• Home
  • »
  • News
  • »
  • life-style
  • »
  • Boiled Eggs in Winter : শীতকালে দৈনিক ডায়েটে রাখতেই হবে ডিমসিদ্ধ, জানুন এর একাধিক উপকারিতা সম্বন্ধে

Boiled Eggs in Winter : শীতকালে দৈনিক ডায়েটে রাখতেই হবে ডিমসিদ্ধ, জানুন এর একাধিক উপকারিতা সম্বন্ধে

ডিমের কুসুমে প্রচুর ভিটামিন ডি আছে

ডিমের কুসুমে প্রচুর ভিটামিন ডি আছে

ডিমকে প্রোটিনের (egg protein) সেরা উৎস বলে মনে করা হয় ৷ তাছাড়া পুষ্টির দিক দিয়ে ডিমকে বলা হয় পাওয়ারহাউস (powerhouse)

  • Share this:

    ডিমকে প্রোটিনের (egg protein) সেরা উৎস বলে মনে করা হয় ৷ তাছাড়া পুষ্টির দিক দিয়ে ডিমকে বলা হয় পাওয়ারহাউস (powerhouse)৷ এ ছাড়াও ডিমের বহুল প্রচলনের অন্যতম বড় কারণ হল একে নানাভাবে খাওয়া যায়৷ সিদ্ধ, অমলেট, স্ক্র্যাম্বলড বা ভাজা-ডিমের রূপভেদের শেষ নেই৷

    সিদ্ধ ডিমে প্রচুর হেলদি ফ্যাট আছে, যেখানে ওজনবৃদ্ধির ঝুঁকি বেশি নেই৷ ডিমের কুসুমে প্রচুর ভিটামিন ডি আছে৷ যার ফলে সর্দিকাশি এবং ফ্লু থেকে প্রতিরোধ ক্ষমতা গড়ে ওঠে৷ তাছাড়া নিয়মিত ডিমসিদ্ধ খেলে মজবুত হয় রোগ প্রতিরোধ ব্যবস্থা৷ ত্বক, চোখ ও চুলের জন্যও ডিম উপকারী৷

    আরও পড়ুন: ভাইফোঁটায় ভাইকে খাওয়ান কষা গলদা চিংড়ির গা মাখা ঝোল, রেসিপি দিলেন ‘ভিল ফুড’-এর ঠাকুমা

    একটি সিদ্ধ ডিম থেকে ৭৭ ক্যালরি পাওয়া যায়৷ তাছাড়া ডিমে আছে ০.৬ গ্রাম কার্বোহাইড্রেটস, ১.৬ গ্রাম স্যাচিওরেটেড ফ্যাট, ৫.৩ গ্রাম ফ্যাট, ২ গ্রাম মোনোস্যাচিওরেটেড ফ্যাট, ৬.৩ গ্রাম প্রোটিন, ২১২ মিলিগ্রাম কোলেস্টেরল, ৬% ভিটামিন এ, ৯% ভিটামিন বি-১২, ১৫%  ভিটামিন বি-২, ৭% ভিটামিন বি-৫, ২২% সেলেনিয়াম এবং ৮৬ মিলিগ্রাম ফসফরাস৷ শীতকালের ডায়েটে নিয়মিত থাকার জন্য ডিম আদর্শ ৷

    আরও পড়ুন: শীতে ঠোঁট ফাটার হাত থেকে রেহাই চাই? এখনই মানুন এই নিয়মগুলি

    ডায়েটে ডিম থাকার মূল কারণগুলি দেখা যাক-

    # ডিমে থাকা অ্যান্টিঅক্সিড্যান্ট মস্তিষ্ক ও চোখের জন্য উপকারী৷ কোলাইন রাসায়নিক স্মৃতিশক্তি এবং স্নায়ুতন্ত্রকে উজ্জীবিত করে৷ উজ্জ্বল দৃষ্টিশক্তির জন্য ভিটামিন এ কার্যকর৷

    # একটি ডিমে ৬ গ্রামের বেশি প্রোটিন আছে৷ ডিম খাওয়ার ফলে শরীরের প্রোটিনের খামতি মেটায়৷ আমাদের শরীরের জন্য প্রোটিন প্রয়োজনীয়৷

    আরও পড়ুন: আগের থেকে কমলেও শ্যামাপোকার সমস্যা হয় এ সময়েই, জেনে নিন দূর করার ঘরোয়া উপায়

    # ডিমে প্রচুর পরিমাণে আয়রন আছে৷ শরীরের ক্লান্তির শেষ রেশটুকু মিলিয়ে যায় ডিমের প্রভাবে৷ ডিমের কুসুমের জন্য প্রোটিনের অভাব পূর্ণ হয় ৷

    # দৈনিক ডিমসিদ্ধ খেলে শরীর মজবুত হয়৷ ডিমে অ্যান্টিঅক্সিড্যান্ট, প্রোটিন এবং আরও অনেক প্রয়োজনীয় পুষ্টিমূল্য আছে, যার দৌলতে ইমিউনিটি পাওয়ার বৃদ্ধি পায়৷

    Published by:Arpita Roy Chowdhury
    First published: