Home /News /north-bengal /
West Bengal Chaa Sundari Scheme: চা সুন্দরী প্রকল্পে রাজ্য সরকার উত্তরবঙ্গের চা বাগানে ৩০০০ বাড়ি তৈরি করতে চলেছে

West Bengal Chaa Sundari Scheme: চা সুন্দরী প্রকল্পে রাজ্য সরকার উত্তরবঙ্গের চা বাগানে ৩০০০ বাড়ি তৈরি করতে চলেছে

West Bengal Chaa Sundari Scheme: একাধিক বাড়ির কাজ শেষ আলিপুরদুয়ার জেলায়। 

  • Share this:

আবীর ঘোষাল, আলিপুরদুয়ার: চা সুন্দরী প্রকল্পের আওতায় রাজ্য সরকার উত্তরবঙ্গের চা বাগানে ৩,০০০টি বাড়ি তৈরি করবে। আলিপুরদুয়ার জেলা প্রশাসন ইতিমধ্যেই চা সুন্দরী প্রকল্পের জন্য পাঁচটি চা বাগান বেছে নিয়েছে যার অধীনে রাজ্য সরকার ৩,০০০-এরও বেশি বাড়ি তৈরি করছে। পশ্চিমবঙ্গ সরকার ২০২০ সালে চা সুন্দরী প্রকল্প চালু করেছিল, যেখানে চা শ্রমিকদের বাড়ি দেওয়া হবে। এছাড়াও এই প্রকল্পের অধীনে, চা শ্রমিকদের মধ্যে ভর্তুকি হারে রেশন বিতরণ করা হবে (West Bengal Chaa Sundari Scheme)।

যে পাঁচটি চা বাগানে সরকারিভাবে বসতবাড়ি তৈরি করা হবে তার মধ্যে রয়েছে লঙ্কাপাড়া, দেইখালাপাড়া, তোর্সা, মুজনাই এবং রহিমপুর। রাজ্য সরকার জানিয়েছে এবার চা বাগানের শ্রমিকরাও জমির অধিকার পাবে। আলিপুরদুয়ার জেলা শাসক সুরেন্দ্র মীনা বলেছেন যে পানীয় জল, বিদ্যুৎ, রাস্তা সংযোগ, খেলার মাঠ এবং সামাজিক পরিকাঠামো-সহ অন্যান্য সমস্ত মৌলিক সুবিধা রাজ্য সরকারের বিভিন্ন বিভাগ দেবে। তিনি আরও বলেন, “এই চা বাগানের শ্রমিকরা জমির অধিকার-সহ বিনামূল্যে বাড়ি পাবেন।”

আরও পড়ুন-গোমন্তকের হাতেই কি গোয়ার জাদুদণ্ড! আলোচনার আলোয় এখনই উজ্জ্বল সুধিন ধাওয়ালিকর

এই প্রকল্পটি চা বাগান এলাকার মহিলাদের এবং তফশিলি উপজাতি সম্প্রদায়ের জন্যও এর সুবিধাগুলি প্রসারিত করবে ৷ ‘চা সুন্দরী' প্রকল্পের লক্ষ্য হল উত্তরবঙ্গের অসুস্থ ও বন্ধ বাগানে চা বাগানের শ্রমিকদের বাড়ি দেওয়া এবং ২০২০ সালে রাজ্যের বাজেট পেশ করার সময় তৎকালীন রাজ্যের অর্থমন্ত্রী অমিত মিত্র ঘোষণা করেছিলেন। ৫০০ টাকার একটি কর্পাস প্রকল্পের জন্য কোটি টাকা বরাদ্দ করা হয়েছে।

এই প্রকল্পের অধীনে, যা মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের মস্তিষ্কপ্রসূত। প্রতিটি আবাসিক ইউনিটে দুটি ঘর, একটি রান্নাঘর, একটি টয়লেট এবং একটি বারান্দা রয়েছে। এই একতলা ইউনিটগুলির আচ্ছাদিত এলাকা ৩৯৪ বর্গফুট এবং খরচ প্রায় ৫.৪৩ লক্ষ টাকা ৷

আরও পড়ুন-বিরল জেনেটিক কন্ডিশন ! সারাদিনই ক্ষুধার্ত বোধ করে ১০ বছর বয়সী এই ছেলে

চা শিল্পের বাজার আর্থিক ভাবে করুণ অবস্থার সাক্ষী হওয়ার সঙ্গে সঙ্গে উত্তরবঙ্গের অনেক চা বাগান লোকসানের মুখে পড়েছে, তাদের অসুস্থ করে তুলেছে। এক কর্মকর্তা বলেছেন, ‘‘এই অসুস্থ এস্টেটগুলি চা সুন্দরী স্কিমের প্রধান কেন্দ্রবিন্দু হবে, এবং চা শ্রমিকদের জমির অধিকার-সহ তাদের প্রাপ্য ইউনিট সরবরাহ করা হবে।” ধাপে ধাপে উত্তরবঙ্গের বাকি চা বাগান এলাকাতেও বাড়ির কাজ সম্পূর্ণ হবে বলে জানিয়েছেন উত্তরবঙ্গ উন্নয়ন মন্ত্রী।

Published by:Siddhartha Sarkar
First published:

Tags: West Bengal Government

পরবর্তী খবর