উত্তরবঙ্গ

corona virus btn
corona virus btn
Loading

রায়গঞ্জে শুভেন্দু অধিকারীর পোষ্টারকে ঘিরে তৃণমূলের গোষ্ঠী দ্বন্দ্ব প্রকাশ্যে

রায়গঞ্জে শুভেন্দু অধিকারীর পোষ্টারকে ঘিরে তৃণমূলের গোষ্ঠী দ্বন্দ্ব প্রকাশ্যে

গতকাল রায়গঞ্জ ব্লকের গৌরি গ্রাম পঞ্চায়েতের এলাকায় সদ্য বিজেপিতে যোগ দেওয়া শুভেন্দু অধিকারীর ছবি দিয়ে দাদার অনুগামীর নামে পোষ্টারে ছেয়ে যায়।

  • Share this:

Uttam Paul

#রায়গঞ্জ: রায়গঞ্জ পঞ্চায়েত সমিতির সদস্য রেজাউল হকের সৌজন্যে শুভেন্দু অধিকারীর ছবি দিয়ে দাদার অনুগামী বলে পোষ্টার। রেজাউল হক অবশ্য এ বিষয়ে কিছুই জানেন না বলে জানিয়েছেন। তার অভিযোগ তৃণমূল কংগ্রেসের রায়গঞ্জ ব্লক সভাপতির মদতেই দলের কাছে তাঁকে হেয় করতে দাদার অনুগামীর নামে পোষ্টার লাগানো হয়েছে। তিনি জানার পরই পোষ্টার খুলে দিয়ে আগুন দিয়ে পুড়িয়ে দিয়েছেন। পঞ্চায়েত সমিতির সদস্য রেজাউল হক ব্লক সভাপতির বিরুদ্ধে গুরুতর অভিযোগ আনলেও সেই অভিযোগকে আমল দেননি ব্লক সভাপতি মানস ঘোষ।

মানসবাবুর দাবি, তাঁদের ব্লকে দাদার অনুগামী বলে কেউ নেই। দলের মধ্যে বিরোধ বাধাতেই বিরোধীরা এ ধরনের চক্রান্ত করছে। বিজেপি জেলা সভাপতি বিশ্বজিৎ লাহিড়ির দাবি, তৃণমূল কংগ্রেসের অভ্যন্তরীণ কোন্দলকে তাঁদের ঘাড়ে চাপাতে চাইছে। গৌরি এলাকায় তাঁদের এই কাজ করার প্রয়োজন নেই। মানুষ তাঁদের প্রতি বিতশ্রদ্ধ হয়ে পড়েছে।

গতকাল রায়গঞ্জ ব্লকের গৌরি গ্রাম পঞ্চায়েতের এলাকায় সদ্য বিজেপিতে যোগ দেওয়া শুভেন্দু অধিকারীর ছবি দিয়ে দাদার অনুগামীর নামে পোষ্টারে ছেয়ে যায়। সৌজন্যে রেজাউল হকের নাম উল্লেখ করা হয়েছে। রেজাউল হক রায়গঞ্জ পঞ্চায়েত সমিতির তৃণমূল কংগ্রেসের সদস্য। এই পোষ্টারকে ঘিরে শুরু হয়েছে জোর বিতর্ক। রেজাউল হক এই পোষ্টার দেখার পরই সেই পোষ্টার গুলো খুলে দিয়ে আগুনে পুড়িয়ে দেন। রায়গঞ্জ পঞ্চায়েত সমিতির সভাপতির মানস ঘোষের সঙ্গে পঞ্চায়েত সমিতির সদস্য রেজাউল হকের বিবাদ চরমে পৌঁছেছে। রেজাউল হকের অভিযোগ, দলের কাছে তাঁকে হেয় করতেই এই নোংরা খেলায় নেমেছে ব্লক সভাপতি।

ব্লক সভাপতি মানস ঘোষ এই অভিযোগ মানতে চাননি। তাঁর দাবি দলের মধ্যে কোনও বিরোধ নেই। দলের নেতাদের মধ্যে বিবাদ তৈরী করতেই বিরোধীরা এ ধরনের কাজ করছে। বিজেপি এই অভিযোগ মানতে চায়নি।বিজেপি জেলা সভাপতি বিশ্বজিৎ লাহিড়ির অভিযোগ, তৃণমূল কংগ্রেসের অভ্যন্তরীণ বিবাদের জন্য এই পোষ্টার। গোষ্ঠী দ্বন্দ্বে জর্জরিত তৃণমূল কংগ্রেস। নিজেদের বিবাদ তাঁদের ঘাড়ে চাঁপিয়ে দিয়ে দায় সারতে চাইছে দলের নেতা।

Published by: Simli Raha
First published: January 2, 2021, 9:48 AM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर