• Home
  • »
  • News
  • »
  • national
  • »
  • Nagaland Killing: খনি থেকে ঘরে ফেলা হল না ১৬ গ্রামবাসীর, নাগাল্যান্ডের ঘটনায় 'সুবিচার' চাইতে আসরে তৃণমূল!

Nagaland Killing: খনি থেকে ঘরে ফেলা হল না ১৬ গ্রামবাসীর, নাগাল্যান্ডের ঘটনায় 'সুবিচার' চাইতে আসরে তৃণমূল!

উত্তপ্ত নাগাল্যান্ড

উত্তপ্ত নাগাল্যান্ড

Nagaland Killing: মৃত সাধারণ নাগরিকদের পরিবারের ‘পাশে’ দাঁড়াতে নাগাল্যান্ডে প্রতিনিধি দল পাঠাচ্ছে পশ্চিমবঙ্গের শাসক দল তৃণমূল কংগ্রেস।

  • Share this:

    #নাগাল্যান্ড: আসাম রাইফেলস গুলিতে ১৬ সাধারণ নাগরিকের মৃত্যুর ঘটনায় উত্তপ্ত হয়ে রয়েছে নাগাল্যান্ড (Nagaland)। গ্রামবাসীদের আক্রমণে হত সেনার এক প্যারা কমান্ডোরও মৃত্যু হয়েছে। আর এই ঘটনায় তোলপাড় পড়ে গিয়েছে গোটা দেশে। এবার মৃত সাধারণ নাগরিকদের পরিবারের ‘পাশে’ দাঁড়াতে নাগাল্যান্ডে প্রতিনিধি দল পাঠাচ্ছে পশ্চিমবঙ্গের শাসক দল তৃণমূল কংগ্রেস।

    সোমবারই পাঁচ সদস্যের সেই প্রতিনিধি দল মৃত সাধারণ নাগরিকদের পরিবারের সঙ্গে দেখা করবেন। এই প্রতিনিধি দলে রয়েছেন তৃণমূলের রাজ্যসভার সাংসদ সুস্মিতা দেব, সাংসদ প্রসূন বন্দ্যোপাধ্যায়, সাংসদ অপরূপা পোদ্দার, সাংসদ শান্তনু সেন এবং তৃণমূলের মুখপাত্র বিশ্বজিৎ দেব।

    নাগাল্যান্ডের ঘটনা প্রকাশ্যে আসতেই প্রতিবাদে গর্জে ওঠেন তৃণমূল সুপ্রিমো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। ঘটনাকে দুর্ভাগ্যজনক আখ্যা দিয়ে বিবৃতি প্রকাশ করেছে সেনাবাহিনীও। তাঁরা আশ্বাস দিয়েছে উচ্চ পর্যায়ের তদন্তের। মর্মান্তিক এই ঘটনায় উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ও (Mamata Banerjee)। এই ঘটনায় নিরীহ গ্রামবাসীদের মৃত্যুর সঠিক বিচারের দাবি জানিয়েছেন বাংলার মুখ্যমন্ত্রী।

    এরপরই রবিবার রাতে তৃণমূলের তরফে একটি বিবৃতি জারি করা হয়। লেখা হয়, ''আপনাদের জানানো হচ্ছে যে নাগাল্যান্ডের মনের ওটিঙে হৃদয়বিদারক ঘটনায় মৃত এবং আহতদের পরিবারের পাশে দাঁড়াতে সোমবার নাগাল্যান্ডে যাবে তৃণমূল কংগ্রেসের পাঁচ সদস্যের প্রতিনিধি দল।''

    আরও পড়ুন: নাগাল্যান্ডে গুলি চালানোর ঘটনায় গভীর উদ্বেগ প্রকাশ মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের, চাইলেন ন্যায়বিচার...

    অনুপ্রবেশ রুখতে অভিযান চালাতে গিয়েই নাগাল্যান্ডে ঘটে যায় এই মর্মান্তিক ঘটনা। শনিবার রাতের এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে বিস্তীর্ণ এলাকাজুড়ে। এখনও পর্যন্ত ১৬ জনের মৃত্যুর খবর পাওয়া গিয়েছে। মৃত্যু হয়েছে ১ সেনা জওয়ানেরও। ঘটনায় শোক প্রকাশ করেছেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহও। ট্যুইটে লিখেছেন, "নাগাল্যান্ডের ওটিং-এ দুর্ভাগ্যজনক ঘটনাটি অত্যন্ত বেদনাদায়ক। এই ঘটনায় যারা প্রাণ হারিয়েছেন তাদের পরিবারের প্রতি গভীর সমবেদনা জানাচ্ছি। শোকসন্তপ্ত পরিবারগুলির ন্যায়বিচার নিশ্চিত করতে রাজ্য সরকার দ্বারা গঠিত একটি উচ্চ স্তরের এসআইটি ঘটনার পুঙ্খানুপুঙ্খ তদন্ত করবে।"

    আরও পড়ুন: বুঝতে ভুল, দেদার গুলি, নাগাল্যান্ডে ১৩ সাধারণ মানুষের মৃত্যু! মৃত ১ জওয়ানও

    জানা গিয়েছে, শনিবার সন্ধ্যায় কয়লা খনির কাজ সেরে দিনমজুরেরা একটি ভ্যানে চেপে নিজেদের গ্রামে ফিরছিলেন। প্রতি সপ্তাহেই রবিবার পরিবারের কাছে ফেরেন ওই শ্রমিকরা। সোমবার ফের খনির কাজে ফিরে যান তাঁরা। প্যারা কমান্ডোদের কাছে গোপন সূত্রে খবর ছিল, অরুণাচলের দিক থেকে জঙ্গিরা নাগাল্যান্ডে ঢুকবে। সেই সূত্রেই, ওটিং গ্রামের কাছে খনিমজুরদের ভ্যানটি আসতেই কমান্ডোরা গুলি চালাতে থাকেন। পিক আপ ভ্যানে সেই সময় ছিলেন আট জন। ঘটনাস্থলেই ৬ জনের মৃত্যু হয়। ২ জন জখম হন। খবর পেয়ে গ্রামের মানুষ সেখানে হাজির হলে কমান্ডোদের সঙ্গে তাঁদের আরও এক প্রস্ত সংঘর্ষ হয়। সেখানে আরও দশ গ্রামবাসীর মৃত্যু হয়।

    Published by:Suman Biswas
    First published: