Home /News /malda /
Malda: ১২ একর চাষের জমিতে তৈরি হচ্ছে জৈব গ্রাম

Malda: ১২ একর চাষের জমিতে তৈরি হচ্ছে জৈব গ্রাম

title=

জৈব গ্রাম প্রদর্শনী ক্ষেত্র তৈরি হচ্ছে মালদহের হবিবপুর ব্লকে। এই প্রথম কৃষি দফতরের উদ্যোগে মালদহ জেলায় জৈব পদ্ধতিতে আমন ধান শুরু হয়েছে।

  • Share this:

    মালদহ: জৈব গ্রাম প্রদর্শনী ক্ষেত্র তৈরি হচ্ছে মালদহের হবিবপুর ব্লকে। এই প্রথম কৃষি দফতরের উদ্যোগে মালদহ জেলায় জৈব পদ্ধতিতে আমন ধান শুরু হয়েছে। হবিবপুর ব্লকের চাঁচাইচন্ডী গ্রামে ১২ হেক্টর জমি নিয়ে তৈরি করা হচ্ছে জৈব গ্রাম প্রদর্শনী। জৈব পদ্ধতিতে চাষের প্রশিক্ষণ দেওয়া হচ্ছে কৃষকদের। বীচ শোধন থেকে জৈব সার তৈরি পদ্ধতি, ধানের জমি পরিচর্চার সমস্ত বিষয়ে প্রশিক্ষণ দেওয়া হচ্ছে কৃষি দফতরের উদ্যোগে। কৃষিকাজে ক্রমশ বাড়ছে রাসায়নিক প্রয়োগের প্রবণতা। খারিফ মরশুমে আমন ধান চাষেও ব্যাপক হারে রাসায়নিক প্রযোগ করছেন কৃষকেরা। এতে উৎপাদিত ফসলের গুণগত মান কমছে।অপরদিকে জমির উর্বরতা শক্তি হ্রাস পাচ্ছে। মালদহ জেলার হবিবপুর ব্লকে আমন ধান চাষের জমির পরিমাণ বেশি। ভাল আমন ধানের চাষ হয়। জেলা কৃষি দফতরের পক্ষ থেকে তাই হবিবপুর ব্লকেই জৈব গ্রাম প্রর্দশনী ক্ষেত্র তৈরি করা হয়েছে।

    হবিবপুর ব্লক কৃষি দফতর সূত্রে জানা গিয়েছে, মোট ১২ একর অর্থাৎ ৯০ বিঘা জমিতে এই চাষ হবে। মোট ৪০ জন কৃষককে নেওয়া হয়েছে। তাঁরা নিজেরাই চাষ করবেন।তবে সমস্ত রকম সাহায্য করা হবে কৃষি দফতরের পক্ষ থেকে। মালদহ জেলার হবিবপুর ব্লকেই পাইলট প্রজেক্ট হিসাবে এই জৈব গ্রাম প্রর্দশনী করা হয়েছে। কৃষকদের নিয়ে একটি কমিটি তৈরি করা হয়েছে।

    আরও পড়ুনঃ আন্তর্জাতিক অলিম্পিক দিবসে খুদেদের মধ্যে খেলাধুলার প্রতি আগ্রহ বাড়াতে বিশেষ উদ্যোগ

    তাদের মধ্যে একজনকে দলের হেড মাস্টার করা হয়েছে। হেড মাস্টার পরিচালনা করবেন গোটা দল। কৃষি দফতরের পক্ষ থেকে নিয়মিত তাদেরকে পরামর্শ দেয়া হবে এই চাষ সম্পর্কে। জৈব গ্রাম প্রদর্শনী ক্ষেত্রে গোবিন্দভোগ ধান চাষ শুরু করেছেন কৃষকেরা। রাসায়নিক সার ব্যবহার করে চাষাবাদ করায় অনেকক্ষেত্রেই জমির উর্বরতা হ্রাস পাচ্ছে।

    আরও পড়ুনঃ হিন্দি মাধ্যম স্কুল থাকলেও জেলার কলেজগুলিতে পড়ানো হয় না হিন্দি মাধ্যমে

    পাশাপাশি উৎপাদিত ফসলের গুণগতমান অনেক কম। সাধারণ কৃষকদের মধ্যে জৈব পদ্ধতিতে ধান চাষ প্রচলন করতে কৃষি দফতর এমন উদ্যোগ গ্রহণ করেছে। এই মরশুমে জৈব গ্রাম প্রদর্শনী ক্ষেত্র সফল হলে আগামীতে আরো বেশি করে করার পরিকল্পনা রয়েছে জেলা কৃষি দফতরের।

    Harashit Singha
    First published:

    Tags: Malda, North Bengal

    পরবর্তী খবর