Home /News /kolkata /
World Environment Day: গাছ কাটা নিয়ে পূর্বতন বাম সরকারকে খোঁচা মেয়র ফিরহাদ হাকিমের 

World Environment Day: গাছ কাটা নিয়ে পূর্বতন বাম সরকারকে খোঁচা মেয়র ফিরহাদ হাকিমের 

World Environment Day: Firhad Halim slams left front government

World Environment Day: Firhad Halim slams left front government

এদিনের অনুষ্ঠান থেকে ছোট ছোট বাচ্চাদের হাতে তুলে দেওয়া হয় গাছ।

  • Share this:

    #কলকাতা: গাছ কাটা নিয়ে পূর্বতন বাম সরকারকে খোঁচা দিলেন কলকাতা পুরসভার মেয়র তথা রাজ্যের মন্ত্রী ফিরহাদ হাকিম। বিশ্ব পরিবেশ দিবসের এক অনুষ্ঠানে যোগ দিয়ে ফিরহাদ হাকিম বলেন, ৩৪ বছরে লাল ঝান্ডা দিয়ে এলাকা দখল করতে গিয়ে অনেক গাছ কেটে ফেলা হয়েছে। এমনকি ভোট ব্যাঙ্ক বাড়াতে গিয়ে সুন্দরবনের অনেক জায়গায় ম্যানগ্রোভ কাটা হয়েছে।

    এই ভাবেই কার্যত বামদের বিঁধে ফিরহাদ হাকিমের মন্তব্য, ‘‘আমাদের মুখ্যমন্ত্রী প্রকৃতি প্রেমিক। আমার ক্ষমতায় আসার পর রাজারহাটে প্রকৃতিতীর্থ করা হয়েছে। যেখানে সবুজের মধ্যে মানুষ হেঁটে শ্বাস নিতে পারবেন। তৈরি করা হয়েছে ইকো পার্ক। একের পর এক পার্ক তৈরি করা হয়েছে। আমাদের শিশুদের ভবিষ্যতের জন্য গাছ লাগানো, প্রকৃতি বাঁচানোর কাজ করা হচ্ছে।’’

    এদিন কলকাতা পুরসভার ৯ নম্বর বোরোতে বিশ্ব পরিবেশ দিবস উপলক্ষে বৃক্ষরোপণ অনুষ্ঠান আয়োজন হয়। তাতে উপস্থিত ছিলেন মেয়র ফিরহাদ হাকিম, মেয়র পারিষদ দেবাশিস কুমার। ছিলেন বোরো চেয়ারপার্সন দেবলীনা বিশ্বাস, দক্ষিণ কলকাতার সাংসদ মালা রায়। অনুষ্ঠানের শুরুতে বৃক্ষরোপণ করেন ফিরহাদ হাকিম, দেবাশিস কুমার।

    আরও পড়ুন - Weather Update: উত্তরবঙ্গে জমিয়ে বৃষ্টি, গরমে নাজেহাল দক্ষিণবঙ্গে কখন ঝড়বৃষ্টি

    অনুষ্ঠানে দেবাশিস কুমার বলেন, ‘‘এ কলকাতাকে শিশুদের বাসযোগ্য করে তোলার অঙ্গীকার নিতে হবে আমাদেরকেই। পরিবেশ রক্ষা করার মানে শিশুদের ভবিষ্যত সুস্থ করে রাখা। তাই আমরা শহর ও রাজ্যজুড়ে গাছ লাগানোর কর্মসূচি নিয়েছি। গাছ যেমন কাটব না, তেমন প্রত্যেকেই একটি করে গাছ লাগানোর প্রতিজ্ঞা নিতে হবে। একই সঙ্গে জলাশয় বাঁচিয়ে রাখারও সংকল্প নিতে হবে আমাদেরকেই।’’

    মেয়র ফিরহাদ হাকিমও একইসুরে বলেছেন, ‘‘নগরায়নের সঙ্গে পাল্লা দিয়ে পরিবেশ বাঁচানোর কাজ আমাদেরকেই করতেই হবে। না হলে ভবিষ্যতে আমাদের শিশুরাই বাবা মায়ের কাছে বলবে কেন আমরা তাদের হাতে ইনহেলার তুলে দিলাম। তাদের যাতে এ কথা বলতে না হয়, তাই ফ্ল্যাট, গাড়ি যেমন দেবেন, তেমন অক্সিজেন পেয়ে শ্বাস নিয়ে বেঁচে থাকার পৃথিবী তাদের জন্য করে যাওয়ার অঙ্গীকার আমাদের নিতে হবে। না হলে আমাদেরকেই প্রশ্নের মুখে পড়তে হবে। তাই গাছ যেমন লাগানো হবে, তেমন জলাশয়ও বাঁচাতে হবে।’’

    তিনি কার্যত ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন, ‘‘প্রায় দিন আমাদের কাছে ফোন আসে, বলা হয় স্যার ওই জায়গাতে পুকুর বুঝিয়ে দেওয়া হচ্ছে, দাদা এখানে জলাশয়ে মাটি ফেলছে। আমরা অফিসার পাঠিয়ে বিষয়গুলি আটকায়। কিন্তু কেন  আমাদের এহেন কাজ করতে হবে। কেন আপনারা নিজেরারা প্রকৃতি বাঁচাতে উদ্যোগী হবেন না’’, প্রশ্ন তোলেন ফিরহাদ হাকিম। এদিনের অনুষ্ঠান থেকে ছোট ছোট বাচ্চাদের হাতে তুলে দেওয়া হয় গাছ।

    Amit Sarkar
    Published by:Debalina Datta
    First published:

    Tags: Firhad Hakim, World Environment Day

    পরবর্তী খবর