• Home
  • »
  • News
  • »
  • life-style
  • »
  • Essential oil for skincare : জেল্লাদার পেলব ত্বকের রহস্যের চাবিকাঠি, রইল কয়েকটি এসেন্সিয়াল অয়েলের হদিশ

Essential oil for skincare : জেল্লাদার পেলব ত্বকের রহস্যের চাবিকাঠি, রইল কয়েকটি এসেন্সিয়াল অয়েলের হদিশ

এসেন্সিয়াল অয়েল আমাদের ত্বকচর্চার রোজকার রুটিনে ব্যবহার করা যায়

এসেন্সিয়াল অয়েল আমাদের ত্বকচর্চার রোজকার রুটিনে ব্যবহার করা যায়

Essential oil for skincare: ত্বকের পরিচর্যার জন্য সঠিক তেলের ব্যবহার ব্রণের দাগ থেকে শুরু করে বলিরেখা পর্যন্ত সমস্ত কিছু নিরাময় করতে পারে।

  • Share this:

ত্বক পরিচর্যার জন্য তেল ব্যবহারের রীতি সেই প্রাচীন কাল থেকে চলে আসছে। ত্বকের পরিচর্যার জন্য সঠিক তেলের ব্যবহার ব্রণের দাগ থেকে শুরু করে বলিরেখা পর্যন্ত সমস্ত কিছু নিরাময় করতে পারে। শুধু তা-ই নয়, অ্যারোমাথেরাপি আমাদের চারপাশে এক শান্ত অনুভূতি তৈরি করে, যা ত্বকচর্চার জন্য খুবই উপকারী। তাই চলুন জেনে নেওয়া যাক, কোন কোন এসেন্সিয়াল অয়েল আমাদের ত্বকচর্চার রোজকার রুটিনে ব্যবহার করা উচিত।

আর্গান অয়েল (Argan Oil):

অ্যান্টিঅক্সিড্যান্ট এবং ভিটামিন সমৃদ্ধ আর্গান অয়েল অত্যন্ত হাইড্রেটিং এবং পুষ্টিকর। এটি আমাদের রোজকার ত্বকচর্চার রুটিনের জন্য অপরিহার্য। শুষ্ক ত্বক এবং বলিরেখা দূর করতে ভিটামিন-ই এবং ফ্যাটি অ্যাসিড সমৃদ্ধ এই তেল চমৎকার কাজ করে। আর্গান অয়েল লাগানোর কিছু ক্ষণের মধ্যেই এই তেল ত্বকে প্রভাব দেখাতে শুরু করে।

আরও পড়ুন : দীপাবলি ও ভাইফোঁটায় প্রচুর মিষ্টিমুখ? মধুমেহ রোগীরা ভাল থাকুন এই নিয়মে

 সিডারউড অর্গানিক এসেন্সিয়াল অয়েল (Cedarwood Organic Essential Oil):

যাঁরা সব সময় ব্রণের সমস্যায় ভোগেন, তাঁদের জন্য সিডারউড অয়েল খুবই উপকারী। এই তেলের সঙ্গে কয়েক ফোঁটা ননকমেডোজেনিক তেল যোগ করে রোজ লাগাতে পারলে ব্রণের সমস্যার হাত থেকে চিরতরে মুক্তি মিলবে।

 ভেটিভার এসেন্সিয়াল অয়েল (Vetiver Essential Oil):

যে সব জায়গায় প্রচণ্ড পরিমাণে দূষণ হয়, সেই সব এলাকায় বসবাসকারীরা নিজেদের ত্বক রক্ষা করার জন্য ভেটিভার অয়েল ব্যবহার করলে দারুণ ফল পাবেন। এটি যে শুধুমাত্র অ্যান্টি-এজিং অয়েল, তা নয়। এতে রয়েছে উচ্চমানের হাইড্রেটিং ফর্মুলা, যা ত্বককে পুনরুজ্জীবিত করতে সাহায্য করে। ব্রণর দাগ এবং বলিরেখা কমাতেও এই তেল অত্যন্ত কার্যকরী।

আরও পড়ুন : শীত মানেই গলায় খুসখুসানি এবং ব্যথা? সারিয়ে ফেলুন এই সহজ উপায়ে

 থিভস্ এসেন্সিয়াল অয়েল ব্লেন্ড (Thieves Essential Oil Blend):

লবঙ্গ, দারচিনির ছাল, ইউক্যালিপটাস, রোজমেরি এবং লেবুর মিশ্রণ জাত এই তেল ত্বকের পৃষ্ঠে বসবাসকারী ক্ষতিকারক ব্যাকটেরিয়া বা ছত্রাক অপসারণের জন্য দুর্দান্ত কাজ করে।

 পেপারমিন্ট তেল (Peppermint Oil):

রিফ্রেশ পেপারমিন্ট তেল পেশি বা জয়েন্টের ব্যথা উপশম করতে সাহায্য করতে পারে। এই তেল চুলকানির তীব্রতা কমিয়ে দিতে পারে এবং দীর্ঘস্থায়ী চুলকানিযুক্ত ত্বকের জ্বালা কমাতেও সাহায্য করে। প্রতিদিনের জীবনে পেপারমিন্ট তেলের সুবাস নিলে আমাদের মানসিক চাপ ও ক্লান্তি অনেকটাই কমে যায়।

আরও পড়ুন : গুরুপাক ভোজনে গ্যাসের সমস্যা? রইল ঘরোয়া টোটকা

 ল্যাভেন্ডার এসেন্সিয়াল অয়েল (Lavender Essential Oil):

রোজকার রুটিনে ব্যবহার করার জন্য ল্যাভেন্ডার অয়েল একটি দারুণ বিকল্প হতে পারে। ল্যাভেন্ডার অয়েল ত্বকের জন্য দুর্দান্ত, কারণ এটি খুব মৃদু এবং পুষ্টিকর। ল্যাভেন্ডার তেল ত্বকের দাগ কমাতে এবং ত্বকে তারুণ্যের উজ্জ্বলতা দিতে অত্যন্ত কার্যকরী। যদি ত্বকে জ্বালাপোড়া হয় অথবা ত্বকে রোদে পোড়ার প্রবণতা অনুভূত হয়, তবে এই তেলের ব্যবহার করা যেতে পারে।

Published by:Arpita Roy Chowdhury
First published: