হোম /খবর /লাইফস্টাইল /
আপনার কন্যার প্রথম বার ঋতুস্রাব হয়েছে? ওকে ভাল রাখতে নজর দিন এই বিষয়গুলিতে

First menstrual cycle : আপনার কিশোরী কন্যার প্রথম বার ঋতুস্রাব হয়েছে? শারীরিক ও মানসিকভাবে ওকে ভাল রাখতে নজর দিন এই বিষয়গুলিতে

ভয় না পাইয়ে দিয়ে গল্পচ্ছলে মেয়েকে বুঝিয়ে বলুন এই পরিবর্তন নিয়ে

ভয় না পাইয়ে দিয়ে গল্পচ্ছলে মেয়েকে বুঝিয়ে বলুন এই পরিবর্তন নিয়ে

First menstrual cycle : য় না পাইয়ে দিয়ে গল্পচ্ছলে মেয়েকে বুঝিয়ে বলুন এই পরিবর্তন নিয়ে৷ যাতে কোনও রহস্য ওর মনে জমাট না বাঁধে৷ উৎসাহী করে তুলুন যোগাভ্যাস নিয়েও৷

  • Last Updated :
  • Share this:

বয়স বারো বছরের কাছে পৌঁছলে সাধারণত মেয়েদের পিরিয়ডস শুরু হয় (first menstrual cycle)৷ দু’ এক বছর কমবেশিও হয়তো হতে পারে৷ এই বয়ঃসন্ধিতেই দেখা দেয় ব্রেস্ট বাডস এবং পিউবিক হেয়ার৷ আন্ডারআর্মস হেয়ার অবশ্য দেখা দেয় ৬ মাস থেকে ২ বছর আগেই৷

আপনার কন্যাসন্তানের মধ্যে এই পরিবর্তনগুলি দেখা দিলেই সতর্ক হোন৷ ভয় না পাইয়ে দিয়ে গল্পচ্ছলে মেয়েকে বুঝিয়ে বলুন এই পরিবর্তন নিয়ে৷ যাতে কোনও রহস্য ওর মনে জমাট না বাঁধে৷ উৎসাহী করে তুলুন যোগাভ্যাস নিয়েও৷ দেখুন যাতে যতটা সম্ভব স্বাস্থ্যকর জীবনযাত্রার মধ্যে দিয়ে ও এগোতে পারে৷ তাহলে এই সময়ে শারীরিক ও মানসিক পরিবর্তনের সঙ্গে সহজেই মানিয়ে নিতে পারবে আপনার কন্যাসন্তান৷

আরও পড়ুন : পাতলা ভুরুর জন্য ভরসা কাজলপেন্সিল? ঘরোয়া টোটকায় নিমেষে ঘন করুন ভ্রুপল্লব

আপনার কন্যাসন্তানের প্রথম বার পিরিয়ড শুরু হলে কোন কোন দিকে খেয়াল দেবেন এক বার দেখে নিন-

১. হাল্কা যোগাভ্যাস, স্ট্রেচিং, ব্যায়ামের চর্চা থাকলে পিরিয়ডের যন্ত্রণায় কষ্ট পেতে হবে না

২. প্রথম প্রথম পিরিয়ডের সময় ঘুম ঘুম ভাব, তীব্র পেট যন্ত্রণাও স্বাভাবিক৷ তবে বেশি বাড়াবাড়ি হলে, সন্তানের সহ্যসীমা পেরিয়ে গেলে স্ত্রীরোগ বিশেষজ্ঞের পরামর্শ নিন৷

৩. কিশোরী কন্যার মুড স্যুইং হলেও ওর পাশে থাকুন৷ ধৈর্য নিয়ে ওর কথা শুনুন৷ ঋতুস্রাব চক্র শুরু হলে শরীরে হরমোনাল সমস্যা হয় অনেকটাই৷ তাই প্রথম প্রথম মানিয়ে নিতে বেশ কষ্টই হয়৷

আরও পড়ুন :  দেখতে কালো এই খাবারগুলি শরীরকে ভাল রাখে

৪. ঋতুস্রাবের মধ্যে ক্যাফেইন বা জাঙ্কফুড না খাওয়াই ভাল৷

৫. অনিয়মিত ঋতুস্রাব বা অল্প পরিমাণে ঋতুস্রাবকে কোনও সময় হাল্কাভাবে নেবেন না৷ কারণ এই উপসর্গগুলির পিছনে লুকিয়ে থাকতে পারে বড় কোনও অসুখের ইঙ্গিত৷

৬. হট ওয়াটার ব্যাগ বা গরম জলের বোতল পেটের উপর সহনীয় উষ্ণতায় রাখলে ক্র্যাম্পের সমস্যায় আরাম পাওয়া যাবে৷

আরও পড়ুন : মরশুমি রোগবালাইয়ের দিকেও বসন্ত হল ঋতুরাজ, সুস্থ থাকতে এভাবেই করুন খাওয়াদাওয়া

৭. ঈষদু্ষ্ণ জলে স্নান করলে এবং ঈষদুষ্ণ জল পান করলে পেটের ক্র্যাম্প ও ক্লান্তি দূর হবে৷

৮, পর্যাপ্ত ঘুম ও শারীরিক বিশ্রাম যেন সন্তানের রুটিনে থাকে, নজর রাখতে হবে সেদিকেও৷

Published by:Arpita Roy Chowdhury
First published:

Tags: Menstrual Cycle