Home /News /malda /
Malda: জাতীয় সড়কের টোল প্লাজায় রক্তদান শিবির, অনেকেই এগিয়ে আসলেন রক্তদানে

Malda: জাতীয় সড়কের টোল প্লাজায় রক্তদান শিবির, অনেকেই এগিয়ে আসলেন রক্তদানে

মালদহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রতিদিন গড়ে ৭০ থেকে ৮০ ইউনিট রক্তের প্রয়োজন হয়। এছাড়াও জেলার বিভিন্ন নার্সিংহোমে রক্ত দেওয়া হয় এই একটিমাত্র ব্লাড ব্যাংক থেকে। করোনা পরিস্থিতির পর থেকেই রক্তের ঘাটতি ব্যাপক হারে প্রকাশ্যে এসেছে।

আরও পড়ুন...
  • Share this:

    #মালদহ : সাধারণ মানুষকে রক্তদান নিয়ে সচেতন করতে বিশেষ উদ্যোগ গ্রহণ করল ফরাক্কা- রায়গঞ্জ হাইওয়ে লিমিটেড কর্তৃপক্ষ। এই প্রথম হাইওয়ে লিমিটেডের উদ্যোগে টোল প্লাজায় অনুষ্ঠিত হলো স্বেচ্ছায় রক্তদান শিবিরের। রক্তদান শিবিরের পাশাপাশি পথ চলতি মানুষকে রক্তদানের আহ্বান জানানো হয়। প্রায় জাতীয় সড়কে পথদুর্ঘটনার ঘটনা ঘটেছে। দুর্ঘটনায় জখমদের জরুরী ভিত্তিক রক্তের প্রয়োজন হয়। ব্লাড ব্যাংকের রক্ত মজুদ না থাকলে রোগীকে দ্রুত রক্ত দেওয়া সম্ভব না। তাই জরুরী ভিত্তিক রক্তের প্রয়োজনীয়তা মেটাতে রক্তদান প্রয়োজন। জেলার বিভিন্ন প্রান্তে সরকারি বেসরকারি উদ্যোগে এমন শিবির আয়োজন হলে রক্তের ঘাটতি অনেকটাই মেটানো সম্ভব। এই স্লোগানকে সামনে রেখে ফারাক্কা রায়গঞ্জ হাইওয়ে লিমিটেডের উদ্যোগে এক স্বেচ্ছায় রক্তদান শিবিরের আয়োজন করা হয়। মালদার একটি স্বেচ্ছাসেবী সংস্থার সহযোগিতায় সোমবার মালদহের গাজোল বাগসরাই টোল প্লাজা প্রাঙ্গণে রক্তদান শিবির অনুষ্ঠিত হলো। এদিনের এই শিবিরে উপস্থিত ছিলেন ফরাক্কা- রায়গঞ্জ হাইওয়ে লিমিটেডের সেফটি ম্যানেজার অভিষেক আচার্য, প্লাজা ম্যানেজার বিপ্লব রায় সহ বিশিষ্ট অতিথিবর্গরা। মালদা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ব্লাড ব্যাংকে প্রায় রক্তের ঘাটতি দেখা দেয়। রক্তের যোগান দিতে হিমশিম খেতে হয় ব্লাড ব্যাংকের কর্মীদের।

    মালদহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রতিদিন গড়ে ৭০ থেকে ৮০ ইউনিট রক্তের প্রয়োজন হয়। এছাড়াও জেলার বিভিন্ন নার্সিংহোমে রক্ত দেওয়া হয় এই একটিমাত্র ব্লাড ব্যাংক থেকে। করোনা পরিস্থিতির পর থেকেই রক্তের ঘাটতি ব্যাপক হারে প্রকাশ্যে এসেছে। মালদহ জেলা প্রশাসন ও জেলা স্বাস্থ্য দফতরের তরফ থেকে সাধারণ মানুষকে রক্তদান শিবির আয়োজনে উদ্বুদ্ধ করার জন্য আহ্বান জানানো হয়েছে। সাধারণ মানুষ যাতে শিবিরে গিয়ে রক্তদান করেন সে বিষয়ে সচেতন করতে বিভিন্ন পদক্ষেপ গ্রহণ করা হয়েছে। এমনকি মালদহ জেলা প্রশাসন ও পুলিশ প্রশাসনের উদ্যোগে বিভিন্ন দফতরে রক্তদান শিবিরের আয়োজন করা হচ্ছে।

    আরও পড়ুনঃ দারুন খবর! কেন্দ্র ও রাজ্যের রিপোর্টে কালাজ্বর নির্মূল হয়েছে বাংলার এই জেলা থেকে

    সরকারি কর্মী আধিকারিকেরা সেখানে রক্তদান করছেন। রক্তদান নিয়ে মানুষকে সচেতন করতে এছাড়াও বিভিন্ন পদক্ষেপ গ্রহণ করা হচ্ছে। এবার রক্তদান নিয়ে সাধারণ মানুষকে সচেতন করতে এগিয়ে আসলো জাতীয় সড়ক কর্তৃপক্ষ। শুধু তাই নয় রক্তদানের পাশাপাশি ফারাক্কা রায়গঞ্জ হাই লিমিটেডের উদ্যোগে প্রাথমিক চিকিৎসার সংক্রান্ত বিষয়ক বিশেষ সচেতনতা শিবির করা হবে টোল প্লাজা গুলিতে। এই ধরনের সচেতনতা শিবির টোল প্লাজা গুলিতে করলে সাধারণ মানুষ অনেকটাই সচেতন হবে বলে দাবি কর্তৃপক্ষের।

    আরও পড়ুনঃ গ্রামে ঢোকার রাস্তা যেন কাদামাখা পুকুর! ক্ষোভ গ্রামবাসীদের, নির্বিকার প্রশাসন

    গাজোল টোলপ্লাসে আয়োজিত এদের এই রক্তদান শিবিরে ৩৩ জন টোল প্লাজার কর্মী আধিকারিক রক্তদান করেন। ফরাক্কা রায়গঞ্জ হাইওয়ে লিমিটেডের প্রজেক্ট ম্যানেজার মনোজ কুমার তেওয়ারি বলেন, সাধারণ মানুষকে সচেতন করতে আমাদের এই উদ্যোগ। আগামীতে অন্যান্য টোল প্লাজাতেও এমন রক্তদান শিবিরের আয়োজন করা হবে। শুধু রক্তদান শিবির নয় পাশাপাশি প্রাথমিক চিকিৎসার সংক্রান্ত বিষয়ক সচেতনতামূলক শিবির করা হবে।

    Harashit Singha
    Published by:Soumabrata Ghosh
    First published:

    Tags: Malda, North Bengal

    পরবর্তী খবর