Home /News /kolkata /

Woman wins hearts: বিয়েবাড়ির সাজেই বৌভাতের ভোজের বেঁচে যাওয়া খাবার নিজের হাতে দরিদ্রদের খাওয়ালেন তরুণী

Woman wins hearts: বিয়েবাড়ির সাজেই বৌভাতের ভোজের বেঁচে যাওয়া খাবার নিজের হাতে দরিদ্রদের খাওয়ালেন তরুণী

সামাজিক মাধ্যমের বিভিন্ন মঞ্চে ছড়িয়ে পড়েছে তাঁর ছবি

সামাজিক মাধ্যমের বিভিন্ন মঞ্চে ছড়িয়ে পড়েছে তাঁর ছবি

যে খাবার বেঁচে গিয়েছিল, তা তিনি পৌঁছে গেলেন রানাঘাট স্টেশনে (Ranaghat Station)৷ সব খাবার বিলি করলেন দরিদ্রদের মধ্যে (woman serves leftover food from her brother’s wedding to poor people)

  • Share this:

    কলকাতা : বিয়েবাড়ি মানেই এলাহি খাবারের আয়োজন৷ আমন্ত্রিত অভ্যাগতরা যত খান, সেই তুলনায় খাবার নষ্টও কিছু কম হয় না৷ কারণ অতিথিদের আপ্যায়নে কোনও ত্রুটি না রাখতে প্রচুর খাবারের আয়োজন করা হয়৷ ফলে অনেক খাবারই অপচয় হয়৷ সেই প্রচলিত ধারার উজানস্রোতে পাড়ি দিলেন এক তরুণী৷ ভাইয়ের বৌভাতের অনু্ষ্ঠানে (wedding ceremony) যে খাবার বেঁচে গিয়েছিল, তা তিনি পৌঁছে গেলেন রানাঘাট স্টেশনে (Ranaghat Station)৷ সব খাবার বিলি করলেন দরিদ্রদের মধ্যে (woman serves leftover food from her brother’s wedding to poor people)৷ সামাজিক মাধ্যমের পোস্ট বলছে, ছকভাঙা এই তরুণীর নাম পাপিয়া কর৷

    সামাজিক মাধ্যমের বিভিন্ন মঞ্চে ছড়িয়ে পড়েছে তাঁর হাসিমুখের ছবি৷ সেখানে দেখা যাচ্ছে, জরিদার শাড়ি, গয়না মিলিয়ে বিয়েবাড়ির সাজে তিনি রানাঘাট স্টেশনে বিয়ের ভোজ পরিবেশন করছেন৷ নেটিজেনদের বাহবা ও শুভেচ্ছায় অভিনন্দিত হয়েছেন পাপিয়া৷ তাঁকে কুর্নিশ জানিয়েছেন সকলে৷ নেটিজেনরা জানিয়েছেন, পাপিয়া বরাবরই রান্না করে তুলে ধরেন অনাহারীদের মুখে৷ শুধু বিয়েবাড়ির বাড়তি খাবার বলেই নয়৷ এই তরুণী নিয়মিত অন্নহীনদের খাবার পরিবেশন করেন৷ নানা ধরনের সমাজসেবামূলক কাজে তিনি জড়িত৷ সে সাক্ষ্য দিচ্ছে সামাজিক মাধ্যমে তাঁর প্রোফাইল-ও৷ এই ধূসর বিষাদময় সময়ে তাঁর ভাবমূর্তি অমলিন৷

    আরও পড়ুন : সামর্থ্য সত্ত্বেও বর্জন সোনার গয়না, নিজের ব্যয়ে বিয়ে করলেন বাবা-মায়ের একমাত্র মেয়ে

    আরও পড়ুন : 'সেই বর্ষণমুখর রাত', কবিগুরু তর্পণে মদন মিত্র, শুনে নিন তাঁর রবীন্দ্রসঙ্গীত

    কিছু দিন আগে ধরা পড়েছিল এরকমই এক মানবিক ঘটনা৷ সেখানে উঠে এসেছিল ১০ বছর বয়সি লায়লার কথা৷ নিজের পায়ের চিকিৎসার জন্য সে কুকি বিক্রি করত৷ তার কাছে অত্যাশ্চর্যভবে পৌঁছ যায় এক ইনস্টাগ্রাম ব্যবহারকারীর সাহায্য৷

    আরও পড়ুন : আর অপেক্ষা নয়, কবে থেকে জাঁকিয়ে শীত পড়বে বঙ্গে? জানাল আবহাওয়া দফতর

    আমাদের দেশেও সমাজের প্রতি কোণে অতিমারির বিরুদ্ধে যুদ্ধে উঠে এসেছে একগুচ্ছ মানবিক মুখ৷ সেলেব্রিটি থেকে সাধারণ মানুষ, পাশে দাঁড়িয়েছেন আর্তদের৷ খাবার, ওষুধ এবং প্রয়োজনীয় অন্যান্য সামগ্রী তুলে দেওয়া হয়েছে পীড়িতদের হাতে৷ করোনা ভাইরাসের অতিমারির ছায়া এখনও সম্পূর্ণ মিলিয়ে যায়নি, স্তিমিত হয়েছে মাত্র৷ তার মধ্যেই শোনা যাচ্ছে নিত্যনতুন ভ্যারিয়্যান্টের কথা৷ এখন বিয়েবাড়িতে অতিথি নিয়ন্ত্রণ শিথিল হয়েছে৷ ফলে ভোজের খাবারের পরিমাণও বেশি হচ্ছে৷ সেই খাবার অপচয় না করে ক্ষুধার্তদের হাতে তুলে দিয়ে নেটিজেনদের মন জয় করেছেন পাপিয়া৷

    Published by:Arpita Roy Chowdhury
    First published:

    Tags: Ranaghat

    পরবর্তী খবর