Home /News /life-style /
Saraswati Puja 2022 : সরস্বতী পুজোর পরই আসে শীতল ষষ্ঠী, গোটা সিদ্ধর স্বাদ যেন সন্তানের জন্য মায়ের স্নেহের মতোই অমলিন

Saraswati Puja 2022 : সরস্বতী পুজোর পরই আসে শীতল ষষ্ঠী, গোটা সিদ্ধর স্বাদ যেন সন্তানের জন্য মায়ের স্নেহের মতোই অমলিন

স্বাদ যেন সন্তানের জন্য মায়ের স্নেহের মতোই সহজ সরল অমলিন

স্বাদ যেন সন্তানের জন্য মায়ের স্নেহের মতোই সহজ সরল অমলিন

Saraswati Puja 2022 : শীতল ষষ্ঠীর পুজো৷ এই পার্বণের অন্যতম অঙ্গ ‘গোটাসিদ্ধ রান্না’ (Gota Siddha) ও খাওয়া৷ যার স্বাদ যেন সন্তানের জন্য মায়ের স্নেহের মতোই সহজ , সরল ও অমলিন৷

  • Share this:

কলকাতা :  শ্রী পঞ্চমীতে বাগদেবীর আরাধনার (Saraswati Puja 2022) পাশাপাশি আরও এক পুজোর তোড়জোড় চলে ঘটি হেঁসেলে৷ তা হল, শীতল ষষ্ঠীর পুজো৷ এই পার্বণের অন্যতম অঙ্গ ‘গোটাসিদ্ধ রান্না’ (Gota Siddha) ও খাওয়া৷ যার স্বাদ যেন সন্তানের জন্য মায়ের স্নেহের মতোই সহজ , সরল ও অমলিন৷

শীতল ষষ্ঠীতে  পুজো করা হয় শিল-কে ৷ অতীতের সংসারের নিত্যপ্রয়োজনীয় এই সঙ্গীকেও সেদিন এভাবে মূল্য দেওয়া হয়। মূল্যদানের এই রীতিই তিল তিল করে আমাদের জীবনের মুহূর্তগুলিকে অমূল্য করে তোলে৷ যাঁর নেপথ্যশিল্পী সংসারের অভিভাবিকা গৃহিণীরাই৷ দিল্লিপ্রবাসী সংযুক্তা চক্রবর্তী শীতল ষষ্ঠী ব্রত দেখেছেন বিয়ের পর৷ জানালেন, ‘‘এই ব্রতে শ্বাশুড়িমা শিলনোড়া পুজো করেন৷ আগে হলুদ ছোপানো কাপড় দিয়ে করা হত৷ এখন নতুন গামছায় সিঁদুর ও হলুদের টিপ দিয়ে তার পর পুজো করা হয়৷ তার আগে শ্রী পঞ্চমী রাতে মা খুব যত্ন করে গোটা সিদ্ধ রান্না করেন৷’’

শীতের মরশুমি আনাজপাতিই এর মূল উপকরণ৷ গোটা মুগ, গোটা কলাই, জোড়া বেগুন, জোড়া সিম, শিষপালং, সজনেফুল, বাঁধাকপি হল এই রান্নার প্রধান উপকরণ৷ তবে হেঁসেল বিশেষে উপকরণে কিছুটা রকমফের তো হয়ই৷ উপকরণ যা-ই হোক না কেন, মূল বিষয় হল সব কিছু গোটা অবস্থায় সুসিদ্ধ হতে হবে৷

আরও পড়ুন : ছেলেমেয়ের জন্য বাড়িতেই রাঙিয়ে তুলুন বাসন্তী পাঞ্জাবী ও শাড়ি, রইল সহজ পদ্ধতি

সংযুক্তা জানালেন, তাঁর শ্বাশুড়িমা এই সব উপকরণ প্রেশার কুকারে গোটা অবস্থায় সিদ্ধ করে রেখে দেন৷ পর দিন তিনি স্নানের পর শিলবাটার পুজো করে ওই গোটাসিদ্ধ খান৷ সেদিন তিনি সারাদিন ঠান্ডা খাবার খান৷ গরম কিছু খান না৷ এই শীতল থেকেই ‘শীতল ষষ্ঠী’৷ বাড়ির অন্যান্যরা না খেলেও ব্রতী অর্থাৎ বাড়ির গৃহিণীকে এই খাবার খেতে হবে৷

গোটা সিদ্ধর সঙ্গে কুলের চাটনি খাওয়ার স্মৃতি ভুলতে পারেন না অনন্যা গঙ্গোপাধ্যায়৷ অনেক পরিবারে এর সঙ্গে থাকে পান্তাভাতও৷ শীত থেকে বসন্তে পা দেওয়ার সময় মরশুম পরিবর্তনে রোগবালাই থেকে বাড়ির কচিকাঁচাদের রক্ষা করাই এই ব্রতপালনের মূল লক্ষ্য৷ বলছেন অনন্যা৷ প্রাক-টিকা যুগে এই গোটা সিদ্ধই ছিল বসন্ত মহামারি থেকে রক্ষাকবচ৷

আরও পড়ুন : মশলার দাগ-সহ তেলচিটে গ্যাসের আভেন ও বার্নার সাফ করতে নাজেহাল? আপনার জন্য ঘরোয়া সমাধান

সেই রক্ষাকবচ প্রতি বছর সংসারের জন্য নিষ্ঠাভরে রান্না হয়ে চলেছে মালিকা গড়াইয়ের পরিবারে৷ তাঁর শ্বাশুড়িমা মীরাদেবী গোটাসিদ্ধতে দেন খোসা সমেত বিউলির ডাল, গোটা ছোট আলু, গোটা রাঙাআলু, গোটা সিম, খোসাসমেত কড়াইশুঁটি, সজনেফুল ও বেগুন৷ সামান্য নুন দিয়ে কোনও ফোড়ন ছাড়া এই রান্না হয়৷ সঙ্গে থাকে পোস্তর বড়া, বাঁধাকপির তরকারি এবং পান্তাভাত৷ পর দিন সকালে স্নানের পর শিলকে পুজো করে এই গোটাসিদ্ধ খাওয়া হয় সামান্য সর্ষের তেল দিয়ে৷ সেদিন সব রকম গরম খাবার তো বটেই, ব্রতর নিয়মরক্ষার কারণে চা-ও পান করেন না প্রবীণা মীরা৷ কোনও পুরোহিতকে ছাড়া গৃহিণীর আন্তরিক মঙ্গলকামনাই এই লৌকিক পার্বণের ভরকেন্দ্র, মনে করেন তিনি৷

আরও পড়ুন : দিন শুরু করুন গরম জলে চুমুক দিয়ে, দূর থাকবে বহু জটিল সমস্যা

নিজেদের বাড়িতে না হলেও অনেকেই ভালবাসেন গোটা সিদ্ধ পার্বণ৷ তাঁদের মধ্যেই একজন অর্পিতা পাল৷ রন্ধনপটিয়সী অর্পিতার হেঁসেলে রোজই জন্ম হয় লোভনীয় সব পদের৷ এই সুগৃহিণী নিজেও ভোজনরসিক৷ জানালেন, ষষ্ঠী বলে এই রান্নায় ছ’ রকম উপকরণ থাকবেই৷ কেউ তার থেকে বেশিও দিতে পারেন৷ ছ’ রকম উপকরণের মাহাত্ম্যেই জড়িয়ে থাকে ষড়ঋতু থেকে সুস্থতার চাবিকাঠি৷

Published by:Arpita Roy Chowdhury
First published:

Tags: Gota Siddha, Saraswati Puja 2022, Shital Shashthi

পরবর্তী খবর