করার দরকার পড়ে। অনেক সময় আবার সরাসরি ফ্লাইটের তুলনায় সেই ব্রেক জার্নিতে কম টাকা খরচ হতে পারে।
ভাড়ার পরিবর্তন-
করোনার পর থেকে বিভিন্ন ধরনের এয়ারলাইনস্ তাদের যাত্রীদের এই ধরনের অফার দিচ্ছে। সময় অনুযায়ী ভাড়ার পরিবর্তন সম্পর্কে আপ-টু-ডেট থাকলে কম দামে ফ্লাইটের টিকিট পাওয়া যেতে পারে।
আলাদা আলাদা দাম-
পরিবারের সঙ্গে অথবা অন্যদের সঙ্গে বিমানে ওঠার আগে একসঙ্গে ফ্লাইটের টিকিট খোঁজার চেয়ে আলাদা আলাদা ফ্লাইটের টিকিট বুকিং করলে বেশি লাভ হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। ধরা যাক, পরিবারের চার জনের জন্য একসঙ্গে ফ্লাইটের টিকিট খোঁজা হচ্ছে, তাতে একটার দাম ২৯,৭৭২ টাকা হতে পারে। সেটি আলাদা আলাদা ভাবে করলে একটার দাম পড়বে ২৩,৮১৭.৬০ টাকা।
বিজনেস ক্লাস-
করোনার পর থেকে বিভিন্ন ধরনের এয়ারলাইনস্ কোম্পানি তাদের বিজনেস ক্লাসের ভাড়া কিছুটা কমিয়ে দিয়েছে। একসঙ্গে রাউন্ড ট্রিপের ফ্লাইটের টিকিট বুকিং করলে সেই ভাড়া আরও কিছুটা কম হয়। বিজনেস ক্লাসে ইউরোপে রাউন্ড ট্রিপের ভাড়া হল ১,৩৩,৯৭৪ টাকা।
সময়-
ফ্লাইট বুকিং করার সময় মাথায় রাখতে হবে যে, কম করে ২১ দিন আগে ফ্লাইট বুকিং করলে টিকিটের দাম কিছুটা কম হতে পারে। ধরা যাক, ২১ দিন আগে বুকিং করলে যে ফ্লাইটের টিকিটের দাম পড়বে ৩৬,৩৯৬.২৭ টাকা। ২৪ ঘণ্টা আগে সেই টিকিট বুকিং করলে তার দাম পড়বে প্রায় ৪৬,৮৯০.৯০ টাকা।
শেষ মুহূর্তের রিওয়ার্ড-
বিভিন্ন ধরনের এয়ারলাইনস্ কোম্পানি শেষ মুহূর্তের ফ্লাইটের টিকিট বুকিংয়ের উপরে বিভিন্ন ধরনের রিওয়ার্ড দিয়ে থাকে।
ফ্রিডম ফ্লাইট-
বিভিন্ন ধরনের এয়ারলাইনস্ কোম্পানি দুই দেশের মধ্যে পঞ্চম ফ্রিডম ফ্লাইটের জন্য বিভিন্ন ধরনের অফার দিয়ে থেকে।
ব্যাগেজ ফি-
ফ্লাইটের টিকিট বুকিংয়ের সময় ব্যাগেজ ফি-এর দিকে বিশেষ নজর দেওয়া দরকার। যাতে অতিরিক্ত ফি দিতে না-হয়, সে দিকে লক্ষ্য রাখতে হবে।
বিভিন্ন ধরনের অফার-
ফ্লাইটের টিকিট বুকিংয়ের সময় বিভিন্ন ধরনের অফারের দিকে নজর রাখা দরকার। বিভিন্ন ধরনের এয়ারলাইনস্ কোম্পানি বিভিন্ন ধরনের ফ্লাইটে বিভিন্ন ধরণের অফার দিয়ে থাকে।
Published by:Suman Majumder
First published:

Tags: Flight, Flight service, Flight Ticket Rate, Flights

পরবর্তী খবর