corona virus btn
corona virus btn
Loading

গভীর কোমায় আচ্ছন্ন প্রাক্তন রাষ্ট্রপতি, এখনও আছেন ভেন্টিলেশনে, জানাল হাসপাতাল

গভীর কোমায় আচ্ছন্ন প্রাক্তন রাষ্ট্রপতি, এখনও আছেন ভেন্টিলেশনে, জানাল হাসপাতাল
File Image

আপাতত তাঁর শরীরের গুরুত্বপূর্ণ সমস্ত অঙ্গ স্থিতিশীল অবস্থায় রয়েছে। চিকিৎসায় সাড়া দিচ্ছেন তিনি।

  • Share this:

#‌নয়াদিল্লি:‌ এখনও গভীর কোমায় আচ্ছন্ন প্রাক্তন রাষ্ট্রপতি প্রণব মুখোপাধ্যায়। হাসপাতালের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, এখনও ভেন্টিলেশনেই রয়েছেন প্রাক্তন রাষ্ট্রপতি। তাঁর শারীরিক অবস্থা অপরিবর্তিত রয়েছে। শুক্রবার একথা জানিয়েছে দিল্লির সেনা হাসপাতাল। তবে হাসপাতালের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, আপাতত তাঁর শরীরের গুরুত্বপূর্ণ সমস্ত অঙ্গ স্থিতিশীল অবস্থায় রয়েছে। চিকিৎসায় সাড়া দিচ্ছেন তিনি। পরিবারের পক্ষ থেকেও বলা হয়েছে, আগের থেকে অপেক্ষাকৃত ভাল আছেন প্রণব। এদিন একটি ট্যুইট করেছেন প্রণব মুখোপাধ্যায়ের ছেলে অভিজিৎ। তিনি লিখেছেন, ৯৬ ঘণ্টার যে সময় চিকিৎসকরা দিয়েছিলেন, তা আজ শেষ হচ্ছে। তিনি স্থিতিশীল আছেন, এবং চিকিৎসায় সাড়া দিচ্ছেন। আমার বাবা সবসময় বলতেন, ভারতের সাধারণ মানুষের থেকে আমি অনেক কিছু পেয়েছি। দয়া করে আমার বাবার জন্য আপনারা সবাই প্রার্থনা করুন।’‌

গত রবিবার রাজাজি মার্গের বাড়িতে পড়ে গিয়ে মাথায় আঘাত পান প্রণব। মাথায় রক্তক্ষরণ হয় বলে জানান চিকিৎসকরা। তাঁরা জানান, সেই কারণে একটি জটিল অস্ত্রোপচার করতে হয়েছে। এছাড়াও করোনা আক্রান্ত হয়েছেন তিনি, সেকথা নিজেই ট্যুইট করে জানিয়েছিলেন প্রাক্তন রাষ্ট্রপতি। তাঁর এমনভাবে আক্রান্ত হওয়ার খবরে স্বাভাবিক ভাবেই উদ্বিগ্ন রয়েছে পশ্চিমবাংলা। বীরভূমের একাধিক অংশে প্রণব মুখোপাধ্যায়ের আরোগ্য কামনায় পুজো, যজ্ঞ করা হয়েছে।

এদিকে সোশ্যাল মিডিয়ায় ভুয়ো খবর ছড়িয়ে পড়া নিয়ে বৃহস্পতিবারই উষ্মা প্রকাশ করেছেন প্রণব পুত্র। তিনি বলেছেন, ‘‌বাবা এখনও বেঁচে আছে ও ভেন্টিলেশনে থাকলেও স্থিতিশীল আছেন। যেভাবে প্রতিষ্ঠিত সংবাদমাধ্যমগুলি তাঁর নামে ফেক নিউজ ছড়াচ্ছে, তাতে প্রমাণিত হয় ভারতের সংবাদমাধ্যম ফেক নিউজের কারখানায় পরিণত হয়েছে।’‌ মুখ খোলেন তাঁর কন্যা শর্মিষ্ঠাও। তিনি বলেন, তিনি বলেন, ‘‌প্রণব মুখোপাধ্যায়কে নিয়ে একাধিক ফেক নিউজ বাজারে ছড়িয়েছে। সেগুলিতে কান দেবেন না।’‌

Published by: Uddalak Bhattacharya
First published: August 14, 2020, 12:46 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर