৫০০ ছুঁইছুঁই করোনা আক্রান্ত, এবার সরকারি পথসাথীতে-ও সংক্রমিতদের রাখার ব্যবস্থা

পথসাথীর দোতলায় একাধিক ঘরে প্রায় ২৫ জনের থাকার ব্যবস্থা রয়েছে। এছাড়া এক তলায় রয়েছে ডরমেটরি।

পথসাথীর দোতলায় একাধিক ঘরে প্রায় ২৫ জনের থাকার ব্যবস্থা রয়েছে। এছাড়া এক তলায় রয়েছে ডরমেটরি।

  • Share this:

#মালদহ:  এবার মালদহের সরকারি "পথসাথী"-তেও হবে কোভিড আক্রান্তদের চিকিৎসা। মালদহ শহরের নারায়ণপুরে ৩৪ নম্বর জাতীয় সড়কের ধারে সরকারি পথসাথী ভবনটিকে আক্রান্তদের রাখার জন্য প্রস্তুত করা হয়েছে। পথসাথীর দোতলায় একাধিক ঘরে প্রায় ২৫ জনের থাকার ব্যবস্থা রয়েছে। এছাড়া এক তলায় রয়েছে ডরমেটরি। সেখানেও অনেকেই থাকতে পারবেন। মূলত কোয়ারেন্টাইন সেন্টার হিসেবে পথসাথী ব্যবহার করা হবে।

মালদহে পুলিশ ও প্রশাসনের অনেকে কোভিড আক্রান্ত। অনেকে এখন রয়েছেন হোম কোয়ারেন্টাইনে। তাঁদের কথা ভেবেই পথসাথীকে প্রস্তুত করা হয়েছে। এদিকে গত ২৪ ঘণ্টায় মালদহে নতুন করে করোনা আক্রান্ত হলেন আরও ২৪ জন। এদের মধ্যে ৭জন মালদহ শহরের বাসিন্দা। এই নিয়ে জেলায় করোনা আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে প্রায় ৫০০ ছুঁইছুঁই। মালদহ শহরের এক বেসরকারি নার্সিংহোমে চিকিৎসাধীন এক রোগী পরিবার করোনা আক্রান্ত হওয়ায় কার্যত ফাঁকা করে দেওয়া হয়েছে শহরের বাঁধরোড এলাকার ওই নার্সিংহোম। অন্যদিকে পুরাতন মালদহ ব্লকের বিডিও আক্রান্ত হওয়ার জেরে সর্তকতা জারি করা হয়েছে । দমকলের সাহায্য নিয়ে স্যানিটাইজেশন অভিযান চলে শুক্রবার।

পুরাতন মালদহ ব্লক অফিস, পঞ্চায়েত সমিতি অফিস এবং পুরাতন মালদহ থানায় সকাল থেকে জীবাণুনাশক স্প্রে করল দমকল বাহিনী। সরকারি কর্মী, আধিকারিক এবং ব্লক বা পঞ্চায়েত অফিস কিংবা থানায় বিভিন্ন কাজে আসা সাধারণ মানুষের মধ্যে সংক্রমণ ছড়ানোর ঘটনা ঠেকাতে দফায় দফায় জীবাণুনাশক স্প্রে করা হয় এদিন।করোনা পরিস্থিতির মোকাবিলায় নিয়ে এদিক উচ্চপর্যায়ের বৈঠক করে জেলা পুলিশ প্রশাসনের কর্তারা। মালদহ শহরের কালেক্টরেট ভবন ও আদালত চত্বরে বেশ মাস্ক বিহীন কয়েকজনকে ধরপাকড় করে পুলিশ।

Published by:Dolon Chattopadhyay
First published: