• Home
  • »
  • News
  • »
  • national
  • »
  • AFGHANISTAN CRISIS UPDATE 260 INDIANS EVACUATED IN SIX FLIGHT FROM KABUL RC

Afghanistan Indians Evacuated: অস্থির আফগানিস্তান থেকে ভারতে ফিরলেন আরও ২৬০ নাগরিক, জারি অপারেশন দেবী শক্তি!

অস্থির আফগানিস্তান থেকে ভারতে ফিরলেন আরও ২৬০ নাগরিক, জারি অপারেশন দেবী শক্তি!

আফগানিস্তান থেকে ৬টি বিমানে ৫৫০ জনকে ভারতে আনা হয়েছে শুক্রবার (Afghanistan Indians Evacuated)।

  • Share this:

#কাবুল: আফগানিস্তানের অবস্থা এখনও অস্থির (Afghanistan Crisis Update)। সরকার গঠনের এখনও কোনও খবর নেই। পরিস্থিতির ওপর নজর রাখছে ভারত। আফগানিস্তান থেকে ভারতে আসা শরণার্থীদের জন্য ছ-মাসের ই-ভিসার বন্দোবস্ত করেছে ভারত। পরবর্তী পদক্ষেপ এখনও ঠিক হয়নি। আফগানিস্থানে ভারতীয়দের নিরাপত্তা এবং তাঁদের দেশে ফিরিয়ে আনা প্রথম এবং প্রধান কর্তব্য। আপাতত সে দেশের সামগ্রিক পরিস্থিতির উপর নজর রেখে 'ওয়েট অ্যান্ড ওয়াচ' নীতি নিয়েই চলবে ভারত। জানিয়েছেন, বিদেশমন্ত্রকের মুখপাত্র অরিন্দম বাগচী। জারি রয়েছে অপারেশন দেবী শক্তি (Operation Devi Shakti)।

আফগানিস্তান থেকে ৬টি বিমানে ৫৫০ জনকে ভারতে আনা হয়েছে শুক্রবার (Afghanistan Indians Evacuated)। যার মধ্যে ২৬০ জন ভারতীয় নাগরিক। আফগানিস্তান থেকে এখনও কিছু মানুষকে দেশে ফিরিয়ে আনা হতে পারে। আফগানিস্থান সংকট নিয়ে বিশ্বের বিভিন্ন দেশের সঙ্গে সম্পর্ক রেখে চলেছে ভারত যার মধ্যে রয়েছে আমেরিকা, ইরান এবং উজবেকিস্তানের মতো দেশগুলি।

আরও পড়ুন: কাবুল থেকে ভারতে ফেরা ৭৮ জনের ১৬ করোনা আক্রান্ত, সংস্পর্শে কেন্দ্রীয় মন্ত্রীও!

আফগানিস্তান থেকে ভারতে শেষ যে বিমানটি এসেছে, তাতে মাত্র ৪০ জনকে আনা সম্ভব হয়েছে। বহু মানুষ বিমানবন্দরে পৌঁছতে পারেননি। গত ২৫ অগস্ট আফগান নাগরিক এবং আফগান শিখ ও হিন্দু সম্প্রদায়ের মানুষকে এয়ারপোর্টে যেতে বাধা দেওয়া হয়েছে। যার ফলে তাঁদের রেখেই দিল্লিগামী বিমান উড়ে এসেছে। দাবি অরিন্দম বাগচীর।

আফগানিস্তান তালিবানদের দখলে চলে যাওয়ার পর থেকেই ভারতীয়দের পাশাপাশি আফগান নাগরিকদেরও সে দেশ থেকে সরিয়ে নিয়ে আসার কাজ শুরু করেছে ভারত। এর আগে ২২৮ জন ভারতীয়-সহ মোট ৬২৬ জনকে আফগানিস্তান থেকে ভারতে নিয়ে আসা হয়েছে। কেন্দ্রীয় মন্ত্রী হরদীপ সিং পুরী জানিয়েছেন, এঁদের মধ্যে ৭৭ জন আফগান শিখ। ভারতীয় দূতাবাসে কর্মরতদের অবশ্য এই তালিকায় অন্তর্ভুক্ত করা হয়নি বলেই দাবি করেছেন মন্ত্রী।

Published by:Raima Chakraborty
First published: