• Home
  • »
  • News
  • »
  • life-style
  • »
  • Fight Fatigue: সব সময় ক্লান্ত লাগে? আহার-তালিকায় এই খাবারগুলি আছে তো?

Fight Fatigue: সব সময় ক্লান্ত লাগে? আহার-তালিকায় এই খাবারগুলি আছে তো?

Figh Fatigue:শরীরে ক্লান্তি কাটাতে সবথেকে প্রয়োজন দিনভর কোনও খাবার বাদ না দেওয়া

Figh Fatigue:শরীরে ক্লান্তি কাটাতে সবথেকে প্রয়োজন দিনভর কোনও খাবার বাদ না দেওয়া

Fight Fatigue: ক্লান্তি কাটিয়ে আপনাকে এনার্জি বা কর্মশক্তি যোগান দেওয়ার ব্যাপারে প্রক্রিয়াজাত খাবারের তুলনায় অনেক এগিয়ে তাজা খাবার৷

  • Share this:

    আমাদের শরীর যদি ইঞ্জিন হয়, তবে খাদ্য তার জ্বালানি৷ আপনি কী খাচ্ছেন তার পাশাপাশি সমান গুরুত্বপূর্ণ হল কখন খাচ্ছেন৷ দুপুরে অথবা রাতে ভারী খাবার খাওয়ার পর মাঝে মাঝেই ক্লান্ত লাগে (feeling fatigued)৷ কারণ আপনার শরীর তখন ব্যস্ত ওই গুরুপাক খাবার হজম করাতে৷

    ক্লান্তি কাটিয়ে আপনাকে এনার্জি বা কর্মশক্তি যোগান দেওয়ার ব্যাপারে প্রক্রিয়াজাত খাবারের তুলনায় অনেক এগিয়ে তাজা খাবার৷ তাজা খাবার পুষ্টিগুণেও ভরপুর৷

    আরও পড়ুন-আপনি কি মিষ্টিতে আসক্ত? সমস্যা সমাধানে ডায়েটে রাখুন এই মশলাগুলি

    দেখে নেওয়া যাক তাজা খাবারে কী করে নিজের আহার তালিকা সাজাবেন (Fatigue can be prevented by these foods )-

    রোজ অন্তত ৫ রকম ফল ও শাকসব্জি খাবেন

    ডায়েটে রাখুন আলু, পাউরুটি, ভাত, পাস্তা এবং অন্যান্য শর্করাজাতীয় খাবার৷ প্রয়োজনে বেছে নিন গোটা দানাশস্য

    স্নেহজাতীয় পদার্থ এবং শর্করার মাত্রা কম, এমন দুগ্ধজাত খাবার রাখুন নিত্য আহার্যে

    বিনস, ডাল, মাছ ডিম, মাংস এবং অন্যান্য প্রোটিন নিয়মিত খেতে ভুলবেন না

    আনস্যাচিওরেটেড তেল যতটা সম্ভব এড়িয়ে চলুন

    প্রতিদিন ৬-৮ গ্লাস জলপান করতে ভুলবেন না

    আরও পড়ুন-টিভি দেখতে দেখতে রাতের খাবার খান? জানেন নিজের কী ক্ষতি করছেন!

    শরীরে ক্লান্তি কাটাতে সবথেকে প্রয়োজন দিনভর কোনও খাবার বাদ না দেওয়া৷ সারা দিন ৫ টা মিল বা আহার খাবেন৷ প্রতি খাবারের মাঝে ২ থেকে ৩ ঘণ্টা সময়ের বিরতি অবশ্যই দেবেন৷ যদি ক্লান্তি এসে কাজের ব্যাঘাত ঘটায়, সকালে বা বিকেলে স্ন্যাক্স খান৷ হাল্কা স্ন্যাক্স হিসেবে খেতে পারেন এক মুঠো আমন্ড৷

    আরও পড়ুন-দৈনিক জীবনে সামান্য এই পরিবর্তনে ওজন কমবে জলদি

    খাবার যেমনই হোক না কেন, জল এবং অন্যান্য স্বাস্থ্যকর পানীয় খেতে ভুলবেন না৷ যোগাভ্যাস, অল্প দূরত্ব হাঁটার মতো অভ্যাস আপনাকে সুস্থ ও কর্মক্ষম রাখে৷

    Published by:Arpita Roy Chowdhury
    First published: