হোম /খবর /লাইফস্টাইল /
অস্তিত্ব সংকটে ভারতের প্রথম চায়নাটাউন কলকাতার টেরিটি বাজার! বিপন্ন তালিকায় ঠাঁই

Tiretta Bazaar Kolkata: অস্তিত্ব সংকটে কলকাতার টেরিটি বাজার! ওয়ার্ল্ড মনুমেন্টস ওয়াচ তালিকায় ভারতের প্রথম চায়নাটাউন

World Monuments Watch list 2022: বাজারটির নামকরণ হয়েছে এডওয়ার্ড টিরেটার (Edward Tiretta) নামে। ভেনিসের একজন ইতালীয় অভিবাসী এডওয়ার্ড ১৮ শতকে এই এলাকার মালিক ছিলেন।

  • Last Updated :
  • Share this:

#কলকাতা: ভারত মানেই সুপ্রাচীন কাঠামোর দেশ। যদিও সময়ের সঙ্গে সঙ্গেই সাংস্কৃতিক তাত্পর্যপূর্ণ বেশ কিছু স্থান সংরক্ষণের অভাবে ধ্বংসস্তূপে পরিণত হচ্ছে। এরই মধ্যে রয়েছে শহর কলকাতারও বেশ কিছু প্রাচীন এলাকা, যেমন টেরিটি বাজার (Tiretta Bazaar Kolkata), যাকে ওল্ড চায়না মার্কেট (Old China Market) নামেও ডাকা হয়। ২০২২ সালের ওয়ার্ল্ড মনুমেন্টস ওয়াচ তালিকায় (World Monuments Watch list 2022) অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে এই এলাকাটিকে (Tiretta Bazaar Kolkata)। ওয়ার্ল্ড মনুমেন্টস ফান্ড (World Monuments Fund) জানিয়েছে, এই বছর “অসাধারণ তাত্পর্যযুক্ত ২৫ টি ঐতিহ্যবাহী স্থানকে সামনে আনা হয়েছে।” ইনস্টাগ্রামে ঘোষণা করা হয়েছে, ওয়াচ “২৪ টি দেশ এবং ১২,০০০ বছরের ইতিহাস”-এর প্রতিনিধিত্ব করে। “জলবায়ু পরিবর্তন, ভারসাম্যহীন পর্যটন, কম প্রচার সহ বিবিধ সংকটের সম্মুখীন ঐতিহ্যবাহী স্থানগুলিকে রক্ষার জন্য বৃহত্তর এবং জরুরি পদক্ষেপের” আহ্বান জানিয়েছে এই সংস্থা৷

আরও পড়ুন- রাশিয়ার আক্রমণের বিরুদ্ধে সাহস জোগাচ্ছে ইউক্রেনের এই জাতীয় পোশাক! কীভাবে?

টেরিটি বাজারের (Tiretta Bazaar Kolkata) ইতিহাস:

এই জায়গাটিকে ভারতের প্রথম চায়নাটাউন বলা হয়। ১৮ শতকে যখন ইন্দো-চিন বাণিজ্য পথে চৈনিক নাবিকরা এখানে বসতি স্থাপন করেন এবং তাদের নিজস্ব আচার অনুষ্ঠান, ঐতিহ্য, স্থাপত্য শৈলী ইত্যাদি প্রতিষ্ঠা করেন তখন থেকেই চৈনিক পরিচয় পেতে করতে শুরু করে এই জায়গাটি (Tiretta Bazaar Kolkata)। মজার বিষয় হল, বাজারটির নামকরণ হয়েছে এডওয়ার্ড টিরেটার (Edward Tiretta) নামে। ভেনিসের একজন ইতালীয় অভিবাসী এডওয়ার্ড ১৮ শতকে এই এলাকার মালিক ছিলেন। তবে এই তালিকায় টেরিটি বাজারের অন্তর্ভুক্তির কারণ সম্ভবত এখানে বসবাসকারী জনগোষ্ঠীর প্রান্তিকতা। স্থানীয় ঐতিহ্যও রয়েছে সংকটে। একসময় প্রায় ২০,০০০ চিনা নাগরিকের বাসস্থান ছিল এই জায়গাটি, বছরের পর বছর ধরে হ্রাস পেয়েছে এই জনসংখ্যা।

WMF সংস্থাটির সদর দপ্তর নিউ ইয়র্কে হলেও, কম্বোডিয়া, ভারত, পেরু, পর্তুগাল, স্পেন এবং যুক্তরাজ্যে এর অফিস এবং সহযোগী সংস্থা রয়েছে।

আরও পড়ুন- কোভিড নিম্নমুখী, পকেটে টান না ধরিয়েই বেরিয়ে আসতে পারেন এই পর্যটনকেন্দ্রগুলি

এই বছরের অন্তর্ভুক্ত অন্যান্য বিপন্ন স্থানগুলি হল:

জাহাঙ্গিরের সমাধি, লাহোর, পাকিস্তান

বাগেরহাটের মসজিদ শহর, বাগেরহাট, বাংলাদেশ

আবিডোস, মিশর

বেনগাজি ঐতিহাসিক শহর, লিবিয়া

গার্সিয়া চারণভূমি, ব্রাউনসভিল, টেক্সাস, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র

আফ্রিকাটাউন, মোবাইল, আলাবামা, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র

হার্স্ট ক্যাসেল, হ্যাম্পশায়ার, যুক্তরাজ্য

বেইরুটের ঐতিহ্যবাহী ভবন, লেবানন

Published by:Madhurima Dutta
First published:

Tags: China India, Kolkata News